লেবেল বুঝে প্রসাধনী কিনুন

ত্বকের যত্নে পণ্যের লেবেল বা মোড়কে উল্লেখ করা তথ্যের স্বচ্ছতা যাচাই করা প্রশ্নাতীত বিষয়। 'অর্গানিক', 'ন্যাচারাল' বা 'প্যারাবেন ফ্রি' ইত্যাদি শব্দ শুনেই কোনো রকম যাচাই বাছাই ছাড়াই এসব পণ্যের প্রতি আকৃষ্ট হওয়া মোটেও ঠিক নয়।

লাইফস্টাইল ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 26 March 2017, 09:47 AM
Updated : 26 March 2017, 09:47 AM

রূপচর্চাবিষয়ক ওয়েবসাইটে প্রকাশিত প্রতিবেদনথেকে জানা যায় কিছু প্রয়োজনীয় তথ্য সম্পর্কে যা পণ্য নির্বাচনে সহায়তা করবে।

তারিখ ও অন্যান্য বিষয়: পণ্য ব্যবহারের আগে এর বিধিমালা ও তারিখ দেখে নেওয়া একটি সাধারণজ্ঞান। তবে অবাক করা বিষয় হল এমন অনেক মানুষ আছে যারা পণ্য ব্যবহারের আগে মেয়াদের তারিখ,খোলার পর কতদিন ব্যবহার করা যাবে, ব্যাচ নম্বর, পুনর্ব্যবহারযোগ্য ও নির্মাতারসঙ্গে যোগাযোগ সংক্রান্ত তথ্য পরখ করেন না। প্রত্যেকেরই উচিত ব্যবহারের আগে পণ্যেরএসব তথ্য দেখে নেওয়া।

উপাদানের তালিকা: যদিও অনেক প্রতিষ্ঠান প্রসাধনীর মোড়কে কেবল কী ঘ্রাণ অথবা মূল উপাদান ব্যবহার করা হয়েছে তার নাম উল্ল্যেখ করে, যা সর্বশেষ ব্যবহারকারীকে তারা জানাতে চায়। অথচ এসব পণ্যে আরও অনেকধরনের উপাদানই আছে। তাই এমন ধরনের পণ্যই বেছে নেওয়া উচিত যার লেবেলে পণ্যে ব্যবহৃতপ্রতিটি উপাদানের নাম উল্লেখ করা আছে। উপাদানগুলোর কোনো একটি সম্পর্কে যদি ধারণা নাথাকে তাহলে ইন্টারনেটের মাধ্যমে সে সম্পর্কে খোঁজ খবর নিন।

সূক্ষ্ম মুদ্রণও পড়ুন: ‘ডার্মাটলজিক্যালি টেস্টেড’ এবং ‘ডার্মাটোলজিস্ট’ দিয়ে সুপারিশকরা- বিষয় দুটি মোটেও এক নয়। এর মানে হচ্ছে, 'প্যাচ টেস্ট'য়ের মাধ্যমে এটি নির্দিষ্টক্ষেত্রে নিরাপদ বলে ফলাফল পাওয়া গেছে। একইভাবে 'ক্লিনিক্যালি প্রুভেন' বলতে বোঝায়,এটি অল্পসংখ্যক লোকের জন্য অত্যন্ত তুচ্ছ ফলাফল ধারণ করে। এবং 'অর্গানিক' বা 'ন্যাচারাল'বলতে বোঝায় অনেক বেশি রাসায়নিক উপাদানের সঙ্গে এক বা দুটি ভেষজ উপাদান খুব অল্প পরিমাণেমিশ্রিত আছে। তাই সাবধান থাকুন।

অস্বাভাবিক দাবী: যখন কোনো কিছু পুনর্গঠন, পরিশোধন বা দীর্ঘস্থায়ী মেয়াদের কথা বলে, তখন খুঁজেবের করতে হবে এতে এমন কী দেওয়া আছে যার জন্য এই প্রসাধনীকে অলৌকিক গুণ দিয়েছে। তারাকি এতে ০.০১% কাঠ কয়লা বা ডালিমের নির্যাস মিশিয়েছে? যদি তাই হয়ে থাকে তাহলে আপনি বাসায়তৈরি করা ফেইসপ্যাকই ব্যবহার করুন। দাবী অনুযায়ী উপাদান এতে আক্ষরিক অর্থেই আছে কিনাসে বিষয়ে নিশ্চিত হয়ে নিন।

ব্র্যান্ডের বিষয়ে সতর্কতা: দুঃখজনক হলেও সত্যি, স্বনামধন্য ব্র্যান্ড বিশেষ করে বিলাসজাতপণ্যের যারা উত্তরাধিকার সূত্রেই পরিচিতি পেয়ে আসছে তাদের কাছ থেকে পণ্য কেনার ক্ষেত্রেসাবধান হওয়া উচিত। আসলেই তারা যা বলছে এবং পণ্যের লেবেলে সুস্পষ্টভাবে তার উল্লেখ আছেকিনা এবং তা সহজবোধ্য কিনা। যদি কোনো কারণে সন্দেহ হয়ে থাকে তবে তা পরীক্ষা করানোরচেষ্টা করুন।

ছবি: রয়টার্স।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক