বিন লাদেনের মৃত্যু আমেরিকার শান্তি ঘুচিয়ে দেবে: জাওয়াহিরি

ওসামা বিন লাদেনকে হত্যার কারণে মুসলিম বিশ্বে যুক্তরাষ্ট্র তীব্র বিদ্রোহের মুখোমুখি হবে বলে ঘোষণা দিয়েছেন বিন লাদেনের দীর্ঘ দিনের সহচর আল কায়েদা নেতা আয়মান আল জাওয়াহিরি।

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 9 June 2011, 01:03 AM
Updated : 9 June 2011, 01:03 AM
কায়েরো, ০৯ জুন (বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম/রয়টার্স)- ওসামা বিন লাদেনকে হত্যার কারণে মুসলিম বিশ্বে যুক্তরাষ্ট্র তীব্র বিদ্রোহের মুখোমুখি হবে বলে ঘোষণা দিয়েছেন বিন লাদেনের দীর্ঘ দিনের সহচর আল কায়েদা নেতা আয়মান আল জাওয়াহিরি।
বুধবার ইউটিউবে পাঠানো এক ভিডিওবার্তায় জাওয়াহিরি একথা বলেন।
যুক্তরাষ্ট্রের আকস্মিক কমান্ডো হামলায় পাকিস্তানের অ্যাবোটাবাদে বিন লাদেন নিহত হওয়ার পর এটিই জাওয়াহিরির প্রথম প্রতিক্রিয়া বলে মনে করা হচ্ছে।
ভিডিওবার্তাটিতে জাওয়াহিরি যুক্তরাষ্ট্রকে আত্মতৃপ্তিতে না ভুগতে সতর্ক করে দিয়ে বলেন, যুক্তরাষ্ট্র ও তার মিত্রদের বিরুদ্ধে আল কায়েদার অভিযান চলবে।
২৮ মিনিটের ওই ভিডিওবার্তায় তিনি বিন লাদেনকে 'শেখ' বলে উল্লেখ করেন।
তিনি বলেন, "শেখ চলে গেছেন, শহীদ হিসেবে আল্লাহ তাকে মর্যাদা দিক। আমরা মুসলিম জাহান থেকে বহিরাগত দখলদারীদের বহিষ্কার করতে তার জিহাদের পথকে ধরে রাখব আর মুসলিম জাহানকে অবিচার থেকে মুক্ত করে পবিত্র ভূমিতে পরিণত করব।"
"আজ খোদাকে ধন্যবাদ, আমেরিকা কোনো একক ব্যাক্তি বা দলের মোকাবেলা করছে না [...] তারা জিহাদি জোশে জাগ্রত এক জাতির মোকাবিলা করছে। যেখানেই আমেরিকা আছে সেখানেই প্রতিরোধ গড়ে তুলছে তারা।"
২০০১ সালের সেপ্টেম্বরে যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্কের বিশ্ব বাণিজ্য কেন্দ্রে (টুইন টাওয়ার) হামলার পরিকল্পনাকারী হিসেবে বিন লাদেনের সহযোগী হিসেবে জাওয়াহিরও ছিলেন বলে ধারণা করা হয়।
ওই হামলার কারণেই ইরাক ও আফগানিস্থানে যুক্তরাষ্ট্র অভিযান শুরু করে।
বিন লাদেনের মৃত্যুর পর আল কায়েদার দ্বিতীয় শীর্ষ নেতা জাওয়াহিরিই আল কায়েদার পরবর্তী প্রধান হবেন বলে ভাবা হচ্ছিল।
কিন্তু মিশরের সাবেক সামরিক কর্মকর্তা সাইফ আল আদেলকেই আল কায়েদার ভারপ্রাপ্ত প্রধান হিসেবে মনোনীত করে এই সন্ত্রাসবাদী সংগঠনটি।
আয়মান আল জাওয়াহিরিও মিশরীয় নাগরিক।
ভিডিওবার্তায় বিন লাদেনের সলিল সমাধির নিন্দা জানিয়ে বলেন, "তিনি (বিন লাদেন) জীবিত থাকতে আমেরিকাকে যেমন সন্ত্রস্ত করে রাখতেন, তেমনি মৃত মানুষ হিসেবেও এখনো আমেরিকার ভীতির কারণ তিনি।
বিশ্বে লাদেনের কোটি কোটি অনুসারী রয়েছে আর তাদের ভয়েই আমেরিকা তাকে কোথাও কবরস্থ করার সাহস করেনি বলে উল্লেখ করেন জাওয়াহিরি।
জাওয়াহিরি বলেন, বিন লাদেন সব সময় আমেরিকা ও ইসরাইলের এবং তাদের ক্রুসেডের মিত্রদের মনে হানা দিয়ে তাদের মানসিক শান্তি নষ্ট করবে।
ওই বার্তায় তালেবান নেতা মোল্লা ওমরকে 'বিশ্বাসীদের নেতা' বলে অভিহিত করেন জাওয়াহিরি।
তিনি মিশর ও অন্যান্য আরব রাষ্ট্রগুলোর গণবিদ্রোহের প্রশংসা করে পাকিস্তানি নাগরিকদেরও তা অনুসরণ করার আহ্বান জানান।
পাকিস্তানিদের উদ্দেশ্যে জাওয়াহিরি বলেন, "তোমাদের দেহ থেকে লাঞ্ছনার ধূলা ঝেড়ে ফেল, ঝেড়ে ফেল তাদের যারা তোমাদের ক্রীতদাস হিসেবে যুক্তরাষ্ট্রের কাছে বিক্রি করে দিয়েছে।"
বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম/এবি/সিআর/১২৩৫ ঘ.
তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক