ভারতীয় ক্রিকেটকে উথাপার বিদায়

দেশের বাইরে ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগে খেলার দুয়ার খুলে গেল এই ব্যাটসম্যানের।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 14 Sept 2022, 05:57 PM
Updated : 14 Sept 2022, 05:57 PM

দীর্ঘ সাত বছরের বেশি সময় ধরে ভারত জাতীয় দলের বাইরে আছেন রবিন উথাপা। ভবিষ্যতে ফেরার সম্ভাবনা সামান্য জেনেই বোধহয় আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় বলে দিলেন এই ব্যাটসম্যান। একই সঙ্গে ইতি টানলেন ঘরোয়া ক্রিকেট ক্যারিয়ারেরও।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বুধবার ভারতীয় ক্রিকেট থেকে অবসরের ঘোষণা দেন ৩৬ বছর বয়সী উথাপা।

এতে দেশের বাইরের ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগগুলোয় খেলার পথ খুলে গেল তার। এরই মধ্যে কেরালা ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন থেকে তিনি অনাপত্তিপত্র নিয়েছেন। এই রাজ্যের হয়েই সবশেষ ঘরোয়া ক্রিকেট খেলেছেন তিনি।

২০০৪ সালের অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ দলের সদস্য উথাপার আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক ২০০৬ সালে, ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ওয়ানডে দিয়ে। পরের বছর তিনি পা রাখেন আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টির আঙিনায়। কোনো টেস্ট না খেলা ডানহাতি এই ব্যাটসম্যান ৪৬ ওয়ানডে ও ১৩ আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি খেলেছেন।

২০০৭ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জয়ী ভারত দলের সদস্য ছিলেন উথাপা। ঘরোয়া ক্রিকেটেও বেশ কিছু শিরোপা জিতেছেন তিনি কর্ণাটকের হয়ে। আইপিএল জয়ের অভিজ্ঞতা আছে দুইবার, ২০১৪ সালে কলকাতা নাইট রাইডার্স ও ২০২১ সালে চেন্নাই সুপার কিংসের হয়ে।

২০০২-০৩ মৌসুমে কর্ণাটকের হয়ে ঘরোয়া ক্রিকেটের পথচলা শুরু হয় উথাপার। সেই অধ্যায় শেষ হলো ২০২০-২১ মৌসুমে কেরালার হয়ে। মাঝে সৌরাষ্ট্রের হয়েও দুই মৌসুম খেলেছিলেন তিনি।

১৪২টি প্রথম শ্রেণির ম্যাচ খেলা উথাপা ২২ সেঞ্চুরি ও ৫২ ফিফটিতে রান করেছেন ৯ হাজার ৪৪৬। লিস্ট ‘এ’ ম্যাচ খেলেছেন ২০৩টি, ১৬ সেঞ্চুরি ও ৩৩ ফিফটিতে রান ৬ হাজার ৫৩৪। স্বীকৃত টি-টোয়েন্টিতে ২৯১ ম্যাচ খেলে ৪২ ফিফটিতে তার নামের পাশে ৭ হাজার ২৭২ রান তার।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ২০১৫ সালের পর আর খেলা হয়নি উথাপার। ভারতের হয়ে ওয়ানডেতে ৬ ফিফটিতে করেছেন ৯৩৪ রান। টি-টোয়েন্টিতে ফিফটি একটি, রান মোট ২৪৯।

আইপিএলের ১৫ আসরের সবগুলোতেই খেলেছেন উথাপা। চেন্নাই, কলকাতা ছাড়াও প্রতিনিধিত্ব করেছেন পুনে ওয়ারিয়র্স ইন্ডিয়া, রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালোর, রাজস্থান রয়্যালসের। এই টুর্নামেন্টে ২০৫ ম্যাচে ১৩০.৩৫ স্ট্রাইক রেটে তার রান ৪ হাজার ৯৫২।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক