পেলোসির তাইওয়ান সফরের প্রতিবাদে তাইপেতে বিক্ষোভ

তাইপেতে একদল বিক্ষোভকারী মার্কিন স্পিকার ন্যান্সি পেলোসির সফরের প্রতিবাদ জানিয়ে তাকে ‘সমস্যা সৃষ্টিকারী’ ও ‘কুৎসিত আমেরিকান’ বলেছে।

নিউজ ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 2 August 2022, 06:10 PM
Updated : 2 August 2022, 06:10 PM

চীনের হুমকি উপেক্ষা করেই তাইওয়ানে গেছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিনিধি পরিষদের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি। তাইওয়ানের সবাই যে এতে খুশি তা নয়। বরং তাইপেতে

একদল বিক্ষোভকারী পেলোসির সফরের প্রতিবাদ জানিয়ে তাকে ‘সমস্যা সৃষ্টিকারী’ ও ‘কুৎসিত আমেরিকান’ বলেছে।

বিবিসি জানায়, বিক্ষোভকারীরা তাইওয়ানের প্রেসিডেন্ট কে ‘বিশ্বাসঘাতক’ বলেছেন।

বিক্ষোভকারীদের কারও কারও হাতে ‘তাইওয়ানস নিউ পার্টি’ লেখা ব্যানার ‍ছিল। তাইওয়ানের ছোট এ রাজনৈতিক দলটি চীনের সঙ্গে দ্বীপটির পুনর্মিলনে সমর্থন করে।

মঙ্গলবার স্থানীয় সময় রাত ১০ টা ৪৪ মিনিটে পেলোসি ও তার দলকে বহনকারী উড়োজাহাজ তাইপে বিমানবন্দরে পৌঁছায়।

পেলোসি তাইপের গ্রান্ড হায়াত হোটেলে রাতে অবস্থান করবেন। চীনপন্থি একটি দল হোটেলের বাইরে বিক্ষোভ করেছে বলেও জানায় বিবিসি। তাদের হাতে ধরা ব্যানারে লেখা ছিল, ‘যুদ্ধ উস্কানিদাতা বাড়ি ফিরে যাও’।

১৯৯৭ সালের পর পেলোসি যুক্তরাষ্ট্রের এত শীর্ষ পর্যায়ের সরকারি কোনও কর্মকর্তা যিনি তাইওয়ান সফরে গেলেন।

চীন থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে তাইওয়ান নিজেদের স্বাধীনতা ঘোষণা করলেও বেইজিং তা একেবারেই মানে না। বরং তাইওয়ানকে তারা তাদের বিচ্ছিন্ন হয়ে যাওয়া অংশ মনে করে যারা পুনরায় মিলিত হবে, এজন্য প্রয়োজনে বলপ্রয়োগের হুমকিও চীন দিয়ে রেখেছে।

তাইওয়ানের বেলায় অন্যান্য দেশকে চীন তাদের ‘এক চীন নীতি’ অনুসরণ করতে বলে এবং এই নীতি সমর্থনের উপর বেইজিংয়ের বৈদিশিক নীতি অনেকাংশে নির্ভরশীল।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক