বিয়ে করলেন জেসিন্ডা অরর্ডান

জেসিন্ডা অরডার্ন ২০২৩ সালের জানুয়ারিতে দল, সমর্থক এমনকি সমালোচকদের পর্যন্ত হতভম্ব করে দিয়ে প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দেন।

নিউজ ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 13 Jan 2024, 12:27 PM
Updated : 13 Jan 2024, 12:27 PM

পরিবার এবং ঘনিষ্ঠ বন্ধুদের নিয়ে ছোট্ট আয়োজনে দীর্ঘদিনের সঙ্গী টিভি হোস্ট ক্লার্ক গাইফোর্ডকে বিয়ে করেছেন নিউ জিল্যান্ডের সাবেক প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা অরর্ডান। 

বিবিসি জানায়, রাজধানী ওয়েলিংটন থেকে ৩১০ কিলোমিটার উত্তরে নর্থ আইল্যান্ডের হকস বে-র ক্রেগি রেঞ্জ ওইনারিতে তদের বিয়ের অনুষ্ঠান হয়।

বিয়ের আগে প্রায় এক দশক ধরে এই জুটি একসঙ্গে আছেন এবং তাদের নেভে নামে পাঁচ বছর বয়সী একটি মেয়েও রয়েছে। এই মেয়েকে কোলে নিয়েই জেসিন্ডা জাতিসংঘের বৈঠকে হাজির হয়েছিলেন। 

এই জুটি এর আগে ২০২২ সালে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সারার পরিকল্পনা করেছিলেন। কিন্তু তার আগেই বিশ্বজুড়ে হানা দেয় কোভিড-১৯ মহামারী।  কোভিড নিয়ন্ত্রণে ২০২২ সালেও নিউ জিল্যোন্ডে কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ করে রেখেছিলেন সে সময়ে দেশটির প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা অরর্ডান। যে কারণে নিজের বিয়ের অনুষ্ঠানও পিছিয়ে দিয়েছিলেন তিনি। 

কোভিড মহামারী থেকে দেশবাসীকে সফলভাবে রক্ষা করতে সক্ষম হওয়ায় বিশ্বজুড়ে তখন দারুণ প্রশংসিত হয়েছিলেন জেসিন্ডা।

শুধু কোভিড মহামারী মোকাবেলাই নয় বরং ২০১৯ সালে ক্রাইস্টচার্চে দুইটি মসজিদে যে প্রাণঘাতী বন্দুক হামলার ঘটনা ঘটেছিল তার পর জেসিন্ডা যেভাবে সব কিছু সামলে ছিলেন তাতে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে তার দেশ পরিচালনার ধরণ অনুকরণীয় হয়ে ওঠে।

ক্রাইস্টচার্চে সেদিনের হামলায় ৫১ জন নিহত এবং ৪০ জন আহত হন। ওই ঘটনার পর তিনি যেভাবে প্রতিক্রিয়া জানান তা বিশ্বজুড়ে তাকে একজন সহানুভূতিশীল নেতা হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করে।

২০১৭ সালে নিউ জিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব গ্রহণ করা জেসিন্ডা অরডার্ন ২০২৩ সালের জানুয়ারিতে দল, সমর্থক এমনকি সমালোচকদের পর্যন্ত হতভম্ব করে দিয়ে পদত্যাগের ঘোষণা দেন।