৫২ হাজার কোটি টাকার ৩৭ প্রকল্প অনুমোদন

“বর্তমান সরকারের এটাই শেষ একনেক সভা নয়। শিগগিরই আরেকটি বৈঠক অনুষ্ঠিত হতে পারে,” বলেন তিনি।

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 31 Oct 2023, 03:48 PM
Updated : 31 Oct 2023, 03:48 PM

সংসদ নির্বাচনের ক্ষণগণনা শুরুর আগের দিন ৫২ হাজার ৬১২ কোটি টাকা ব্যয়ের ৩৭টি উন্নয়ন প্রকল্প অনুমোদন দেওয়ার কথা জানিয়েছেন পরিকল্পনা মন্ত্রী এম এ মান্নান।

মঙ্গলবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে ঢাকার শেরেবাংলা নগরের এনইসি সম্মেলন কেন্দ্রে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভায় এই অনুমোদন দেওয়া হয়।

পরিকল্পনা মন্ত্রী এম এ মান্নান বলেন, “বর্তমান সরকারের এটাই শেষ একনেক সভা নয়। শিগগিরই আরেকটি বৈঠক হতে পারে।”

একনেক বৈঠক পরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, প্রায় দুই মাস বিরতির পর একনেক সভা হওয়ায় প্রকল্পের চাপ ছিল। বৈঠকে মোট ৪৪টি প্রকল্প উপস্থাপন করা হয়, এর মধ্যে ৭টি প্রকল্প ফেরত দেওয়া হয়। বাকি ৩৭টি প্রকল্প অনুমোদন দেওয়া হয়।

“বৈঠক প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, তিনি টিক মার্ক দিয়ে প্রকল্প অনুমোদন দেবেন না। প্রতিটি প্রকল্পের খুটিনাটি বিশ্লেষণ করে তারপর অনুমোদন দেবেন।”

পরিকল্পনামন্ত্রী জানান, অনুমোদন পাওয়া ৩৭ প্রকল্পে যে ৫২ হাজার ৬১২ কোটি টাকা ব্যয় হবে, তার মধ্যে সরকার নিজস্ব তহবিল থেকে যোগান দেবে ২১ হাজার ৫৪৬ কোটি ৭৭ লাখ টাকা। বিদেশি ঋণ হিসেবে আসবে ২৯ হাজার ৫৬৮ কোটি ৪০ লাখ টাকা, আর সংশ্লিষ্ট সংস্থার নিজস্ব তহবিল থেকে যোগান দেওয়া হবে ১ হাজার ৪৯৬ কোটি ৮৩ লাখ টাকা।

অনুমোদন পাওয়া প্রকল্পগুলো হচ্ছে-

>> ‘পাবনা জেলার ইছামতি নদী পুনরুজ্জীবিতকরণ’ প্রকল্প; ব্যয় ১ হাজার ৫৫৫ কোটি টাকা।

>> ‘যমুনা নদী টেকসই ব্যবস্থাপনা প্রকল্প-১: নদী তীর সংরক্ষণ ও নদী শাসন (কম্পোনেন্ট-১)’ প্রকল্প; ব্যয় ৮৭৩ কোটি ২৭ লাখ টাকা।

>> ‘পদ্মা নদীর ভাঙ্গন হতে কুষ্টিয়া জেলার মিরপুর উপজেলাধীন তালবাড়িয়া এবং কুমারখালী উপজেলাধীন শিলাইদহ ইউনিয়নের কোমরকান্দি এলাকা রক্ষা’ প্রকল্প; ব্যয় ১ হাজার ৪৭২ কোটি টাকা।

>> ‘পানি সাশ্রয়ী সেচ প্রযুক্তি এবং পলিশেড নির্মাণের মাধ্যমে নিরাপদ সবজি, ফল ও ফুল উৎপাদন’ প্রকল্প; ব্যয় ২০১ কোটি ৪৭ লাখ টাকা।

>> ‘রংপুর বিভাগ কৃষি ও গ্রামীণ উন্নয়ন’ প্রকল্প; ব্যয় ৭৯ কোটি টাকা।

>> ‘লোকাল গভর্নমেন্ট ইনিশিয়েটিভ অন ক্লাইমেট চেঞ্জ (লজিক)’ (২য় সংশোধিত) প্রকল্প; ব্যয় বেড়েছে ১১০ কোটি ৪৬ লাখ টাকা।

>> ‘সিলেট বিভাগ গ্রামীণ অ্যাকসেস সড়ক উন্নয়ন’ (৩য় সংশোধিত) প্রকল্প; ব্যয় বেড়েছে ২১ কোটি টাকা।

>> ‘নওগাঁ জেলার গ্রামীণ অবকাঠামো উন্নয়ন’ প্রকল্প; ব্যয় ১ হাজার ১০০ কোটি টাকা।

>> ‘মাগুরা জেলার গ্রামীণ অবকাঠামো উন্নয়ন’ প্রকল্প; ব্যয় ৪৯০ কোটি টাকা।

>> ‘জয়পুরহাট জেলার গ্রামীণ অবকাঠামো উন্নয়ন’ প্রকল্প; ব্যয় ৫০০ কোটি টাকা।

>> ‘ইনার সার্কুলার রিং রোডের বেড়িবাঁধ রায়ের বাজার স্লুইস গেইট থেকে লোহার ব্রিজ পর্যন্ত রাস্তার উন্নয়ন’ প্রকল্প; ব্যয় ৯৭৫ কোটি টাকা।

>> ‘আমিন বাজার ল্যান্ডফিল সম্প্রসারণ ও আধুনিকীকরণ’ (১ম সংশোধনী) প্রকল্প; ব্যয় বেড়েছে ৪৮৬ কোটি টাকা। 

>> ‘দেশের ৬৫৩টি মাদ্রাসায় মাল্টিমিডিয়া ক্লাসরুম স্থাপন’ (৩য় সংশোধনী) প্রকল্প; ব্যয় বাড়ছে ১ কোটি ৩৭ লাখ টাকা।

>> ‘ন্যাশনাল একাডেমি ফর অটিজম অ্যান্ড নিউরো ডেভেলপমেন্টাল ডিজএবিলিটিজ’ (৩য় সংশোধনী) প্রকল্প; ব্যয় বাড়ছে প্রায় ৩০৮ কোটি টাকা।

>> ‘লার্নিং এক্সেলারেশন ইন সেকেন্ডারি এডুকেশন (লেইস)’ প্রকল্প; ব্যয় ৩ হাজার ৩০৪ কোটি টাকা।

>> ‘বাংলাদেশ সরকারী কর্ম কমিশন সচিবালয়ের ৭টি আঞ্চলিক কার্যালয় প্রতিষ্ঠাসহ সক্ষমতা বৃদ্ধিকরণ’ (২য় সংশোধিত) প্রকল্প; ব্যয় বাড়ছে ১১ কোটি টাকা।

>> ‘রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রে অফসাইট পানি সরবরাহের সুবিধাদি স্থাপন’ প্রকল্প, ব্যয় প্রায় ২৪২ কোটি টাকা।

>> ‘১০ জেলায় বিএসটিআই’র আঞ্চলিক কার্যালয় স্থাপন’ প্রকল্প; ব্যয় ৪৩৩ কোটি টাকা।

>> ‘ইনস্টলেশন অব স্মার্ট প্রিপেইড গ্যাস মিটারস’ প্রকল্প; ব্যয় ৬৮১ কোটি টাকা।

>> ‘গ্যাস সেক্টর ইফিশিয়েন্সি ইম্প্রুভমেন্ট অ্যান্ড কার্বন অ্যাবেইটমেন্ট প্রজেক্ট ইনস্টলেশন অব স্মার্ট প্রিপেইড মিটার ফর টিজিটিডিজিসিএল’ প্রকল্প; ব্যয় প্রায় ৩ হাজার ৫৪৩ কোটি টাকা।

>> ‘স্মার্ট মিটারিং এনার্জি ইফিশিয়েন্সি ইম্প্রুভমেন্ট প্রজেক্ট (ইনস্টলেশন অব প্রিপেইড গ্যাস মিটার ফর টিজিটিডিসিএল) প্রকল্প’; ব্যয় ২ হাজার ২১৪ কোটি টাকা।

>> ‘ইনস্টলেশন অব সিঙ্গেল পয়েন্ট মুরিং (এসপিএম) উইথ ডাবল পাইপ লাইন’ (৪র্থ সংশোধনী) প্রকল্প; ব্যয় বাড়ছে ১ হাজার ১৭৩ কোটি টাকা।

>> ‘বগুড়া-রংপুর-সৈয়দপুর গ্যাস সঞ্চালন পাইপলাইন নির্মাণ’ (১ম সংশোধনী) প্রকল্প; ব্যয় ১১১ কোটি ৫৮ রাখ টাকা।

>> ‘মতলব উত্তর-গজারিয়া সড়কে মেঘনা-ধনাগোদা নদীর উপর সেতু নির্মাণ’ প্রকল্প; ব্যয় ৪ হাজার ১৭৫ কোটি টাকা।

>> ‘রহমতপুর-বাবুগঞ্জ-মুলাদি-হিজলা মহাসড়ক (জেড-৮০৩৪)-এর ৮ম কিলোমিটারে আড়িয়াল খাঁ নদীর উপরে মীরগঞ্জ সেতু নির্মাণ’ প্রকল্প, ব্যয় ১ হাজার ৪৪২ কোটি ৬০ লাখ টাকা।

>> ‘চট্টগ্রাম-কক্সবাজার হাইওয়ে ইম্প্রুভমেন্ট প্রজেক্ট (১)’ প্রকল্প; ব্যয় ৮ হাজার ৫৫৬ কোটি টাকা।

>> ‘আনোয়ারা উপজেলা সংযোগ সড়কসহ কর্ণফুলী টানেল সংযোগ সড়ককে ৪-লেনে উন্নীতকরণ (শিকলবাহা-আনোয়ারা সড়ক)’ প্রকল্প; ব্যয় ৮ হাজার ৫৫৬ কোটি টাকা।

>> ‘চাতুরী (চৌমুহনী)-সিইউএফএল-কর্ণফুলী ড্রাইডক (মেরিন একাডেমী)-ফকিরনিরহাট (এন-১২১) জাতীয় মহাসড়ক যথাযথমান ও প্রশস্ততায় উন্নীতকরণ’ প্রকল্প; ব্যয় ৫৮৪ কোটি টাকা।

>> ‘যমুনা নদীর টেকসই ব্যবস্থাপনা প্রকল্প-১ (নেভিগেশনাল চ্যানেল উন্নয়ন)’ প্রকল্প; ব্যয় ৬২০ কোটি টাকা।

>> ‘বাংলাদেশ কোস্ট গার্ড-এর সক্ষমতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে প্রতিস্থাপক জাহাজ সংগ্রহ’ প্রকল্প; ব্যয় ২ হাজার ৩১৫ কোটি টাকা।

>> ‘ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স অধিদপ্তরের অ্যাম্বুলেন্স সেবা সম্প্রসারণ (ফেইজ-২)’ প্রকল্প; ব্যয় প্রায় ৯৮ কোটি টাকা।

>> ‘অফিসার্স ক্লাব ঢাকা এর ক্যাম্পাসে বহুতল ভবন নির্মাণ’ (১ম সংশোধনী) প্রকল্প; ব্যয় বাড়ছে ১৯৫ কোটি টাকা।

>> ‘খুলনা হতে মোংলা পোর্ট পর্যন্ত রেল লাইন নির্মাণ’ (৩য় সংশোধনী) প্রকল্প; ব্যয় কমছে ৩৫ কোটি টাকা।

>> ‘চট্টগ্রাম-দোহাজারী মিটারগেজ রেলপথকে ডুয়েলগেজ রেলপথে রূপান্তর’ প্রকল্প; ব্যয় ১০ হাজার ৭৯৭ কোটি টাকা।

>> ‘জয়দেবপুর-ঈশ্বরদী সেকশনের ডুয়েল গেজ সিঙ্গেল লাইন নির্মাণ (প্রকৌশল সেবা) সংক্রান্ত কারিগরী সহায়তা’ প্রকল্প; ব্যয় প্রায় ১৬৭ কোটি টাকা।

>> ‘স্ট্রেংদেনিং রেগুলেটরি সিস্টেম ফর ভ্যাক্সিন, ডায়াগনস্টিক অ্যান্ড থেরাপিউটিক্স’ প্রকল্প; ব্যয় ৬১৩ কোটি টাকা এবং

>> ‘এসেনসিয়াল বায়োটেক অ্যান্ড রিসার্চ সেন্টার, গোপালগঞ্জ স্থাপন’ প্রকল্প; ব্যয় ৩ হাজার ১২৪ কোটি টাকা।