নিজেকে ‘অকেশনাল’ বোলার মনে করেন না মোসাদ্দেক

রান আটকানোর চেষ্টা করেই ৫ উইকেট ধরা দিয়েছে, বললেন বাংলাদেশের জয়ের নায়ক।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 31 July 2022, 06:55 PM
Updated : 31 July 2022, 06:55 PM

অনিয়মিত বোলার ঠিক নন মোসাদ্দেক হোসেন। হাত ঘোরান তিনি নিয়মিতই। তবে বিশেষজ্ঞ বোলারও তো নন। তার কাছে মূলত দুই-তিন ওভার রান আটকানোর আশা থাকে দলের। সেই তিনিই বল হাতে বাংলাদেশের জয়ের নায়ক। দেশের হয়ে টি-টোয়েন্টিতে দ্বিতীয় সেরা বোলিং কীর্তি এখন তার। দলকে জেতানোর পর এই অলরাউন্ডার বললেন, বল হাতে নিলে নিজেকে তিনি বিশেষজ্ঞ বোলারই মনে করেন।

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজে টিকে থাকতে এ দিন জয়ের বিকল্প ছিল না বাংলাদেশের জন্য। এই ম্যাচের জন্য প্রথাগত পথ ছেড়ে একটু ভিন্ন পরিকল্পনা করে দল। প্রথম ওভারে বোলিংয়ে আনা হয় মোসাদ্দেক হোসেনকে। এই ম্যাচের আগে ১৯ টি-টোয়েন্টি খেলে যার উইকেট ছিল সাকল্যে ৭টি।

সেই মোসাদ্দেক উইকেট নেন ম্যাচের প্রথম বলেই, প্রথম ওভারে নেন দুটি। নতুন বলে চার ওভারের টানা স্পেলে ২০ রানে ৫ উইকেট নিয়ে ধসিয়ে দেন জিম্বাবুয়ের টপ ও মিডল অর্ডার। তৈরি করে দেন দলের জয়ের ভিতও। ৭ উইকেটের জয়ে সিরিজে সমতা ফেরায় বাংলাদেশ।

ঘরোয়া ও আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি মিলিয়ে আগের ১১৪ ম্যাচে কখনোই এক ম্যাচে দুই উইকেটের বেশি পাননি তিনি। এমন একজনের ৫ উইকেট পেয়ে যাওয়া বড় বিস্ময়ই বটে। তবে ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে মোসাদ্দেক বললেন, বল হাতে পেলে নিজেকে সত্যিকারের বোলারই ভাবেন তিনি।

“এই কথাটি আগেও অনেকবার বলে আসছি, আমি যখন বোলিং করি, কখনই ভাবি না যে আমি অকেশনাল বোলার। সবসময় এই দায়িত্ব নেওয়ার চেষ্টা করি যে মূল বোলার হিসেবে বোলিং করছি।”

তার এ দিনের বোলিংয়ে অবশ্য তাকে মূল বোলারই মনে হয়েছে। জিম্বাবুয়ের প্রথম ৫ ব্যাটসম্যানই ধরা পড়েছে তার স্পিনের জালে। যদিও দল থেকে তাকে ভূমিকা দেওয়া হয়েছিল রান আটকানোর।

“উইকেট যদি খেয়াল করেন, খুব বেশি সহায়তা যে বোলারদের জন্য ছিল, তা বলব না। অবশ্যই খুব ভালো উইকেট ছিল (ব্যাটিংয়ের জন্য)। আমার মাথায় একটা ব্যাপারই ছিল, অধিনায়ক বল হাতে তুলে দিয়ে বলেছিলেন যেন রান আটকে রাখতে পারি। আগের দিন ওরা দুইশ করেছে। আমাদের চাওয়া ছিল, আজকে ১৬০-১৭০ রানের মধ্যে রাখতে পারলে ভালো। ওই পরিকল্পনাই ছিল।”

“৫ উইকেটের জন্য বোলিং করিনি। পরিকল্পনা ছিল ডট বল করার। ভালো জায়গায় বোলিং করেছি, এজন্য হয়তো ফল পেয়েছি।”

স্বস্তির এই জয়ে সিরিজে সমতা ফেরানোর পর এবার সুযোগ সিরিজ জয়ের। মোসাদ্দেকের বিশ্বাস, মঙ্গলবারের ম্যাচ জিতে সিরিজও জয় করতে পারবে দল।

“আমরা যদি আমাদের প্রক্রিয়াগুলো ঠিক রাখতে পারি, যে কাজগুলো এই ম্যাচে করেছি, তা ধরে রাখতে পারলে অবশ্যই সিরিজ জয় করা সম্ভব।”

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক