বান্দরবানে বেগম রোকেয়া দিবস পালন

সুমিত বণিক
Published : 16 Dec 2020, 02:00 PM
Updated : 16 Dec 2020, 02:00 PM

নতুন প্রজন্মের কাছে নারী জাগরণের অগ্রদূত বেগম রোকেয়ার জীবন সংগ্রাম ও আদর্শ তুলে ধরতে বান্দরবানে  'আমাদের জীবন, আমাদের স্বাস্থ্য, আমাদের ভবিষ্যৎ' প্রকল্পের উদ্যোগে গত ৯ ডিসেম্বর বান্দরবান পার্বত্য জেলার রোয়াংছড়ি, থানচি এবং সদর উপজেলার কিশোরী ক্লাবে নানা আয়োজনের মধ্যে দিয়ে বেগম রোকেয়া দিবস উদযাপন করা হয়।

এরই ধারাবাহিকতায় অনন্যা কল্যাণ সংগঠনের উদ্যোগে সদর ইউনিয়নের লম্বাঘোনা পাড়াস্থ রাদানা কিশোরী ক্লাব প্রাঙ্গণে সকাল ১১টায় বেগম রোকেয়া দিবসের গুরুত্ব নিয়ে আলোচনা, কিশোরী ও মায়েদের নিয়ে সাংস্কৃতিক পর্ব এবং খেলাধুলার আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে একজন সংগ্রামী মাকে সম্মানিত করা হয়; যিনি সীমাবদ্ধতা আর দারিদ্রতার সাথে লড়াই করে সন্তানদের শিক্ষিত করেছেন।

কিশোরী ও মায়েদের উদ্দেশে নির্বাহী পরিচালক ডনাই প্রু নেলি বলেন, "বেগম রোকেয়া শত প্রতিকূলতার মাঝেও নারীর অধিকার ও মুক্তির লক্ষ্যে যে সংগ্রাম শুরু করেছিলেন, তার সুফল আমরা সবাই ভোগ করছি, তবে পরিপূর্ণ মুক্তি এখনো আমরা পাইনি।

"আমাদেরকে নিজের অধিকার সম্পর্কে সচেতন হতে হবে। কোথাও নিজের অধিকার বঞ্চিত হলে আওয়াজ তুলতে হবে। নিজের অধিকার আদায়ে প্রথমে নিজেকেই সোচ্চার হতে হবে।"

তিনি বলেন,  "বেগম রোকেয়া শুধু নারীর অধিকার ও মুক্তির লক্ষ্যেই কাজ করে সীমাবদ্ধ থাকেননি, নারীর জাগরণ এবং সমাজে নারীর প্রতি বৈষম্যমূলক রীতিগুলো সংস্কারেও কাজ করেছেন।"

বেগম রোকেয়ার স্বপ্নকে সার্থক করতে সবার মধ্যে চেতনার জাগরণ ও দৃষ্টিভঙ্গির বদলে গুরুত্ব দেওয়ার কথা বলা হয় অনুষ্ঠানে।

অনুষ্ঠানে সার্বিক তত্ত্বাবধানের ছিলেন প্রকল্প সমন্বয়কারী ম্যামিসিং মারমা। সাংস্কৃতিক ও খেলাধুলা পর্ব পরিচালনায় ছিলেন কর্মসূচি কর্মকর্তা ও প্রশিক্ষক য়ইসানু মারমা ও প্রোগ্রাম ফ্যাসিলিটেটর খ্যাই খ্যাই নু মারমা। সাংস্কৃতিক ও খেলাধুলা পর্ব শেষে বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেওয়া হয়।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক