জ্বালানির মূল্য এত বৃদ্ধির নজির ‘কোথাও নেই’: মীর নাছির

এই বিএনপি নেতার ভাষায়, চট্টগ্রামে তাদের সমাবেশ আওয়ামী লীগের জন্য ‘১০ নম্বর বিপদ সংকেত’।

চট্টগ্রাম ব্যুরোবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 12 August 2022, 03:00 PM
Updated : 12 August 2022, 03:00 PM

দেশে জ্বালানি তেলের দাম একবারে যতটা বাড়ানো হয়েছে, তা ‘বিশ্বে নজিরবিহীন’ বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান মীর মোহাম্মদ নাছির উদ্দিন।

তিনি বলেছেন, “পৃথিবীর কোথাও এক লাফে জ্বালানির এত মূল্যবৃদ্ধির নজির নেই। কুইক রেন্টালে বিদ্যুৎ উৎপাদনের নামে সরকার ভর্তুকি দিয়ে দেশের রিজার্ভ খেয়ে ফেলছে। দেশটাকে আওয়ামী লীগ দেউলিয়া করে দিয়েছে।“

জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধি ও দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতির প্রতিবাদে কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে শুক্রবার চট্টগ্রাম নগর বিএনপি আয়োজিত বিক্ষোভ সমাবেশে দলের চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা এ মন্তব্য করেন।

নাসিমন ভবনের দলীয় কার্যালয় প্রাঙ্গণে মীর মোহাম্মদ নাছির বলেন, “গতকাল ঢাকায় আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে বিএনপির সমাবেশ ছিল ৭ নম্বর বিপদ সংকেত। আর চট্টগ্রামের সমাবেশ আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে ১০ নম্বর বিপদ সংকেত।

“আওয়ামী লীগের হাতে দেশ নিরাপদ নয়। তারা ১৯৭৫ সালেও গণতন্ত্র হত্যা করে মনে করেছিল সারাজীবন ক্ষমতায় টিকে থাকবে; কিন্তু পারেনি। জনরোষের মুখে সরকারের পতন হয়েছে।”

ডলার সংকটের প্রসঙ্গে সাবেক বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী নাছির বলেন, “রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরোর হিসাব অনুযায়ী গত ৭ বছরে দেশ থেকে ২৭০ দশমিক ৮১ মিলিয়ন ডলারের পণ্য রপ্তানি হয়েছে। বাংলাদেশ ব্যাংকের হিসাব আছে ২৩৯ দশমিক ৯৬ মিলিয়ন ডলার। বাকি ৩০ দশমিক ৪০ মিলিয়ন ডলার কোথায় গেল?

“আজকে জাতি এটা জানতে চায়। এটা একটা বিরাট শুভঙ্করের ফাঁকি, বিরাট ডাকাতি, বিরাট লুটের একটা চিত্র। আওয়ামী লীগ জনগণের সরকার নয়, আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সরকার। বাহিনীর আশ্রয়ে তারা টিকে আছে। দেশের মানুষ আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে অত্যন্ত ক্ষুব্ধ।”

বিক্ষোভ সমাবেশ চলাকালে নাসিমন ভবনের মাঠ, সামনের সড়কসহ আশেপাশের এলাকায় কয়েক হাজার নেতাকর্মী সমবেত হন।

সমাবেশে নগর বিএনপির আহ্বায়ক শাহাদাত হোসেন বলেন, “আজকের জ্বালানি সংকট, অর্থনৈতিক সংকট, বিদ্যুতের লোড শেডিং, বিদ্যুতের সংকট- সবকিছুর মূলে এই সরকারের দুর্নীতি। লুটপাট ও চুরি করে সরকার দেশকে ফোকলা করে দিয়েছে।

“বর্তমান সরকার টিকেই আছে মানুষকে প্রতারণা করে। কুইক রেন্টাল পাওয়ার প্ল্যান্টের নামে সরকার হাজার হাজার কোটি টাকা লুট করেছে। তাদের নিজস্ব লোকজনকে মুনাফা পাইয়ে দিয়েছে। আজকে বাংলাদেশ যে দেউলিয়াত্বের দিকে যাচ্ছে, তার জন্য সম্পূর্ণ দায়ী এই আওয়ামী লীগ সরকার। এর জবাব তাদের দিতে হবে।”

কর্মসূচিতে বিএনপির শ্রম বিষয়ক সম্পাদক এ এম নাজিম উদ্দিন বলেন, “আন্তর্জাতিক বাজারে তেলের দাম কমলেও পেট্রোলিয়াম করপোরেশন দাম না কমিয়ে পাঁচ বছর ধরে লাভ করেছে। এতে তাদের লাভ ছিল প্রায় ৫০ হাজার কোটি টাকা। সেই মুনাফা তারা কী করেছে?”

নগর বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়কশাহ আলমের সঞ্চালনায় সমাবেশে অন্যদের মধ্যে বক্তৃতা করেন নগর কমিটির সদস্য সচিব আবুল হাশেম বক্কর, জ্যেষ্ঠ যুগ্ম আহ্বায়ক এম এ আজিজ, যুগ্ম আহ্বায়ক মোহাম্মদ মিয়া ভোলা, অ্যাডভোকেট আবদুস সাত্তার, সৈয়দ আজম উদ্দীন, এস কে খোদা তোতন, নাজিমুর রহমান, কাজী বেলাল উদ্দিন, ইয়াছিন চৌধুরী লিটন, ইসকান্দর মির্জা।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক