‘আমার স্মৃতিশক্তি ঠিক আছে’, চটে গিয়ে বললেন বাইডেন

যুক্তরাষ্ট্রের বিচার বিভাগের বিশেষ কাউন্সেলের তদন্ত প্রতিবেদনে প্রেসিডেন্ট বাইডেনের মানসিক সক্ষমতা ও বয়স নিয়ে প্রশ্ন তোলা হয়। আর তাতেই রেগে যান তিনি।

নিউজ ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 9 Feb 2024, 11:13 AM
Updated : 9 Feb 2024, 11:13 AM

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ‘আমার স্মৃতিশক্তি ঠিক আছে’ বলে স্পেশাল কাউন্সেলের তদন্ত প্রতিবেদনের জবাবে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া প্রকাশ করেছেন।

যুক্তরাষ্ট্রের বিচার বিভাগের বিশেষ কাউন্সেলের তদন্ত প্রতিবেদনে বাইডেনের মানসিক সক্ষমতা ও বয়স নিয়ে প্রশ্ন তোলা হয়েছে। আর তাতেই চটে গিয়ে ওই কথা বলেছেন বাইডেন।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বাইডেন অতি গোপন নথি রক্ষণাবেক্ষণ ঠিকমত করতে পারেননি এবং নিজের জীবনের গুরুত্বপূর্ণ ঘটনা মনে করতে পারেননি।

তদন্তের অংশ হিসেবে বিচার বিভাগের বিশেষ কাউন্সিলর রবার্ট হুর প্রায় ৫ ঘণ্টা জেরা করেছিলেন বাইডেনকে। তারপর ৩৪৫ পৃষ্ঠার প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়। 

এতে বলা হয়, বাইডেন তার ক্যান্সারে আক্রান্ত সন্তানের মৃত্যু কবে হয়েছে তা মনে করতে পারেননি। কিন্তু এ অভিযোগের প্রতিবাদ জানিয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ক্ষুব্ধ হয়ে বলেছেন, "এমন প্রশ্ন তলার সাহস হল কী করে?”

স্পেশাল কাউন্সেল রবার্ট হার অতি গোপনীয় নথি রক্ষণাবেক্ষণের বিষয়টিতে বাইডেনের বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগ গঠন করবেন না বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

তবে তার তদন্ত প্রতিবেদনে কঠোর সমালোচনা করে বলা হয়েছে যে, প্রেসিডেন্টের স্মৃতিশক্তিতে “উল্লেখযোগ্য সীমাবদ্ধতা” রয়েছে।

বিশেষ কাউন্সেল বলেছেন, বাইডেন মনে করতে পারেননি কখন তিনি ভাইস প্রেসিডেন্ট ছিলেন কিংবা কয়েকবছরের মধ্যে তার ছেলে বিউ কবে মারা গিয়েছিলেন।

এরপরই চটে গিয়ে বৃহস্পতিবার রাতে এক সংবাদ সম্মেলনে বাইডেন বলেন, আমার সন্তান বিউ কবে মারা গিয়েছে সেটা নিশ্চয়ই কাউকে মনে করিয়ে দিতে হবে না।"

গত বছর স্পেশাল কাউন্সেলের কাছে সাক্ষাৎকারের বিষয়ে বাইডেন বলেন, “সেদিন আমি অনেক ব্যস্ত ছিলাম। আমি তখন একটি আন্তর্জাতিক সংকট নিয়ে কাজ করছিলাম।”

রবার্ট হুরের স্পেশাল কাউন্সিলের প্রতিবেদনে একইসঙ্গে বাইডেনের বিরুদ্ধে নিজের আত্মজীবনীর ঘোস্টরাইটারের কাছে গোপন স্পর্শকাতর তথ্য প্রকাশের দেওয়ার অভিযোগ করা হয়েছে। তবে 'ইচ্ছাকৃতভাবে' কোনো গোপন তথ্য তিনি প্রকাশ করেননি বলে সাফ জানিয়েছেন বাইডেন।

 প্রতিবেদনে উঠে আসা বিষয়গুলো ভবিষ্যৎ মার্কিন রাজনীতি নিয়ে উদ্বেগ আরও বাড়িয়েছে। কারণ, বাইডেন আসন্ন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনেও প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে চাইছেন।

জনমত জরিপগুলোতে তার বয়স নিয়ে এবছরের নভেম্বরের নির্বাচনে ভোটারদের মধ্যে উদ্বেগ দেখা যাচ্ছে। তবে বাইডেন বৃহস্পতিবার সাংবাদিকদের বলেছেন, তিনি সবচেয়ে যোগ্য প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থী।

তিনি বলেন,  "আমি একজন বয়স্ক মানুষ; তবে আমি ভালো আছি। আমি জানি আমি কী করছি। আমি এই দেশটিকে নিজের পায়ে ফের দাঁড় করিয়েছি। আমার তার সুপারিশের প্রয়োজন নেই।"

যদিও সেদিন সাংবাদিকদের সামনে কথা বলার সময় শেষের দিকে বাইডেন মিশরের প্রেসিডেন্ট আবদেল ফাত্তাহ আল-সিসিকে ‘মেক্সিকোর প্রেসিডেন্ট’ সম্বোধন করে ভুল করে বসেন।