শেখ হাসিনাকে পাকিস্তান সফরের আমন্ত্রণ শাহবাজের

বেশ কয়েকজন বিশ্ব নেতার সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর কথা হয়েছে বলে জানান যুক্তরাজ্যে বাংলাদেশের হাই কমিশনার সাঈদা মুনা তাসনিম।

গোলাম মুজতবা ধ্রুববিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 19 Sept 2022, 05:10 PM
Updated : 19 Sept 2022, 05:10 PM

ব্রিটিশ রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ার অনুষ্ঠানে দেখা হলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে পাকিস্তান সফরের আমন্ত্রণ জানিয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরিফ।

যুক্তরাজ্যের স্থানীয় সময় সোমবার বিকালে একটি হোটেলে ব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানান যুক্তরাজ্যে নিযুক্ত বাংলাদেশের হাই কমিশনার সাঈদা মুনা তাসনিম।

রানির অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া অনুষ্ঠানে শেখ হাসিনার অংশ নেওয়ার পর হাই কমিশনার জানান, শেষকৃত্য অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে ভারতের রাষ্ট্রপতি দ্রৌপদী মুর্মু ও পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরিফের দেখা হয়।

“উনি (পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী) অনেকবার বলেছেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীকে, পাকিস্তানে আমন্ত্রণ করেছেন বারবার যে পাকিস্তান আসতে।”

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী জেমস ক্লেভারলি’রও কথা হয়েছে বলে জানান তিনি।

যুক্তরাজ্যের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরনের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর ‘অনেকক্ষণ’ কথা হয়েছে জানিয়ে তাসনিম বলে, “তিনি ২০১৬ সালে বাংলাদেশ গিয়েছিলেন। সামনে উনি আসতে চাচ্ছেন।”

এছাড়া ব্রুনেইয়ের সুলতানের সঙ্গেও সরকারপ্রধানের কথা হয়েছে বলে জানান হাইকমিশনার।

অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া অনুষ্ঠান সম্পর্কে তাসনিম বলেন, “সেরিমনিতে যেটা হল- যখনই উনারা (শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানা) ঢুকেছেন, উনারা প্রথম দিকেই ঢুকেছেন। উনি (শেখ হাসিনা) ছিলেন একদম মাঝামাঝি। মাঝখানে রাখা হয়েছিল রানির মরদেহ।

“যেখানে সেরিমনিটা হয়েছে দরজা থেকে একদম শেষ পর্যন্ত তাকালে হাতের ডান দিকে রয়েল ফ্যামিলি বসেছিল, ব্রিটেনের রাজ পরিবার। তাদের পেছনেই ছিলেন রাষ্ট্রপ্রধান ও সরকারপ্রধানরা। আর বাম দিকে ছিল ক্লাস ওয়ান যারা এসেছিল, তারা এবং ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রীসহ আরও রাজ পরিবারের সদস্যরা। অনেক রানিও ছিলেন বাম দিকে।“

হাই কমিশনার বলেন, “যেখানে ডান দিকে সরকারপ্রধানেরা বসেছিলেন, সেখানেই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আসন গ্রহণ করেন এবং তার বিপরীতে ছিলেন বঙ্গবন্ধুর ছোটকন্যা শেখ রেহানা। আমাদের প্রধানমন্ত্রী মাঝামাঝি বসেছিলেন।”

রানির মরদেহ যখন আনা হয়, তার খানিক বাদে নীরবতা পালন করে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয় জানিয়ে তিনি বলেন, “সেখানে যা আনুষ্ঠানিকতা পালন করা হয়, সেগুলোর সবকটিতেই অংশ নেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।”

সোমবার সকালে ওয়েস্টমিনস্টার হল থেকে রানির কফিন রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় নিয়ে যাওয়া হয় ওয়েস্টমিনস্টার অ্যাবেতে। এ সময় গির্জায় উপস্থিত দুই হাজার মানুষ উঠে দাঁড়িয়ে রানিকে সম্মান জানান। সেখানে কয়েক হাজার লোকের উপস্থিতিতে হয় প্রার্থনা। সেই আয়োজনে প্রধানমন্ত্রী তার বোন শেখ রেহানাকে নিয়ে অংশ নেন।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক