রিজার্ভ চুরি: তদন্ত কর্মকর্তা সৌদিতে, ফের পেছাল প্রতিবেদন

এ মামলায় তদন্ত প্রতিবেদন দেওয়ার জন্য আরও ৩০ কার্যদিবস সময় দিয়েছে আদালত।

আদালত প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 4 Oct 2022, 05:05 PM
Updated : 4 Oct 2022, 05:05 PM

তদন্ত কর্মকর্তা ওমরাহ করতে সৌদি আরবে থাকায় বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ চুরির ঘটনায় মানি লন্ডারিং আইনের মামলার তদন্ত প্রতিবেদন জমা ফের পিছিয়ে গেছে।

এ মামলায় তদন্ত প্রতিবেদন দেওয়ার জন্য আরও ৩০ কার্যদিবস সময় দিয়েছেন ঢাকার মহানগর হাকিম আরাফাতুল রাকিব।

এ মামলায় গত রোববার তদন্ত প্রতিবেদন জমার দিন ধার্য ছিল। কিন্তু সিআইডির পক্ষ থেকে সেদিন সময় চেয়ে আবেদন করা হয়। ওই আবেদনের বিষয়ে জানতে তদন্ত কর্মকর্তা সিআইডির অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রায়হান উদ্দিন খানকে মঙ্গলবার আদালতে হাজির থাকার আদেশ দিয়েছিলেন বিচারক।

আদালত পুলিশের সাধারণ নিবন্ধন শাখার কর্মকর্তা এসআই শাহ আলম বলেন, “আদালতের আদেশের পর তার (তদন্ত কর্মকর্তা) সাথে হোয়াটসঅ্যাপে যোগাযোগ করি। তিনি ওমরাহ হজ পালনে সৌদিতে অবস্থান করছেন। আগামী ৭ অক্টোবর দেশে ফিরবেন। বিষয়টি আদালতকে অবহিত করায় বিচারক ১৬ নভেম্বর পর্যন্ত সময় বাড়িয়ে দিয়েছেন।”

২০১৬ সালের ৫ ফেব্রুয়ারি যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল রিজার্ভ ব্যাংক থেকে ‘জালিয়াতি করে’ সুইফট কোডের মাধ্যমে বাংলাদেশ ব্যাংকের ৮ কোটি ১০ লাখ ডলার চুরি হয়। স্থানান্তরিত এসব টাকা ফিলিপিন্সে পাঠানো হয়েছিল।

দেশের অভ্যন্তরেরই কোনো একটি চক্রের সহায়তায় এই অর্থ পাচার হয়েছে বলে তখন ধারণা করেছিলেন সংশ্লিষ্টরা।

পরে ওই বছরের ১৫ মার্চ রাজধানীর মতিঝিল থানায় মামলা করেন বাংলাদেশ ব্যাংকের অ্যাকাউন্টস অ্যান্ড বাজেটিং বিভাগের যুগ্ম পরিচালক জুবায়ের বিন হুদা; অর্থপাচার প্রতিরোধ আইনের ওই মামলায় সরাসরি কাউকে আসামি করা হয়নি।

২০১৭ সালের ১৬ মার্চ মামলাটির তদন্ত করে সিআইডিকে প্রতিবেদন জমার নির্দেশ দিয়েছিল আদালত। এরপর দফায় দফায় ৫৯ বার সময় নিয়েও তা জমা দিতে পারেনি তদন্ত সংস্থাটি।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক