পরীমনির মাদক মামলায় সাক্ষ্যগ্রহণ পেছাল

তিনদিন আগে উচ্চ আদালত মামলাটিতে ছয় মাসের স্থগিতাদেশ দেওয়ায় জজ আদালতের বিচারক সাক্ষ্যের তারিখ পিছিয়ে দিলেন।

আদালত প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 12 Jan 2023, 12:57 PM
Updated : 12 Jan 2023, 12:57 PM

আলোচিত চিত্রনায়িকা পরীমনির বিরুদ্ধে রাজধানীর বনানী থানায় করা মাদক মামলায় সাক্ষ্যগ্রহণের তারিখ পিছিয়েছে।

ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-১০ এর বিচারক মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম এ মামলার পরবর্তী তারিখ রেখেছেন আগামী ২৭ ফেব্রুয়ারি।

বৃহস্পতিবার আদালতে মামলার সাক্ষ্য গ্রহণের দিন ধার্য ছিল। কিন্তু তিনদিন আগে উচ্চ আদালত মামলাটিতে ছয় মাসের স্থগিতাদেশ দেওয়ায় বিচারক তারিখ পিছিয়ে দেন।

পরীমনির আইনজীবী নীলাঞ্জনা রেফাত সুরভী আদালত পাড়ার সাংবাদিকদের বলেন, মামলাটির কার্যক্রম ছয় মাসের স্থগিতাদেশের বিষয়টি আদালতের নজরে আনেন তিনি। তবে ওই আদেশের কপি হাতে না পাওয়ায় সেটি দাখিলের জন্য সময়ের আবেদন করেন। পরে বিচারক সাক্ষ্যগ্রহণ পিছিয়ে উচ্চ আদালতের স্থগিতাদেশ দাখিলে আগামী ২৭ ফেব্রুয়ারি দিন ঠিক করে দেন।

সোমবার এ মামলার ওপর ছয় মাসের স্থগিতাদেশ দেন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের জ্যেষ্ঠ বিচাপতি মো. নুরুজ্জামানের নেতৃত্বাধীন তিন সদস্যের বেঞ্চ।

২০২১ সালের ৪ অগাস্ট রাতে বনানীতে পরীমনির বাসায় অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব। পরদিন তার বিরুদ্ধে বনানী থানায় মাদক আইনে এ মামলা দায়ের করা হয়।

র‌্যাবের জব্দ তালিকায় পরীমনির বাসা থেকে ‘মদ এবং আইস ও এলএসডির মতো মাদকদ্রব্য’ উদ্ধারের কথা বলা হয়।

পরীমনিকে গ্রেপ্তারের পর র‌্যাব মুখপাত্র খন্দকার আল মঈন বলেছিলেন, পরীমনির ফ্ল্যাটে ‘মিনি বার’ ছিল। তিনি নিয়মিত মদ পান করতেন এবং ‘ঘরোয়া পার্টি’ আয়োজন করতেন। তার কাছে মদ ব্যবহারের একটি লাইসেন্স পাওয়া গেলেও তার মেয়াদ শেষ হয়েছে ‘অনেক আগে’।

তদন্ত শেষে ২০২১ সালের ৪ অক্টোবর পরীমনিসহ তিনজনকে আসামি করে অভিযোগপত্র দেন সিআইডি পুলিশের পরিদর্শক কাজী গোলাম মোস্তফা। পরে গত বছরের ৫ জানুয়ারি তিনজনের বিরুদ্ধেই অভিযোগ গঠন করে বিচার শুরুর আদেশ দেয় জজ আদালত।

মামরলার অপর দুই আসামি হলেন- পরীমনির ম্যানেজার আশরাফুল ইসলাম দিপু ও খালু কবীর হাওলাদার।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক