বিশ্বকাপে দিবা-রাত্রির ম্যাচ আগে শুরুর পরামর্শ অশ্বিনের

শিশিরের প্রভাবের কথা চিন্তা করে দিন-রাতের ম্যাচ শুরুর সময় এগিয়ে আনার কথা বললেন ভারতের অভিজ্ঞ স্পিনার।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 15 Jan 2023, 12:03 PM
Updated : 15 Jan 2023, 12:03 PM

দিবা-রাত্রির ম্যাচে শিশিরের প্রভাব থাকে স্পষ্ট। বিশেষ করে, পরে ব্যাটিং করা দলগুলো পায় বাড়তি সুবিধা। সম্ভাব্য এই সমস্যার কথা মাথায় রেখে আসছে ওয়ানডে বিশ্বকাপের ম্যাচগুলো তাড়াতাড়ি শুরু করার পরামর্শ দিলেন ভারতের স্পিনার রবিচন্দ্রন অশ্বিন। 

আগামী অক্টোবর-নভেম্বরে ভারতে হবে এবারের ওয়ানডে বিশ্বকাপ। ভারতে দিবা-রাত্রির ম্যাচ শুরু হয় সাধারণত বেলা দেড়টা থেকে। শিশিরের ভাবনায় ম্যাচ শুরুর সময় দুই ঘণ্টা এগিয়ে আনার কথা বললেন অশ্বিন।

নিজের ইউটিউব চ্যানেলে এই অফ স্পিনার বলেন, বিশ্বকাপের দিন-রাতের ম্যাচগুলো শুরু করা উচিত বেলা সাড়ে ১১টা থেকে।

ম্যাচে শিশির কতটা প্রভাব ফেলে, সেটার উদাহরণ হিসেবে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে চলমান সিরিজের প্রথম ওয়ানডের কথা তুলে ধরেন অশ্বিন। ৬৭ রানের জয়ের ম্যাচে আগে ব্যাটিং করে ৩৭৩ রানের পুঁজি গড়ে স্বাগতিকরা। রান তাড়ায় লঙ্কানরা করে ৩০৬ রান।

ব্যবধান বেশ বড় হলেও অশ্বিন মনে করেন, ম্যাচে ভারতের আধিপত্য তারপরও প্রতিফলিত হচ্ছে না। তার মতে, শিশির কমিয়ে দিচ্ছে দলগুলোর মধ্যে পার্থক্য।

“মন্থর উইকেটে ভারত দারুণ ব্যাটিং করেছে এবং গড় সংগ্রহের চেয়ে বেশি স্কোর গড়েছে। এরপরও তাদের জিততে কঠিন লড়াই করতে হয়। (শিশিরের কারণে) দলগুলোর মধ্যে মানের পার্থক্যটা বোঝা যায় না।”

“আমার পরামর্শ কিংবা মতামত হলো, বিশ্বকাপে আমরা কোন ভেন্যুতে খেলছি এবং কোন সময়ে খেলছি তা দেখতে হবে। বিশ্বকাপের ম্যাচগুলো বেলা সাড়ে ১১টায় কেন শুরু করা উচিত নয়?”

ম্যাচ আগে শুরুর বিপক্ষে থাকার কথা সম্প্রচার স্বত্ব পাওয়া টিভি চ্যানেলগুলোর। কারণ এতে তাদের দর্শক কমে যাওয়ার শঙ্কা রয়েছে। তবে অশ্বিন মনে করেন, সময় যখনই হোক বিশ্বকাপের ম্যাচ দেখবেন ক্রিকেটপ্রেমীরা।

“আইসিসি ভালো করেই জানে যে শিশির থাকবে…আমরা যদি সকাল সাড়ে ১১টায় খেলা শুরু করি, তাহলে শিশিরের প্রভাব খেলায় পড়বে না। তাহলে কেন নয়? সব ক্রিকেট ভক্তরা কি বিশ্বকাপকে প্রাধান্য দেবে না? সাড়ে ১১টায় ম্যাচ দেখবে না?”

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক