সুদীপ্ত হত্যার অভিযোগপত্র গ্রহণ

চট্টগ্রামে ছাত্রলীগ নেতা সুদীপ্ত বিশ্বাস হত্যা মামলায় পিবিআইয়ের দেওয়া অভিযোগপত্র গ্রহণ করেছে আদালত।

চট্টগ্রাম ব্যুরোবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 9 Feb 2021, 01:01 PM
Updated : 9 Feb 2021, 01:01 PM

মঙ্গলবার চট্টগ্রামের অতিরিক্ত মুখ্য মহানগর হাকিম মহিউদ্দিন মুরাদের আদালতে শুনানি শেষে অভিযোগপত্রটি গ্রহণ করা হয়।

চট্টগ্রাম নগর পুলিশের সহকারী কমিশনার (প্রসিকিউশন) কাজী সাহাবুদ্দিন আহমদ বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “আজ অভিযোগপত্র উপস্থাপনের দিন ছিল। বাদীর উপস্থিতিতে তা করা হয়। বাদীর কোনো আপত্তি নেই বলে আদালতকে জানান। আদালতে অভিযোগপত্রটি গৃহীত হয়েছে।”

আদালতে হাজির হয়ে অভিযোগপত্রে অনাপত্তি জানানোর বিষয়টি বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে নিশ্চিত করেছেন মামলার বাদী নিহত সুদীপ্তর বাবা মেঘনাদ বিশ্বাস।

গত ১ ফেব্রুয়ারি মামলার তদন্তকারী সংস্থা পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) আওয়ামী লীগ নেতা দিদারুল আলম মাসুমসহ ২৪ জনকে আসামি করে আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেয়। এদের মধ্যে ১৮জন গ্রেপ্তার আছে।

২০১৭ সালের ৬ অক্টোবর সকালে নগরীর দক্ষিণ নালাপাড়ার বাসা থেকে ডেকে নিয়ে পিটিয়ে হত্যা করা হয় নগর ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক সুদীপ্ত বিশ্বাসকে।

সুদীপ্ত বিশ্বাস

সুদীপ্তর বাবা মেঘনাদ বিশ্বাস বাদী হয়ে সদরঘাট থানায় অজ্ঞাত পরিচয় সাত-আটজনকে আসামি করে যে হত্যা মামলা করেছিলেন, এক বছর পর তারই আবেদনে আদালত এর তদন্তের দায়িত্ব পিবিআইকে দেয়।

নানা কারণে আলোচিত চট্টগ্রাম আওয়ামী লীগ নেতা দিদারুল আলম মাসুমকে সুদীপ্ত হত্যার নির্দেশদাতা হিসেবে অভিযুক্ত করা হয়েছে।

হত্যাকাণ্ডের জন্য ছাত্রলীগের একাংশ লালখান বাজার ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মাসুমকে দায়ী করলেও গ্রেপ্তারদের কারও জবানবন্দিতে তার নাম আসেনি; এক ‘বড় ভাই’ হুকুমদাতা ছিলেন বলে তাদের ভাষ্য।

২০১৯ সালের ১২ জুলাই গ্রেপ্তার মিজান হত্যাকাণ্ডের নির্দেশদাতা হিসেবে মাসুমের নাম বলার পর গ্রেপ্তার হন এই আওয়ামী লীগ নেতা। তিনি ছাড়াও এ মামলায় আরও ১৭ জন গ্রেপ্তার হয়েছেন, যারা সবাই মাসুমের অনুসারী বলে পরিচয় দিয়েছেন। এদের মধ্যে চারজন আদালতে জবানবন্দি দিয়েছেন।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক