ভারতের ঝাড়খণ্ড রাজ্যের ‘মুখ্যমন্ত্রী’ দুর্নীতি মামলায় গ্রেপ্তার

ক্ষমতাসীন ঝাড়খণ্ড মুক্তি মোর্চার অন্যতম প্রবীণ নেতা পরিবহনমন্ত্রী চম্পাই সোরেন রাজ্যটির নতুন মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব নিচ্ছেন।

নিউজ ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 1 Feb 2024, 04:47 AM
Updated : 1 Feb 2024, 04:47 AM

ভারতের ঝাড়খণ্ড রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী হেমন্ত সোরেন পদত্যাগ করার পর তাকে দুর্নীতি মামলায় গ্রেপ্তার করে হেফাজতে নিয়েছে দেশটির দুর্নীতি দমন সংস্থা এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি) ।

ক্ষমতাসীন ঝাড়খণ্ড মুক্তি মোর্চার অন্যতম প্রবীণ নেতা পরিবহনমন্ত্রী চম্পাই সোরেন রাজ্যটির নতুন মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব নিচ্ছেন বলে জানিয়েছে ভারতীয় গণমাধ্যম।  

এনডিটিভি লিখেছে, কথিত জমি কেলেঙ্কারির সঙ্গে সম্পর্ক থাকার অভিযোগে হেমন্তকে হেফাজতে নিয়েছে ইডি। এর কয়েক মিনিটি আগে তিনি ঝাড়খণ্ডের রাজ্যপালের সঙ্গে সাক্ষাৎ করে তার হাতে নিজের পদত্যাগ পত্র তুলে দেন।

ভারতের অর্থপাচার বিরোধী আইনে একজন মুখ্যমন্ত্রীকে তখনই গ্রেপ্তার করা যায়, যদি তিনি তিনবার সমন জারির পরও হাজিরা না দেন। হেমন্ত এ পর্যন্ত সাতটি সমন এড়িয়ে গেছেন।

কথিত ৬০০ কোটি রুপির জমি কেলেঙ্কারির সঙ্গে সম্পর্কিত অর্থপাচার মামলায় হেমন্তকে জিজ্ঞাসাবাদ করতে চাইছিল ইডি। গ্রেপ্তার হতে পারেন, এমন ধারণা আগেই করেছিলেন হেমন্ত, সেজন্য প্রস্তুতিও নিচ্ছিলেন।

বুধবার তিনি তার ক্ষমতাসীন জোটের বিধায়কদের (এমএলএ) সঙ্গে বৈঠক করেন। বৈঠকে পরবর্তী মুখ্যমন্ত্রী কে হবেন তা নিয়ে আলোচনা হয়।  

প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হয়েছিল, হেমন্তের বদলে তার স্ত্রী কল্পনা সোরেন মুখ্যমন্ত্রী হচ্ছেন। কিন্তু চলতি বছরের নভেম্বরে রাজ্যের বিধানসভার নির্বাচন থাকায় দল ওই চিন্তা বাদ দেয়।

কোনো রাজ্যের বিধানসভার মেয়াদের শেষ বছর উপনির্বাচন করা যায় না। তাই কল্পনা সোরেনকে মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে ঘোষণা করা হলেও তিনি বিধায়ক হিসেবে নির্বাচিত হতে পারতেন না। 

দুর্নীতি দমন সংস্থার অভিযোগ, সরকারি জমির মালিকানা পরিবর্তন ও সেগুলো আবাসন কোম্পানিগুলোর কাছে বিক্রি করে দেওয়ার সঙ্গে ‘বড় একটি চক্র’ জড়িত।

এই চক্রের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে এর আগে রাজ্যের সমাজকল্যাণ বিভাগ ও রাচির ডিসি হিসেবে দায়িত্বপালন করা আইএএস কর্মকর্তা ছবি রঞ্জনসহ ১৪ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

হেমন্ত সোরেন দাবি করেছেন, তিনি ‘বিরাট ষড়যন্ত্রের শিকার’ হয়েছেন।

ঝাড়খণ্ডের প্রতিমন্ত্রী মিথিলেশ ঠাকুর বলেছেন, “তার (হেমন্ত সোরেন) বিরুদ্ধে বিজেপির ষড়যন্ত্র আপাতত সফল হয়েছে, কিন্তু আমাদের সরকারের সংখ্যাগরিষ্ঠতা আছে আর আমরাই সরকার পরিচালনা করব।”