সামরিক সরকারের অধ্যাদেশ বাতিল করে বাহাত্তরের বিমান বাংলাদেশ আইন ফিরল

বিলের ওপর আনা জনমত যাচাই, বাছাই কমিটিতে প্রেরণ ও সংশোধনী প্রস্তাবগুলো নিষ্পত্তি শেষে বিলটি কণ্ঠভোটে পাস হয়।

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 6 Feb 2024, 03:13 AM
Updated : 6 Feb 2024, 03:13 AM

সংসদে কণ্ঠভোটে বাংলাদেশ বিমান (রহিত বাংলাদেশ বিমান অর্ডার, ১৯৭২ পুনর্বহাল এবং সংশোধন) বিল, ২০২৩ পাস হয়েছে। সোমবার এ বিল পাসের মাধ্যমে ১৯৭৭ সালে সামরিক শাসনমালের অধ্যাদেশ বাতিল করে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শাসনামলে প্রণয়ন করা বাংলাদেশ বিমান অর্ডার পুনর্বহাল করা হয়েছে।

বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মো. মাহবুব আলী সংসদে বিলটি পাসের জন্য উত্থাপন করেন। বিলের ওপর আনা জনমত যাচাই, বাছাই কমিটিতে প্রেরণ ও সংশোধনী প্রস্তাবগুলো নিষ্পত্তি শেষে বিলটি কণ্ঠভোটে পাস হয়।

এ বিলের উদ্দেশ্য ও কারণ তুলে ধরে দেওয়া বিবৃতিতে প্রতিমন্ত্রী বলেন, কোনো প্রকার মৌলিক পরিবর্তন না করেই তৎকালীন সামরিক সরকার বাংলাদেশ বিমান করপোরেশন অর্ডিন্যান্স, ১৯৭৭ দ্বারা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শাসনামলে প্রণয়ন করা বাংলাদেশ বিমান অর্ডার, ১৯৭২ বাতিল করেছিল।

কিন্তু বঙ্গবন্ধুর শাসনামলে প্রণয়ণ করা সব আইন তার রাজনৈতিক দর্শন ও বাংলাদেশের সংবিধানের সঙ্গে ঐতিহাসিকভাবে সম্পৃক্ত হওয়ায় এ আদেশ পুনর্বহাল করা হচ্ছে বলে জানান তিনি। তিনি বলেন, এজন্য সংশোধন করে বাংলাদেশ বিমান (রহিত বাংলাদেশ বিমান অর্ডার, ১৯৭২ পুনর্বহাল এবং সংশোধন) আইন, ২০২৩ নামে আইন প্রণয়নের উদ্যোগ নেওয়া হয়।

প্রতিমন্ত্রী জানান, আইনটি অনুমোদিত হলে সরকারি কোম্পানি হিসেবে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের পরিচালনাসহ পরিচালনা পর্ষদ অবলুপ্তকরা, নতুন পরিচালক নিয়োগ, ব্যবস্থাপনা এজেপি চুক্তি অবসায়ন এবং সংঘস্মারক বা সংঘবিধি অথবা কোনো সনদ, চুক্তি বা দলিল পরিবর্তন বা সংশোধনের ক্ষেত্রে সরকারের নীতি ও আদর্শের প্রতিফলন নিশ্চিত করা হবে।

(প্রতিবেদনটি প্রথম ফেইসবুকে প্রকাশিত হয়েছিল ১১ সেপ্টেম্বর ২০২৩ তারিখে: ফেইসবুক লিংক)