ভারতের অভিযোগে বের করে দেওয়া হলো দর্শক

বর্ণবৈষম্যের বিরোধিতায় সোচ্চার যখন পুরো বিশ্ব, এই সময় অস্ট্রেলিয়া সফরে ভারতীয় ক্রিকেটারদের বর্ণবাদের শিকার হওয়ার অভিযোগ উঠেছে। সিডনি টেস্টের চতুর্থ দিন মোহাম্মদ সিরাজ তার সতীর্থ ও আম্পায়ারদের কাছে দর্শকদের একটি অংশের ‘বাজে মন্তব্যের’ বিষয়ে অভিযোগ করেন। এর প্রেক্ষিতে সিডনি ক্রিকেট গ্রাউন্ডের কয়েকজন দর্শককে স্টেডিয়াম থেকে বের করে দেওয়া হয়।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 10 Jan 2021, 12:05 PM
Updated : 10 Jan 2021, 08:56 PM

এই অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত শুরু করেছে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া। অনাকাঙ্ক্ষিত এই ঘটনায় তদন্তের ঘোষণা দিয়েছে আইসিসিও।

নিউ ইয়ার টেস্টে পরপর দুইদিন ভারতের ক্রিকেটারদের উদ্দেশে দর্শকদের এমন আচরণের অভিযোগ উঠেছে। তৃতীয় দিন শনিবার সিরাজ ও জাসপ্রিত বুমরাহসহ আরও কয়েকজন হয়েছিলেন বর্ণবাদের শিকার। ভারতীয় টিম ম্যানেজমেন্ট পরে অফিসিয়ালদের বিষয়টি জানান।

পরদিন খেলা চলাকালীন সরাসরি অভিযোগ করেন সিরাজ। ঘটনাটি ঘটে রোববার অস্ট্রেলিয়ার ইনিংসের ৮৭তম ওভারের শুরুতে। তখন ফাইন লেগে ফিল্ডিং করছিলেন সিরাজ। বেশ বিরক্ত হয়ে তিনি প্রথমে সতীর্থদের জানান। এরপর তাকে ও ভারত অধিনায়ক অজিঙ্কা রাহানেকে দেখা যায় মাঠের দুই আম্পায়ার পল রাইফেল ও পল উইলসনের সঙ্গে কথা বলতে।

আম্পায়ার পল রাইফেলের কাছে অভিযোগ করছেন ভারতের মোহাম্মদ সিরাজ। ছবি: ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া।

এরপর নিরাপত্তাকর্মীদের সঙ্গে আম্পায়াররা গ্যালারির নির্দিষ্ট স্থানের সামনে যান। অভিযুক্তদের শনাক্ত করতে সেসময় পুলিশও প্রবেশ করে। কিছুক্ষণ পর সন্দেহজনক কয়েকজন দর্শককে স্টেডিয়াম থেকে বের করে দেয় নিউ সাউথ ওয়েলস পুলিশ। এসবের মাঝে খেলা বন্ধ থাকে প্রায় ১০ মিনিট।

পুরো বিষয়টির তদন্ত করছে নিউ সাউথ ওয়েলস পুলিশ। তবে সিএ-এর নিরাপত্তা বিভাগের প্রধান শন ক্যারল জানান, পুলিশের পাশাপাশি অস্ট্রেলিয়ার বোর্ডও তদন্ত শুরু করেছে। পুরো ঘটনার জন্য ভারতীয় দলের কাছে ক্ষমা চান তিনি।

“ক্রিকেটারদের সঙ্গে দর্শকদের দুর্ব্যবহার গ্রহণযোগ্য নয়। সতর্কতার সঙ্গে আজকের ঘটনাটি জানানোর জন্য ভারত দলকে ধন্যবাদ। আমাদের তদন্ত এখন প্রক্রিয়াধীন।”

দিনের খেলা শেষে দর্শকদের এমন আচরণের নিন্দা করেন অস্ট্রেলিয়ার প্রধান কোচ জাস্টিন ল্যাঙ্গার।

“বিশ্বের বিভিন্ন জায়গায় এমন ঘটনা দেখি আমরা। অস্ট্রেলিয়াতেও এটি ঘটতে দেখাটা সত্যিই দুঃখজনক। সিরিজটি দারুণ উদ্দীপনার মধ্যে এগিয়ে চলছিল, অসাধারণ ক্রিকেট হয়েছে। তবে আজ ও গত রাতে শোনা ঘটনায় ক্রিকেটের সৌন্দর্য্য নষ্ট হতে দেখাটা হতাশাজনক।”

চার টেস্টের সিরিজে প্রথম দুই ম্যাচ শেষে এখন ১-১ সমতায় দুই দল। তৃতীয় টেস্টে জিততে শেষ দিনে সফরকারীদের প্রয়োজন ৩০৯ রান, স্বাগতিকদের ৮ উইকেট।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক