স্বতন্ত্ররা সরকার গঠন করলে সানন্দে বিরোধীদলে বসব: শেহবাজ শরিফ

পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের দল পিটিআই-সমর্থিত স্বতন্ত্ররা সংখ্যাগরিষ্ঠতা দেখাতে পারলে পিএমএল-এন সানন্দে বিরোধীদলে বসবে, বলেছেন দলটির প্রেসিডেন্ট।

নিউজ ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 13 Feb 2024, 12:38 PM
Updated : 13 Feb 2024, 12:38 PM

পাকিস্তান মুসলিম লীগ-নওয়াজ (পিএমএল-এন) প্রেসিডেন্ট শেহবাজ শরিফ বলেছেন, স্বতন্ত্র প্রার্থীরা সরকার গড়তে সক্ষম হলে তার দল সানন্দে বিরোধীদলে বসবে।

ইমরানের দল পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই) এর বর্তমান চেয়ারম্যান গহর আলি খান পিএমএল-এন এবং পাকিস্তান পিপলস পার্টির (পিপিপি) সঙ্গে জোট গড়তে অস্বীকৃতি জানানোর পর মঙ্গলবার শেহবাজ শরিফ একথা বললেন।

পিটিআইয়ের চেয়ারম্যান গহর খান রোববার পাকিস্তানের দ্য ডন পত্রিকাকে বলেছিলেন, “ওই দুই দলের কারও সঙ্গে আমরা স্বস্তি বোধ করি না।” তাদের সঙ্গে নিয়ে সরকার গঠন করার চেয়ে বিরোধী দলের আসনে বসা ভাল।

পাকিস্তানি গণমাধ্যম জি নিউজের প্রদর্শিত ফলাফল অনুযায়ী, গত ৮ ফেব্রুয়ারির নির্বাচনে কারাগারে থাকা সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের দল পাকিস্তান-তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই) সমর্থিত স্বতন্ত্র প্রার্থীরা পার্লামেন্টে ৯২টি আসন পেয়েছে, আর পিএমএল-এন পেয়েছে ৭৯টি ও পিপিপি ৫৪টি।

পিএমএল-এন এর প্রেসিডেন্ট শেহবাজ এক সাংবাদিক সম্মেলনে বলেছেন, নির্বাচনে তার দল সবচেয়ে বড় রাজনৈতিক দল হিসাবে উঠে এসেছে। তবে পিটিআই-সমর্থিত স্বতন্ত্র প্রার্থীরা আরও বেশি ভোট পেয়েছে বলে স্বীকার করে তিনি বলেন, আপনারা স্বতন্ত্রদের ভোট গুনলে অবশ্যই তাদের সংখ্যা বেশি। এই বাস্তবতা নিয়ে কোনও বিতর্ক হয় না।

তবে তিনি বলেন, রাজনৈতিক দলগুলোর মধ্যে পিএমএল-এন এক নাম্বারে আছে। এরপর আছে পিপিপি ও অন্য দলগুলো। নির্বাচনের ফল প্রকাশ যেহেতু হয়ে গেছে, এখন পরবর্তী ধাপে এগিয়ে যাওয়ার সময়।

“স্বতন্ত্ররা যারা নিজেদেরকে পিটিআই-পৃষ্ঠপোষক কিংবা পিটিআই-পৃষ্ঠপোষক না বলে দাবি করে, তারা যদি সরকার গড়তে পারে তাহলে সামনে আগাক। প্রেসিডেন্ট তাদেরকে সরকার গড়ার আমন্ত্রণ জানাবেন না,” বলেন শেহবাজ।

তিনি বলেন, “স্বতন্ত্র যে প্রার্থীরা নিজেদের পিটিআই-সমর্থিত বলে দাবি করে তারা সংখ্যাগরিষ্ঠতা দেখাতে পারলে আমরা সানন্দে বিরোধীদলের বেঞ্চে বসব এবং আমাদের সাংবিধানিক ভূমিকা পালন করব।”

জাতীয় পরিষদে পিটিআই এর স্বতন্ত্রদের প্রয়োজনীয় সংখ্যক আসন থাকলে তারা কেন্দ্রে সরকার গড়তে পারে বলেও উল্লেখ করেন শেহবাজ। তবে তিনি বলেন, “যদি তারা তা না পারে তাহলে অন্যান্য রাজনৈতিক দলগুলোর সরকার গঠনের অধিকার আছে।

“আমাদেরকে এভাবে সামনে এগুতে হবে এবং পরবর্তী ধাপের কাজ চূড়ান্ত করতে হবে। সব রাজনৈতিক দলকেই মতভেদ ভুলে চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় হাতে হাত মেলানো প্রয়োজন,” বলেন তিনি।