জবিতে শিক্ষার্থী মারধরের অভিযোগ ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে

মারধরের অভিযোগ অস্বীকার করে পরাগ বলেন, “আমি বাইক নিয়ে যাওয়ার সময় হর্ন দিই। সে হর্ন শোনেনি। ওর সাথে আমার তেমন কোনো ঝামেলা হয়নি।”

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 7 Feb 2024, 07:31 PM
Updated : 7 Feb 2024, 07:31 PM

মোটরসাইকেলের হর্ন না শোনায় জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় এক শিক্ষার্থীকে মারধরের অভিযোগ উঠেছে ছাত্রলীগের এক নেতার বিরুদ্ধে। 

ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী মো. মিনহাজুল ইসলাম গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের ২০২২-২৩ শিক্ষাবর্ষের ছাত্র। আর যার বিরুদ্ধে অভিযোগ, সেই হাবুল হোসেন পরাগ বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সহ সভাপতি। 

বুধবার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকের সামনে ওই ঘটনা ঘটে। ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী বিচার চেয়ে প্রক্টরের কাছে অভিযোগ দিয়েছেন।  

মিনহাজের ভাষ্য, তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম গেইট দিয়ে ক্যাম্পাসে প্রবেশ করার সময় পেছন থেকে হর্ন দেন পরাগ। হর্ন শুনতে না পাওয়ায় তাকে ডেকে ‘চড়-থাপ্পড় মারেন এবং গালিগালাজ করেন’। 

এরপর পরাগ সবার সামনে মিনহাজকে ক্ষমা চাইতে বলেন। তিনি ক্ষমা চাইতে অস্বীকৃতি জানালে আবারও মারধর করা হয় বলে মিনহাজের অভিযোগ। 

তিনি বলেন, “ক্যাম্পাস গেইটের রাস্তা খুব ছোট, সবাই সেখানে হাঁটাচলা করে। হঠাৎ করে উনি আমাকে কেন অন্যায়ভাবে চড়-থাপ্পড় মারলেন জানি না। আমি বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের কাছে এর বিচার চাই।”  

মারধরের অভিযোগ অস্বীকার করে পরাগ বলেন, “আমি বাইক নিয়ে যাওয়ার সময় হর্ন দিই। সে হর্ন শোনেনি। ওর সাথে আমার তেমন কোনো ঝামেলা হয়নি।” 

বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আকতার হোসাইন বলেন, “সাধারণ শিক্ষার্থীর গায়ে সে হাত তুলতে পারে না। অভিযুক্তকে বিচারের আওতায় আনা হোক।”  

অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে প্রক্টর অধ্যাপক মোস্তফা কামাল বলেন, “একটি অভিযোগ আমাদের কাছে এসেছে। আমি শিক্ষার্থীকে বলেছি তার বিভাগের চেয়ারম্যানের মাধ্যমে আগামীকাল উপাচার্য বরাবর অভিযোগ দিতে।”