জর্দার পোটলা নিয়ে হজে, ভোগালেন সহযাত্রীদেরও

মো. আব্দুল হান্নানের জর্দার নেশা; হজে যাওয়ার সময়ও তিনি নিয়ে গেছেন তিন পোটলা। আর সেই অপরাধে তিনি নিজে বিমানবন্দরে আটক হয়েছেন, সহযাত্রীদের ভুগিয়েছেন পুরো পাঁচ ঘণ্টা।

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 30 June 2022, 08:50 AM
Updated : 30 June 2022, 08:53 AM

ধর্ম মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা জানান, হজ করার জন্য গত ২৮ জুন সৌদি আরবে পৌঁছালে আব্দুল হান্নানকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে বাংলাদেশের হজ মিশনের চেষ্টায় তাকে ছাড়িয়ে আনা হয়। 

হান্নান হজে গেছেন নয়া পল্টনের মডার্ন এয়ার ইন্টারন্যাশনাল (হজ লাইসেন্স নং-২৯৬) নামের একটি এজেন্সির মাধ্যমে। ওই এজেন্সিকে কারণ দর্শানোর নোটিস দিয়েছে ধর্ম মন্ত্রণালয়।

ওই এজেন্সির মালিক ফাতেমা ফারহীন নিশা চৌধুরীকে পাঠানো নোটিসে ধর্ম মন্ত্রণালয় বলেছে, “গত ২৮ জুন মো. আব্দুল হান্নান হজ পালনের জন্য সৌদি গমনের সময় ৩ পোটলা জর্দা এবং নেশাজাত দ্রব্যসহ জেদ্দা বিমানবন্দরে সৌদি পুলিশের হাতে গ্রেপ্তার হয়েছেন।“

পরে পুলিশ তাকে ছেড়ে দিলেও এ ঘটনায় ওই ফ্লাইটের অন্য যাত্রীদের বিমানবন্দরের আনুষ্ঠানিকতা সারতে পাঁচ ঘণ্টা বাড়তি সময় লেগে যায় এবং তাদের ভোগান্তি পোহাতে হয় বলে জানানো হয়েছে নোটিসে।

সেখানে বলা হয়, “আপনার এজেন্সির হজযাত্রীর এহেন কার্যক্রমের কারণে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ণ হয়েছে।”

এ বিষয়ে কথা বলতে মডার্ন এয়ার ইন্টারন্যাশনালের ওয়েবসাইটে দেওয়া মোবাইল নম্বরে ফোন করলে কেউ ধরেননি।

ধর্ম মন্ত্রণালয়ের উপসচিব আবুল কাসেম মোহাম্মদ শাহীন বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “হজযাত্রায় তামাক, জর্দা, গুল বা নেশাজাতীয় দ্রব্য বহন নিষিদ্ধ। তিনবার বিজ্ঞপ্তি দেওয়া হয়েছে। তারপরও ওই ব্যক্তি নিল। এ ব্যাপারে এজেন্সি দায় এড়াতে পারে না।”

একটি হজ এজেন্সির সঙ্গে যুক্ত এক কর্মকর্তা বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “এসব জিনিস যে নিষিদ্ধ, তা বারবার হজযাত্রীদের বলতে হয়, গাইড করতে হয়।“

এর আগে সোমবার খবর আসে, হজ করতে সৌদি আরবে গিয়ে ভিক্ষায় নামার অভিযোগে এক বাংলাদেশিকে গ্রেপ্তার করেছে সে দেশের পুলিশ।

মো. মতিয়ার রহমান নামের ওই ব্যক্তির বাড়ি মেহেরপুরের গাংনী উপজেলায়। ২২ জুন মদিনায় গ্রেপ্তার হওয়ার পর বাংলাদেশ হজ মিশনের কর্মীরা থানায় মুচলেকা দিয়ে তাকে ছাড়িয়ে আনেন।

মতিয়ার সৌদি আরবে যান ধানসিঁড়ি ট্র্যাভেল এয়ার সার্ভিসের মাধ্যমে। গত ২৫ জুন ওই এজেন্সিকেও কারণ দর্শানোর নোটিস দেয় ধর্ম মন্ত্রণালয়।

পুরনো খবর

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক