চেম্বার আদালতে জামিন হয়নি আমানের, নিয়মিত বেঞ্চে শুনানি ২০ নভেম্বর

আমানের পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন।

আদালত প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 30 Jan 2024, 02:56 AM
Updated : 30 Jan 2024, 02:56 AM

দুর্নীতির মামলায় ১৩ বছরের সাজাপ্রাপ্ত বিএনপি নেতা আমান উল্লাহ আমানকে জামিন না দিয়ে আবেদনটি আপিল বিভাগের নিয়মিত বেঞ্চে পাঠিয়েছে চেম্বার আদালত। আগামী ২০ নভেম্বর সেখানে শুনানি হবে।

বুধবার আপিল বিভাগের চেম্বার বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম এ আদেশ দেন।

আদালতে আমানের পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন। তিনি সাংবাদিকদের জানান, মঙ্গলবার সাজার বিরুদ্ধে আপিল করে জামিন চান বিএনপি নেতা।

গত ১০ সেপ্টেম্বর আমান ঢাকার ১ নম্বর বিশেষ জজ আদালতের বিচারক আবুল কাশেমের আদালতে আত্মসমর্পণ করলে আমানকে কারাগারে পাঠানো হয়।

গত ৩ সেপ্টেম্বর একই আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিন চান আমান উল্লাহ আমানের স্ত্রী সাবেরা আমান, যাকে একই মামলায় তিন বছরের সাজা দেওয়া হয়েছে।

আদালত তার আবেদনও নাকচ করে কারাগারে পাঠায়। পরে ৫ সেপ্টেম্বর চেম্বার বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ‘ক্যান্সারের রোগী’ বিবেচনায় ১৫ জানুয়ারি পর্যন্ত তাকে জামিন দেন।

সেনা নিয়ন্ত্রিত তত্ত্বাবধায়ক সরকারের আমলে ২০০৭ সালে ৬ মার্চ সম্পদের তথ্য গোপন ও জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের অভিযোগে রাজধানীর কাফরুল থানায় আমান দম্পতির বিরুদ্ধে মামলা করে দুদক।

ওই বছরের ২১ জুন আমান উল্লাহ আমানকে ১৩ বছর এবং সাবেরাকে তিন বছরের কারাদণ্ড দেয় বিশেষ জজ আদালত। রায়ের বিরুদ্ধে হাই কোর্টে আপিল করলে ২০১০ সালের ১৬ অগাস্ট এই দম্পতিকে খালাস দেওয়া হয়।

হাই কোর্টের ওই রায়ের বিরুদ্ধে দুদক আপিল করলে ২০১৪ সালের ২৬ মে হাই কোর্টের রায় বাতিল করে পুনঃশুনানির নির্দেশ আসে।

গত ৩০ মে হাই কোর্টের একই বেঞ্চ আমানের ১৩ বছর ও তার স্ত্রী সাবেরা আমানের ৩ বছরের কারাদণ্ড বহাল রেখে আদেশ দেয়। রায়ের অনুলিপি পাওয়ার ১৫ দিনের মধ্যে আমান ও সাবেরাকে সংশ্লিষ্ট আদালতে আত্মসমর্পণের নির্দেশও দেন বিচারক ।

গত ৭ আগস্ট পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশ হয়। নির্দেশনা অনুসারে গত ৩ সেপ্টেম্বর আত্মসমর্পণ করেন সাবেরা। এক সপ্তাহ পর যান আমান।

(প্রতিবেদনটি প্রথম ফেইসবুকে প্রকাশিত হয়েছিল ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২৩ তারিখে: ফেইসবুক লিংক)