তরুণদের সুযোগ কাজে লাগাতে বললেন তামিম

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজ তরুণদের জন্য সুযোগ, বলছেন বাংলাদেশের ওয়ানডে অধিনায়ক।

ক্রীড়া প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 4 August 2022, 04:24 PM
Updated : 4 August 2022, 04:24 PM

ওয়ানডে বিশ্বকাপ এখনও ১৫ মাস দূরে থাকলেও বাংলাদেশের সম্ভাব্য স্কোয়াডের একটি ছবি এর মধ্যে এঁকে ফেলেছেন তামিম ইকবাল। তবে দু-একটি জায়গা তিনি এখনও নড়বড়ে দেখছেন। সেই জায়গাগুলো পাকা করার চেষ্টায় জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজকে বড় সুযোগ হিসেবে দেখছেন বাংলাদেশের ওয়ানডে অধিনায়ক। তরুণদের প্রতি তার বার্তা, ‘লুফে নাও সুযোগ।’

হারারে স্পোর্টস ক্লাব মাঠে বাংলাদেশ সময় শুক্রবার দুপুর সোয়া ১টায় শুরু হবে তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের প্রথমটি।

এমনিতে কোনো নিক্তিতেই এই ম্যাচ বা সিরিজের ওজন খুব একটা নেই বাংলাদেশের জন্য। আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপ সুপার লিগের অংশও নয় এই সিরিজ। র‌্যাঙ্কিংয়ে দুই দলের ফারাক যোজন যোজন। আইসিসি ওয়ানডে র‌্যাঙ্কিংয়ে বাংলাদেশ এখন সাতে, জিম্বাবুয়ে আছে পনেরোয়।

দুই দলের মুখোমুখি লড়াইয়ের গত কয়েক বছরের ইতিহাসও এক তরফা। সিরিজ জয় তো বহুদূর, ২০১৩ সালের পর কোনো ওয়ানডে ম্যাচেই বাংলাদেশকে হারাতে পারেনি জিম্বাবুয়ে। সবশেষ ১৯ ম্যাচেই জিতেছে বাংলাদেশ।

এই সিরিজ থেকে তাই বাংলাদেশের প্রাপ্তির সুযোগ সামান্য। তারুণ্যে ঠাসা দল নিয়ে পরীক্ষা-নিরিক্ষার একটা সুযোগ ছিল এখানে। তবে বাংলাদেশ হেঁটেছে নিরাপদ পথে। এক সাকিব আল হাসান ছাড়া বিশ্রাম দেওয়া হয়নি অভিজ্ঞদের আর কাউকে। দলে দুই-তিন জন ছাড়া সেভাবে তরুণ ও অনভিজ্ঞ ক্রিকেটার নেই বললেই চলে।

তামিম যদিও মনে করছেন, তার এই দলে তরুণ ক্রিকেটারই বেশি! সিরিজ থেকে তার মূল চাওয়া-পাওয়াও তরুণদের ঘিরেই। সিরিজ শুরুর আগের দিন হারারেতে সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ অধিনায়ক বললেন, দলের শূন্য জায়গাগুলি পূরণে তিনি তাকিয়ে থাকবেন তরুণদের দিকে।

“আমার কাছে মনে হয়, দুই-তিন জন ছাড়া এটি খুবই তরুণ দল। ওয়ানডে দলে দু-একটি জায়গা আছে, এখনও যেখানে কেউ পাকা হয়নি। সব তরুণ ক্রিকেটারের জন্যই তাই সুযোগ আছে সেই জায়গাটা নেওয়ার ও থিতু হওয়ার।”

“অনেক দিন থেকেই বলছি যে একটি-দুটি জায়গা ফাঁকা আছে। দল এমনিতে অনেকটা তৈরি। কোন ২০ ক্রিকেটার বিশ্বকাপের পরিকল্পনায় থাকবে, এটা আমরা জানি। কিন্তু ১৫ জনের মধ্যে দু-একটি জায়গা, একাদশেও একটি-দুটি জায়গা থাকবে, যেখানে কেউ থিতু নয়। সেই সুযোগটা থাকছে। আমি, মাহমুদউল্লাহ ও মুশফিককে বাদ দিলে বেশ তরুণ দল এটি। আমার কাছে মনে হয়, তাদের জন্য দারুণ সুযোগ এটি।”

হারারে স্পোর্টস ক্লাবের উইকেট ঐতিহ্যগতভাবে ব্যাটিং সহায়ক। এবারও ব্যতিক্রম হবে না বলেই মনে করেন তামিম। তবে দুটি বিশেষ দিকের কথা তিনি তুলে ধরলেন।

“সাধারণত উইকেট এখানে সবসময় ভালোই থাকে (ব্যাটিংয়ের জন্য)। একটু চ্যালেঞ্জিং হয়, সকাল ৯টা ১৫-তে যখন খেলা শুরু হয়, এক-দেড় ঘণ্টা একটু চ্যালেঞ্জিং থাকে। এরপর ভালো হয়ে ওঠে।”

“আরেকটা ব্যাপার, একদম এক প্রান্তের উইকেটে খেলা। একদিকের বাউন্ডারি তাই অনেক ছোট থাকবে, স্রেফ ৫৫ মিটারের মতো। দুই দলের জন্যই তাই এটা চ্যালেঞ্জিং হবে। সেই অনুযায়ীই পরিকল্পনা সাজাতে হবে।”

সিরিজে বাংলাদেশ পরিষ্কার ফেভারিট হিসেবেই শুরু করছে। তবে সদ্য সমাপ্ত টি-টোয়েন্টি সিরিজে জিম্বাবুয়ের জয় থেকে সতর্ক হচ্ছেন বাংলাদেশ অধিনায়ক।

“দুই দল হিসাব করলে আমরাই ভালো দল। তবে ক্রিকেট খেলায় কে ভালো দল, এটা দিয়ে হয় না। নির্দিষ্ট দিনে কে ভালো খেলছে, এটা দিয়ে জয়-পরাজয় নির্ধারিত হয়। টি-টোয়েন্টি সিরিজে ওরা আমাদের চেয়ে ভালো খেলেছে বলেই জিতেছে। এখানেও আলাদা কিছু নয়। ওদেরকে হারাতে হলে আমাদের সেরাটাই খেলতে হবে। নিজেদের কন্ডিশনে ওরা বিপজ্জনক দল।”

বাংলাদেশ ওয়ানডে দল: তামিম ইকবাল, লিটন দাস, এনামুল হক বিজয়, ‍মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ, আফিফ হোসেন, নুরুল হাসান সোহান, মেহেদী হাসান মিরাজ, নাসুম আহমেদ, তাসকিন আহমেদ, শরিফুল ইসলাম, মুস্তাফিজুর রহমান, হাসান মাহমুদ, নাজমুল হোসেন শান্ত, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত, তাইজুল ইসলাম।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক