সেপ্টেম্বরে সড়কে মৃত্যু কমেছে

সেপ্টেম্বরে সবচেয়ে বেশি ১৮২টি দুর্ঘটনায় পড়েছে মোটরসাইকেল, নিহত হয়েছে ১৬৯ জন।

নিজস্ব প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 3 Oct 2022, 02:07 PM
Updated : 3 Oct 2022, 02:07 PM

দেশে সেপ্টেম্বর মাসে ৪০৭টি সড়ক দুর্ঘটনায় ৪৭৬ জনের মৃত্যু হয়েছে, প্রতিদিন গড়ে মৃত্যু হয়েছে ১৫ জনের।

সোমবার এই তথ্য জানিয়েছে বেসরকারি সংস্থা রোড সেইফটি ফাউন্ডেশন। সড়ক দুর্ঘটনায় অগাস্টে ৫১৯ জন ও জুলাইয়ে ৭৩৯ জন নিহত হওয়ার তথ্য দিয়েছিল সংস্থাটি।

সেপ্টেম্বরে সবচেয়ে বেশি ১৮২টি দুর্ঘটনায় পড়েছে মোটরসাইকেল, নিহত হয়েছে ১৬৯ জন। মোট দুর্ঘটনার মধ্যে বাইক দুর্ঘটনার হার ৩৫ দশমিক ৫০ শতাংশ।

এই এক মাসে দুর্ঘটনায় যত জন মারা গেছেন, তার মধ্যে ১০৩ জনই পথচারী, যা মোট নিহতের প্রায় ২২ শতাংশ। যানবাহনের চালক ও সহকারী নিহত হয়েছেন ৬৩ জন (১৩ দশমিক ২৩ শতাংশ)।

একই সময়ে ৯টি নৌ-দুর্ঘটনায় ৭৮ জন নিহত এবং ৩ জন নিখোঁজ হয়েছে। রেলপথে ২১টি দুর্ঘটনায় ১৯ জন নিহত এবং ৬ জন আহত হয়েছে।

গত এক মাসে ৯টি জাতীয় দৈনিক, ৭টি অনলাইন নিউজ পোর্টাল এবং ইলেকট্রনিক গণমাধ্যমে প্রকাশিত তথ্যের ভিত্তিতে প্রতিবেদনটি তৈরি করেছে রোড সেইফটি ফাউন্ডেশন।

প্রতিবেদনে উল্লিখিত ৪০৭টি দুর্ঘটনাগুলোর মধ্যে ১৩৪টি মহাসড়কে (৩২ দশমিক ৯২ শতাংশ), ১৫৮টি আঞ্চলিক সড়কে (৩৮ দশমিক ৮২ শতাংশ), ৭৩টি গ্রামীণ সড়কে (১৭ দশমিক ৯৩ শতাংশ) এবং ৩৬টি শহরের সড়কে (৮ দশমিক ৮৪ শতাংশ) সংঘটিত হয়। এছাড়া ৬টি দুর্ঘটনা ঘটে অন্যান্য স্থানে, যা মোট দুর্ঘটনার ১ দশমিক ৪৭ শতাংশ।

এসব দুর্ঘটনার মধ্যে সবচেয়ে বেশি ১৮৭টি হয়েছে চালকের নিয়ন্ত্রণ হারানোর কারণে, যা ৪৫ দশমিক ৯৫ শতাংশ। সড়কে ১১৫টি দুর্ঘটনায় পথচারী চাপা পড়েছেন, ৬৬টিতে গাড়ির মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়েছে, ৪১টিতে যানবাহনের পেছনে আঘাত করা হয়েছে এবং ৮টি দুর্ঘটনা অন্যান্য কারণে ঘটেছে।

সড়ক দুর্ঘটনার বেশ কিছু কারণ উল্লেখ করেছে রোড সেইফটি ফাউন্ডেশন। যার মধ্যে আছে- ত্রুটিপূর্ণ যানবাহন; বেপরোয়া গতি; চালকদের বেপরোয়া মানসিকতা, অদক্ষতা ও শারীরিক-মানসিক অসুস্থতা; বেতন ও কর্মঘণ্টা নির্দিষ্ট না থাকা; মহাসড়কে স্বল্পগতির যানবাহন চলাচল; তরুণ ও যুবাদের বেপরোয়া মোটরসাইকেল চালানো; জনসাধারণের মধ্যে ট্রাফিক আইন না জানা ও না মানার প্রবণতা; দুর্বল ট্রাফিক ব্যবস্থাপনা; বিআরটিএর সক্ষমতার ঘাটতি; গণপরিবহন খাতে চাঁদাবাজি।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক