ভারতে এক নারীকে ৫ মিনিটের ব্যবধানে দুই কোম্পানির টিকা

ভারতের বিহার রাজ্যের এক নারীকে মাত্র পাঁচ মিনিটের ব্যবধানে পৃথক দুই কোম্পানির করোনাভাইরাস টিকা দেওয়া হয়েছে।

নিউজ ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 19 June 2021, 06:23 PM
Updated : 19 June 2021, 06:24 PM

বিহারের পাটনা জেলার পুনপুন ব্লকের আওয়াধপুর গ্রামের বাসিন্দা সুনীলা দেবী (৬৩) গত বুধবার স্থানীয় একটি স্কুলে বসানো স্বাস্থ্য শিবিরে টিকা নিতে গিয়েছিলেন, সেখানেই তাকে পাঁচ মিনিটের ব্যবধানে কোভিশিল্ড ও কোভ্যাক্সিন টিকা দেওয়া হয় বলে জানিয়েছে ভারতীয় গণমাধ্যম।

শনিবার আনন্দবাজার অনলাইনের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সেদিন ওই স্বাস্থ্য কেন্দ্রে তাকে প্রথমে কোভিশিল্ড টিকা দেওয়া হয়, পরে কোভ্যাক্সিন টিকা দেওয়া হয়। 

বলা হচ্ছে, তাকে ‘ভুল করে’ পরপর দুই বার দুই কোম্পানির টিকা দিয়ে দেওয়া হয়েছে। 

ঘটনার পর থেকে তাকে একটি মেডিকেল টিমের পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে। তবে সুনীলা দেবী এখন পর্যন্ত সুস্থ আছেন বলে জানিয়েছে চিকিৎসা কর্মকর্তা সঞ্জয় কুমার।

জানা গেছে, ওই স্কুলের একটি রুমে এক লাইনের লোকদের কোভিশিল্ড ও অন্য লাইনের লোকদের কোভ্যাক্সিন দেওয়া হচ্ছি আর রুমের বাইরে সবার নাম নথিবদ্ধ করা হচ্ছিল।

একজন গ্রামবীস দ্য হিন্দুকে বলেছেন, “নাম নথিবদ্ধ করার পর তিনি রুমে প্রবেশ করে লাইনে দাঁড়িয়ে কোভিশিল্ড টিকা নেন, চলে যাওয়ার আগে তাকে কিছুক্ষণ অপেক্ষা করতে বলা হয়েছিল। তিনি পাঁচ মিনিটের মতো অপেক্ষা করার পর আরেক লাইনে গিয়ে দাঁড়ানোর পর তাকে কোভ্যাক্সিন টিকা দেওয়া হয়।”

টিকা দেওয়ার প্রক্রিয়ার বিষয়ে সুনীলা দেবীর কোনো ধারণা না থাকায় এ ঘটনা ঘটেছে বলে মনে করা হচ্ছে।

পরে তার পরিবারের সদস্যরা ও অন্যান্য গ্রামবাসী টিকা কেন্দ্রে এসে সেখানে থাকা স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মকর্তাদের সঙ্গে হৈ চৈ শুরু করলে তারা ঘটনা জানতে পারেন। উপস্থিত মেডিকেল কর্মকর্তা তাৎক্ষণিভাবে টিম গঠন করে সুনীলা দেবীকে তাদের পর্যবেক্ষণে রাখেন।    

ভারতের সরকারি নিয়ম অনুযায়ী, দুই টিকার মধ্যে সময়ে ব্যবধান তিন থেকে চার মাস ও টিকার দুই ডোজ একই কোম্পানির হওয়ার কথা।

সুনীলা দেবীকে যারা টিকা দিয়েছিলেন সেই দুই সেবিকাকে পাঁচ মিনিটের ব্যবধানে দুটি ভিন্ন টিকা দেওয়ার বিষয়ে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে। 

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক