‘সিরিজ জিততে কোহলিকে দমিয়ে রাখতে হবে’

ইংল্যান্ড সফরে ব্যাট হাতে এখনও জ্বলে উঠতে পারেননি বিরাট কোহলি। তিনি নিষ্প্রভ থাকলেও ভারত ঠিকই স্বাগতিকদের বিপক্ষে লড়াই করছে সমানে সমান। তারকা এই ব্যাটসম্যান স্বরূপে ফিরলে প্রতিপক্ষ যে আরও শক্তিশালী হয়ে উঠবে, ভালো করেই জানেন জো রুট। সিরিজ জিততে হলে আগামী দুই ম্যাচেও তাই কোহলিকে দমিয়ে রাখার বিকল্প দেখছেন না ইংলিশ অধিনায়ক।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 31 August 2021, 05:34 PM
Updated : 31 August 2021, 05:34 PM

সিরিজের প্রথম টেস্টে এক ইনিংস ব্যাটিংয়ের সুযোগ পেয়ে ভারত অধিনায়ক পেয়েছিলেন গোল্ডেন ডাকের তেতো স্বাদ। নটিংহ্যামের সেই ম্যাচে জয়ের দিকে অনেকটাই এগিয়ে ছিল ভারত। শেষ দিনের বৃষ্টিতে ম্যাচটি হয় ড্র।

লর্ডসে ইংল্যান্ডকে হারিয়ে সিরিজে এগিয়ে যায় ভারত। কিন্তু কোহলি যথারীতি ছিলেন ব্যর্থদের কাতারেই। দুই ইনিংসে করেন ৪২ ও ২০ রান। হেডিংলিতে ইনিংস ব্যবধানে হেরে যাওয়া ম্যাচে প্রথম ইনিংসে ৭ রানে আউট হওয়ার পর দ্বিতীয় ইনিংসে করেন তিনি ৫৫।

পাঁচ ইনিংসে কেবল একটি ফিফটি এসেছে তার ব্যাট থেকে। সময়ের সেরা ব্যাটসম্যানদের একজনের এমন পারফরম্যান্সে দলের কিছুটা পিছিয়ে থাকাই স্বাভাবিক। রুটের চাওয়া, সামনেও কোহলিকে বড় ইনিংস খেলতে না দেওয়া।

কোহলিকে পাঁচ ইনিংসের মধ্যে দুইবার করে ফিরিয়েছেন জেমস অ্যান্ডারসন ও অলিভার রবিনসন, একবার স্যাম কারান। ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে মঙ্গলবার রুট জানান, পরের লড়াইয়েও এই ব্যাটসম্যানকে দ্রুত ফেরানোর পথ খুঁজে যাবেন তারা।

“আমাদের বোলিং আক্রমণকে কৃতিত্ব দিতে হবে। বিরাট বিশ্বমানের ক্রিকেটার, তাই কৃতিত্ব বোলিং বিভাগকে দেওয়া উচিত। আমরা তাকে দমিয়ে রাখতে পেরেছি। এটা আমাদের বোলিং বিভাগের অত্যন্ত ভালো প্রচেষ্টা। আর যদি এই সিরিজ জিততে হয় তাহলে আমাদের এটা চালিয়ে যেতে হবে।”

“আমরা তাকে আউট করার উপায় খুঁজে পেয়েছি। সে দারুণ একজন ক্রিকেটার এবং টেস্ট ক্রিকেটে অসাধারণ কিছু করেছে। সেরা ক্রিকেটারকে আউট করার পথ খুঁজে যেতে হবে আমাদের।”

দুই দলের এই দ্বৈরথ এখন পর্যন্ত আছে সমতায়। তিন ম্যাচ শেষে ১-১ ব্যবধানে পাঁচ ম্যাচের সিরিজ। সবশেষ ম্যাচে ইংলিশদের বিপক্ষে বিধ্বস্ত হয়েছিল ভারত। আগামী ম্যাচেও এমন কিছু হবে, আশাই করেন না রুট। তার মতে, আরও শক্তভাবে ঘুরে দাঁড়িয়ে চ্যালেঞ্জ জানাবে সফরকারীরা।

“বিরাট কোহলির নেতৃত্বাধীন ভারতের মতো বিশ্বমানের দল থেকে আমি ঘুরে দাঁড়ানো ছাড়া কিছুই আশা করি না। অন্য কিছু ভাবা বোকামি হবে। আমাদের জন্য খুব গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো যেন আমরা বিভ্রান্ত না হই। আমরা সমতা টানতে পেরেছি, এখন আমাদের কঠোর পরিশ্রম করতে হবে। ম্যাচের কোনো পর্যায়ে যদি এগিয়ে যেতে পারি, সেটাতেই আমাদের দৃঢ় থাকতে হবে।”

সিরিজের চতুর্থ টেস্টটি বৃহস্পতিবার শুরু হবে কেনিংটন ওভালে।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক