শেষ হল ‘শাহ আব্দুল করিম লোক উৎসব’

দুদিনব্যাপী এই লোক উৎসব হয়েছে দিরাইয়ের কালনী নদীর তীরে উজানধল এলাকায়।

নিজস্ব প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 18 Feb 2024, 07:16 AM
Updated : 18 Feb 2024, 07:16 AM

বাউল শিল্পী শাহ আবদুল করিম স্মরণে সুনামগঞ্জে ‘শাহ আব্দুল করিম লোক উৎসব ২০২৪’ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মোবাইল আর্থিক সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান বিকাশের পৃষ্ঠপোষকতায় দুদিনব্যাপী এই লোক উৎসব হয়েছে দিরাইয়ের কালনী নদীর তীরে উজানধল এলাকায়। স্থানীয়দের পাশাপাশি দেশের বিভিন্ন জেলার মানুষ এতে অংশ নেন। এছাড়া বিদেশ থেকেও অনেকে এসেছিলেন এই উৎসবে।

রোববার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বিকাশ জানায়, এই শিল্পীর স্মরণে এ উৎসবের আয়োজন করা হচ্ছে ২০০৬ সাল থেকে। তার ১০৯তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে এবার শাহ আবদুল করিম পরিষদের সভাপতি ও তার ছেলে শাহ নুর জালালের সভাপতিত্বে গত বৃহস্পতিবার আলোচনা অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে উৎসব শুরু হয়। শাহ আবদুল করিম পরিষদ এই উৎসবের আয়োজন করে।

সুনামগঞ্জের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ রাশেদ ইকবাল চৌধুরী এবং বিকাশের হেড অব রেগুলেটরি অ্যান্ড কর্পোরেট অ্যাফেয়ার্স হুমায়ুন কবির উৎসবের উদ্বোধনী দিনে উপস্থিত ছিলেন।

শাহ নুর জালাল বলেন, “শাহ আবদুল করিমের বাড়িতে দেশের বিভিন্ন অঞ্চল ও দেশের বাইরে থেকেও ভক্ত-সুধীজনেরা আসেন। তাই তার নামে যদি একটি একাডেমি তৈরি করা যায়, তাহলে তার সৃষ্টি ও স্বপ্নকে বাঁচিয়ে রাখা সম্ভব হবে। এ ব্যাপারে সবার সহযোগিতা কামনা করি।”

বিকাশ কর্মকর্তা হুমায়ূন কবির বলেন, “একুশে পদক প্রাপ্ত বাউল সম্রাট শাহ আবদুল করিমের জন্মস্থান উজানধলে আয়োজিত এই লোক উৎসবের আয়োজনের সাথে সহযোগিতা করতে পেরে বিকাশ অত্যন্ত আনন্দিত। তার অনবদ্য সৃষ্টি সারা পৃথিবীব্যাপী ছড়িয়ে পড়েছে। এই ধরনের অনুষ্ঠানে বিকাশ সব সময় পাশে থাকতে চায়।”

আলোচনার পর ভক্ত-অনুরাগীরা বাউলসম্রাটের গান গেয়ে তাকে স্মরণ করেন।

‘গ্রামের নওজোয়ান হিন্দু মুসলমান’, ‘বন্দে মায়া লাগাইছে, দিওয়ানা বানাইছে’, ‘বন্ধুরে কই পাব সখী গো’, ‘কেন পিরিতি বাড়াইলা রে বন্ধু’, ‘তুমি বিনে আকুল পরাণ’সহ এই শিল্পীর জনপ্রিয় অন্যান্য গান গাওয়া হয় অনুষ্ঠানে।

এ উৎসবকে কেন্দ্র করে একটি মেলাও বসেছিল উজানধল গ্রামের মাঠে।