নতুন বছরের শুভেচ্ছা

আবু আলী
Published : 1 Jan 2013, 11:44 AM
Updated : 1 Jan 2013, 11:44 AM

জীবন থেকে আরেকটি বছর চলে গেল। নতুন বছর নতুন বার্তা নিয়ে আজ নতুন সূর্য উঠেছে। নতুন সম্ভাবনার দ্বার উšে§াচন করে শুরু হয়েছে নতুন জীবন। মানুষের মনে জাগায় নতুন স্বপ্ন, নতুন উৎসাহ-উদ্দীপনা।

জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলে বহু ঘটনার সাথী হয়ে মহাকালের অতল গর্ভে গতকাল সোমবার সূর্যাস্তের সঙ্গে সঙ্গে চলে গেছে বিগত বছর ২০১২ সাল।

বাঙালিদের নিজস্ব বাংলা নববর্ষ ঘটা করে পালন করে থাকে। কিন্তু আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলের সঙ্গে সম্পর্ক রাখার জন্য ইংরেজি নববর্ষও ঘটা করে পালন করা হয়। যোগাযোগ মাধ্যমের অভূতপূর্ব উন্নয়নের ফলে সারা বিশ্ব এখন এক বিশাল অভিন্ন গ্রামে রূপান্তরিত।

গত রাত ১২ টায় খ্রিষ্টীয় বর্ষবিদায় ও নববর্ষ বরণ উপলে ৩১ ডিসেম্বর রাতে উল্লাস করেছে সার দেশ। সারা বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে আমাদের উল্লাসের মাত্রাও ছাড়িয়ে যায়। তাই এ েেত্র করা হয় কড়াকড়ি নিয়ন্ত্রণ, এবারও নেওয়া হয়েছিল বিশেষ নিরাপত্তা।

তবে ছোট বড় সবার প্রত্যাশা নতুন বছরটি ভালো, সুন্দর কাটুক। দেশে শান্তি বিরাজ করুক। তবে তাদের মধ্যে একটি রাজনৈতিক সংঘাতের আশংকাও করা হচ্ছে। কারণ হিসেবে তারা জানিয়েছেন, নতুন বছরটি বর্তমান ক্ষমতাসীন দলের শেষ বছর। এজন্য বিরোধী দল ও সরকারী দলের মধ্যে সংঘাতের সম্ভাবনা রয়েছে। তবে সংঘাত নয় শান্তি চায় দেশের সাধারণ মানুষ। সংঘাত হলেই অর্থনীতির উপর চাপ পরবে। আর অর্থনীতির উপর চাপ পড়া মানেই সাধারণ মানুষের উপর চাপ পড়া। তাই সবাই সংঘাতমুক্ত বছর দেখতে চায়। এজন্য ইতোমধ্যে বিভিন্নভাবে একে অপরকে স্বাগত জানাচ্ছেন। কার্ড এর প্রচলন বিলুপ্ত হলেও মোবাইলে এসএমএস, ফেসবুকে স্টাটাস দেওয়া থেকে বিরত নেই। তাই সবার প্রত্যাশা সরকার ও বিরোধী দল রাখুক।

একই সঙ্গে পুরোনো বছরের ব্যর্থতা, গ্লানি ঝেড়ে ফেলে ব্যক্তি ও সমাজজীবনে নতুন উদ্যমে নতুন বছরের সম্ভাবনাগুলো যেন আমরা বাস্তবায়িত করতে পারি। সফল হতে পারি আমাদের মহৎ পরিকল্পনায়। কল্যাণ আমাদের সঙ্গী থাকুক, নতুন বছরের শুরুতে এই কামনা সবার জন্য।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক