স্থাপনার বাড়তি সৌন্দর্য্য হালের ‘কনক্রিট ব্লক’

সুউচ্চ দালানে পোড়া মাটির তৈরি লাল ইটের গাঁথুনিতে আধুনিকতার ছোঁয়া লাগছে; নতুন করে জায়গা করে নিচ্ছে সিমেন্ট, কুচি পাথর, সিলেটের বালু, সাধারণ বালু ও স্টোন ডাস্টের মিশ্রণে তৈরি কনক্রিট ব্লক।

নিজস্ব প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 14 Sept 2021, 03:06 PM
Updated : 14 Sept 2021, 03:06 PM

স্থাপনা নির্মাতারা বলছেন, কনক্রিট ব্লকে কিছু ক্ষেত্রে নির্মাণ খরচ কমছে, তারচেয়ে বড় বিষয় হচ্ছে পরিপাটির গাঁথুনি পেয়ে ভবনের সৌন্দর্য্য বাড়ছে বহুগুণ।

কংক্রিট ব্লক তৈরিতে দেশের যেকটি প্রতিষ্ঠান রয়েছে তার মধ্যে ‘বিটিআই বিল্ডিং প্রডাক্টস’ অন্যতম। স্বনামধন্য আবাসন প্রতিষ্ঠান বিল্ডিং টেকনোলজি অ্যান্ড আইডিয়াস লিমিটেডের (বিটিআই) একটি অঙ্গ প্রতিষ্ঠান ‘বিটিআই বিল্ডিং প্রডাক্টস’।

ঢাকার অদূরে ধামরাইতে বিটিআই বিল্ডিং প্রডাক্টের কারখানা। আধুনিক সংক্রিয় মেশিনে প্রতিদিন ২৫ হাজার ব্লক তৈরি হচ্ছে এখানে। প্রথমে বিটিআইয়ের বিভিন্ন স্থাপনা নির্মাণের জন্য নিজস্ব চাহিদার আলোকে কনক্রিট ব্লক তৈরি করা হলেও এখন বাণিজ্যিক বিপণনের জন্য উৎপাদন বাড়াচ্ছে বিটিআই।

সংক্রিয় মেশিনে সিমেন্ট, কুচি পাথর, সিলেটের বালু, সাধারণ বালু এবং স্টোন ডাস্ট ব্যবহার করে প্রয়োজন মতো আকার দিয়ে কনক্রিট ব্লাক বানাচ্ছে বিটিআই।

প্রতিষ্ঠানটি মনে করছে- কংক্রিট ব্লক ব্যবহারের অনেক সুফল আছে। সবচেয়ে বড় দিক হচ্ছে সনাতন লাল ইটের চেয়ে নির্মাণ খরচ তুললামূলক কম। কারণ কংক্রিট ব্লকের দেয়াল গাঁথুনিতে সিমেন্ট-বালু কম লাগে। এটি ব্যবহারে ভবনের ওজন কম থাকে, নির্মাণ সময় কম লাগে, কংক্রিটের হওয়াতে মজবুত হয় এবং নির্মাণের স্থায়ীত্ব বাড়ায়। লোনা মুক্ত নির্মাণ অর্থাৎ সনাতন লাল ইটের তৈরি ভবনে যেমন লোনা ধরে কিন্তু কংক্রিট ব্লক তৈরি ভবনে লোনা তুলনামূলক কম ধরে। শব্দদূষণ ও তাপ পরিবহনের পরিমাণ তুলনামূলক ভাবে ৪০% কম থাকে কনক্রিট ব্লকের তৈরি ভবনে।

আরও একটি ভালো দিক হচ্ছে- কংক্রিট ব্লক দিয়ে তৈরি হলে তার ইন্টেরিয়র ডিজাইনের ক্ষেত্রে অনেক সুবিধা পাওয়া যায়। যেমন ঘরের ব্লকের তৈলি দেওয়ালে কিছু না করেই শুধু রং দিয়েই ফিনিশিং দেওয়া যায়। তাতে একদিকে শৈল্পিক সৌন্দর্য্য যেমন বাড়ে, খরচও থাকে হাতের নাগালে। আবার বাহিরের প্রাচীর দেয়ালে ব্লক গাঁথুনির মাধ্যমেই বৈচিত্র্য আনা যায়।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, বিটিআই বর্তমানে বিভিন্ন ধরণের ও সাইজের ব্লক তৈরি করছে। এর মধ্যে ‘হলো ব্লক’ যেমন রয়েছে তেমনি সনাতন লাল ইটের আকারেও রয়েছে ‘কংক্রিট ব্রিক’। বিভিন্ন সাইজের মধ্যে আছে এমন কিছু সাইজ যা একটি ব্লক ৪/৫টি সনাতন লাল ইটের সমান। নির্মাণের সময় আধলা ইটের প্রয়োজন পড়ে। তাই অর্ধের সাইজের সলিড ও হলো ব্লকও তৈরি করা হয় সেখানে।

ব্লকের পাশাপাশি পেভমেন্ট টাইলস ও ইউনিপেভারও তৈরি করে ‘বিটিআই বিল্ডিং প্রডাক্ট’।

প্রায় চার দশক ধরে সুনামের সাথে বিটিআই যেমন তাদের ব্যবসা পরিচালনা করে চলেছে ঠিক তেমনি “বিটিআই বিল্ডিং প্রডাক্ট’ সেই সুনাম ধরে রেখেছে- এমনটিই মনে করছে প্রতিষ্ঠানটি।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক