চট্টগ্রামে বাস ও অটোরিকশা সংঘর্ষে চালকের মৃত্যু

হাইওয়ে পুলিশের কাছ থেকে থামার সংকেত পেয়ে অটোরিকশাটি উল্টো পথে যাওয়ার সময় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

চট্টগ্রাম ব্যুরোবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 3 August 2022, 03:53 PM
Updated : 3 August 2022, 03:53 PM

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ড উপজেলায় বাস ও অটোরিকশার সংঘর্ষে রিকশাচালকের মৃত্যু হয়েছে। এ সময় আরও পাঁচজন আহত হন।

উপজেলার নুনাছড়া এলাকায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে বুধবার তারা হতাহত হন।

নিহত ওই অটোরিকশা চালকের নাম কোরবান আলী (৪০)। আহতের পরিচয় পাওয়া যায়নি।

এদিকে হাইওয়ে পুলিশের কাছ থেকে থামার সংকেত পেয়ে অটোরিকশাটি উল্টো পথে যাওয়ার সময় এ দুর্ঘটনা ঘটেছে বলে স্থানীয়রা জানালেও তারা (পুলিশ) বিষয়টি অস্বীকার করে বলছে কোনো অটোরিকশাকে থামার সংকেত তারা দেয়নি।

স্থানীয়রা জানান, মহাসড়ক দিয়ে অটোরিকশাটি যাওয়ার পথে হাইওয়ে পুলিশের সদস্যরা সেটিকে থামার সংকেত দেয়। এসময় চালক অটোরিকশাটি ঘুরিয়ে উল্টোপথে যাওয়ার সময় চট্টগ্রাম থেকে দাউদকান্দিগামী একটি বাসের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়।

এতে রিকশাটি দুমড়ে মুচড়ে গিয়ে চালক ও যাত্রীরা আহত হয়।

ঘটনাস্থলে থাকা হাইওয়ে পুলিশের কুমিরা ফাঁড়ির এএসআই আকরাম হোসেন বলেন, “আমরা কোনো অটোরিকশা দেখিনি। দুর্ঘটনাস্থল থেকে আরও কিছুটা দূরে আমাদের টহলগাড়ি ছিল।”

তিনি দাবি করেন, ঢাকার দিকে যাওয়া একটি হাইচ চালকের কাছ থেকে দুর্ঘটনার খবর পেয়ে তারা ঘটনাস্থলে যান। পরি তাদের গাড়িতে করে আহত ছয় জনকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়। সেখানে চিকিৎসক কোরবান আলীকে মৃত ঘোষণা করেন।

এদিকে ঘটনার পর স্থানীয়রা সড়কে জড়ো হয়ে হাইওয়ে পুলিশের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করেছেন।

চট্টগ্রাম জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সীতাকুণ্ড সার্কেল) আশরাফুল করিম বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “মহাসড়কে চলাচল বন্ধ থাকার পরও অটোরিকশাটি সড়কে উঠেছিল। সামনে হাইওয়ে পুলিশের গাড়ি দেখে সেটি ইউটার্ন করে পাশের রাস্তায় চলে যাওয়ার চেষ্টা করে। এসময় সেটি ঢাকামুখী দাউদকান্দি এক্সপ্রেস নামে একটি বাসের সামনে পড়ে যায়।”

বাস চালক অটোরিকশা দেখে থামানোর চেষ্টা করে সেটি সড়ক বিভাজকের উপর তুলে দেয়। এসময় অটোরিকশাটির সঙ্গে সংঘর্ষে সেটি দুমড়ে মুচড়ে যায় বলে জানান তিনি।

তবে সড়কে কোনো প্রতিবাদ হয়নি জানিয়ে পুলিশ সুপার বলেন, স্থানীয় কিছু চালক জড়ো হয়েছিল। তারা কোনো প্রতিবাদ করেনি।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক