পাকিস্তানের বেলুচিস্তানে বৃষ্টি ও হড়কা বানে আরও ১৫ মৃত্যু

প্রদেশটির পাঁচটি জেলায় ২৪ ঘণ্টার মধ্যে হওয়া বৃষ্টিতে সৃষ্ট হড়কা বানে এসব মৃত্যুর ঘটনা ঘটে বলে জানিয়েছেন কর্মকর্তারা।

নিউজ ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 3 August 2022, 07:49 AM
Updated : 3 August 2022, 07:49 AM

পাকিস্তানের বেলুচিস্তান প্রদেশের কয়েকটি জেলায় ভারি বৃষ্টি ও হড়কা বানে আরও ১৫ জনের মৃত্যু হয়েছে।

মঙ্গলবারও প্রবল বৃষ্টিতে সৃষ্ট ঢলে বহু ঘরবাড়ি ভেঙ্গে পড়ে এবং অবকাঠামোর ক্ষয়ক্ষতি হয়।

কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, প্রদেশটির পাঁচটি জেলায় ২৪ ঘণ্টার মধ্যে হওয়া বৃষ্টিতে সৃষ্ট হড়কা বানে এসব মৃত্যুর ঘটনা ঘটে।

জহোব জেলা প্রশাসনের এক কর্মকর্তা জানান, সাময়িকভাবে সৃষ্ট একটি নালা পার হতে গিয়ে হড়কা বানে এক ব্যক্তি ও তার ছেলে ভেসে যায়, পরে ডুবুরিরা তাদের মৃতদেহ উদ্ধার করে।

লাসবেলা জেলা প্রশাসনের একজন জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা ডনকে জানান, জেলার ওরাকি ও অন্যান্য এলাকা থেকে হড়কা বানের কারণে গত দুই দিন ধরে আটকা পড়ে থাকা দুই শতাধিক মানুষকে উদ্ধার করা হয়েছে।

প্রদেশটির আওয়ারান জেলার পাহাড়ি এলাকাগুলোতে মুষলধারায় বৃষ্টির পর ঝিরিগুলো ফুলে ফেঁপে ওঠে হড়কা বান ও বন্যার কারণ হয়। এতে বহু সড়ক ও সেতু ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় জেলাটির সঙ্গে অন্যান্য এলাকার যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে।

জেলার মাশকে ও গজ্জর শহরে খাদ্য সংকট দেখা দিয়েছে এবং শেষ খবর পর্যন্ত সেখানে কোনো ত্রাণ সামগ্রি পৌঁছেনি বলে খবর ডনের। সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন থাকায় পরিস্থিতি আরও খারাপ হতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন জেলা প্রশাসনের একজন কর্মকর্তা।

চলতি বর্ষা ঋতুতে পাকিস্তানজুড়ে অতিরিক্ত বৃষ্টিপাতে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। দেশটির জাতীয় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষের সর্বশেষ প্রতিবেদন অনুযায়ী, গত ছয় সপ্তাহে বৃষ্টিজনিত বিভিন্ন দুর্ঘটনা, হড়কা বান, বন্যা ও ভূমিধসে দেশটিজুড়ে ৫০০ জনেরও বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে। বন্যায় ৩৯ হাজারেরও বেশি বাড়ি পুরোপুরি অথবা আংশিক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে, এর পাশাপাশি মহাসড়ক, রাস্তা, সেতুসহ অবকাঠামোর ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক