বিস্ময় জাগিয়ে বিশ্বকাপ দলে শান্ত, নেই মাহমুদউল্লাহ

চোট কাটিয়ে দলে ফিরেছেন লিটন দাস, নুরুল হাসান সোহান, হাসান মাহমুদ ও ইয়াসির আলি চৌধুরি।

ক্রীড়া প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 14 Sept 2022, 08:50 AM
Updated : 14 Sept 2022, 08:50 AM

ব্যাটে ভাটার টান অনেক দিন ধরে। তাই টি-টোয়েন্টি দলে মাহমুদউল্লাহর জায়গা নিয়ে প্রশ্ন উঠছিল একটু একটু করে। এশিয়া কাপেও বিবর্ণ পারফরম্যান্সের তা উচ্চকিত হয় আরও। টানা ব্যর্থতায় শেষ পর্যন্ত বাদই পড়লেন মাহমুদউল্লাহ। তার দুঃসংবাদ শোনার দিনে সুখবর পেলেন নাজমুল হোসেন শান্ত। কোনো কিছু না করেই প্রথমবারের মতো টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ দলে জায়গা পেয়ে গেলেন বাঁহাতি এই টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান! 

মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে বুধবার অস্ট্রেলিয়া আসরের জন্য ১৫ সদস্যর দল ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড। এই দলটিই খেলবে নিউ জিল্যান্ডে ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজে।    

গত এশিয়া কাপের দল থেকে মাহমুদউল্লাহ ছাড়াও বাদ পড়েছেন তিন ওপেনার এনামুল হক, পারভেজ হোসেন ইমন ও মোহাম্মদ নাঈম শেখ এবং অফ স্পিনার শেখ মেহেদি হাসান। ওই টুর্নামেন্ট শেষে আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি থেকে অবসর নেওয়ায় স্বাভাবিকভাবে বিবেচনা করা হয়নি অভিজ্ঞ মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিমকে।

চোট কাটিয়ে দলে ফিরেছেন লিটন দাস, নুরুল হাসান সোহান, ইয়াসির আলি চৌধুরি ও হাসান মাহমুদ। বিস্ময় জাগিয়ে দলে এসেছেন শান্ত। 

এশিয়া কাপের জন্য প্রথম ঘোষিত ১৭ সদস্যের দলে ছিলেন পেসার হাসান ও কিপার-ব্যাটসম্যান সোহান। অনুশীলনে চোট পাওয়ায় টুর্নামেন্টের আগেই ছিটকে যান হাসান। অস্ত্রোপচারের পর পুরোপুরি সেরে না ওঠায় সেখানে খেলতে পারেননি সোহান। বিশ্বকাপ পর্যন্ত দলের সহ-অধিনায়ক করা হয়েছে তাকে। 

গত জুলাইয়ে জিম্বাবুয়ে সফরে দ্বিতীয় ওয়ানডেতে চোট পান লিটন। সেরে ওঠার পর তার ফেরা অনুমিতই ছিল। সেই সফরের আগে ওয়েস্ট ইন্ডিজে প্রস্তুতি ম্যাচ খেলার সময় চোট পান ইয়াসির। লম্বা সময় মাঠের বাইরে থাকার পর ফিরলেন তিনিও।

অস্ট্রেলিয়ায় বিশ্বকাপ বলে কন্ডিশনের কথা বিবেচনা করে পেস বোলিংয়ে শক্তি বাড়িয়েছে বাংলাদেশ। অলরাউন্ডারসহ দলে পেসার পাঁচ জন।

লম্বা সময় পর টি-টোয়েন্টি দলে ফেরার পর জায়গা ধরে রাখার মতো কিছু করতে না পেরে ফের বাদ পড়লেন ওপেনার এনামুল। এশিয়া কাপে কোনো ম্যাচ না খেলেই তার সঙ্গী হলেন পারভেজ। সোহানের জায়গায় হুট করেই দলে ডাক পাওয়া নাঈম খেলেন আফগানিস্তানের বিপক্ষে প্রথম ম্যাচে। সেই ম্যাচের ব্যর্থতায় ফের বাদ পড়লেন তিনি।

গত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ থেকে এশিয়া কাপের আগ পর্যন্ত ১৪ ইনিংসে ১৭.৪১ গড় ও ১০০.৪৮ স্ট্রাইক রেটে ২০৯ রান করা মাহমুদউল্লাহ দেখাতে পারেননি উন্নতির আভাস। এশিয়ার শ্রেষ্টত্বের লড়াইয়ে আফগানিস্তানের বিপক্ষে প্রথম ম্যাচে ২৭ বলে এক চারে করেন কেবল ২৫। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে একটি করে ছক্কা ও চারে ২২ বলে খেলেন ২৭ রানের ইনিংস। দলে জায়গা ধরে রাখার জন্য তা যথেষ্ট হলো না।

শেষ দিকে মাহমুদউল্লাহর যা পারফরম্যান্স, তার চেয়ে খুব একটা এগিয়ে নেই শান্ত। দেশের হয়ে ৯ ম্যাচে মাত্র ১০৪.২২ স্ট্রাইক রেট ও ১৮.৫০ গড়ে তার রান ১৪৮। সর্বোচ্চ কেবল ৪০।

স্ট্যান্ড বাই হিসেবে রাখা হয়েছে মেহেদি, রিশাদ হোসেন, সৌম্য সরকার ও শরিফুল ইসলামকে। নিউ জিল্যান্ড সিরিজে দলের সঙ্গে যাবেন এই চার জন।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের বাংলাদেশ দল: সাকিব আল হাসান (অধিনায়ক), আফিফ হোসেন, মোসাদ্দেক হোসেন, মুস্তাফিজুর রহমান, সাব্বির রহমান, মেহেদী হাসান মিরাজ, নুরুল হাসান সোহান, তাসকিন আহমেদ, লিটন দাস, ইয়াসির আলি চৌধুরি, হাসান মাহমুদ, মোহাম্মদ সাইফ উদ্দিন, নাসুম আহমেদ, ইবাদত হোসেন, নাজমুল হোসেন শান্ত। 

দলে ফিরেছেন: লিটন দাস, নুরুল হাসান সোহান, ইয়াসির আলি চৌধুরি রাব্বি, হাসান মাহমুদ, নাজমুল হোসেন শান্ত।

বাদ: মাহমুদউল্লাহ, এনামুল হক, মুশফিকুর রহিম, পারভেজ হোসেন ইমন, শেখ মেহেদি হাসান, মোহাম্মদ নাঈম শেখ।

স্ট্যান্ডবাই: শরিফুল ইসলাম, সৌম্য সরকার, রিশাদ হোসেন, শেখ মেহেদি হাসান।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক