হারিকেন ইয়ানের তাণ্ডবে যুক্তরাষ্ট্রে ২১ মৃত্যু, ক্ষয়ক্ষতি

এখনও প্রায় ১০ হাজার মানুষের খোঁজ মেলেনি, তবে তাদের অনেকেই আশ্রয় কেন্দ্রে বা বিদ্যুৎবিহীন অবস্থায় রয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

নিউজ ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 1 Oct 2022, 10:24 AM
Updated : 1 Oct 2022, 10:24 AM

যুক্তরাষ্ট্রের মূলভূখণ্ডে আঘাত হানা অন্যতম সবচেয়ে শক্তিশালী হারিকেন ইয়ানের তাণ্ডবে শত শত কোটি ডলার মূল্যমানের সম্পদের ক্ষয়ক্ষতি ও অন্তত ২১ জন নিহত হয়েছে।

শনিবার দেশটির ফ্লোরিডা, নর্থ ও সাউথ ক্যারোলাইনা অঙ্গরাজ্য  হারিকেনের ধ্বংসযজ্ঞ পরিষ্কার করার কাজ শুরু করে।

ইয়ান এখন ক্রান্তীয় ঝড়ের রূপ নিয়ে ক্রমে আরও দুর্বল হয়ে পড়ছে। তারপরও স্থানীয় সময় শনিবার সকাল পর্যন্ত এটি ক্যারোলাইনা, ভার্জিনিয়া ও ওয়েস্ট ভার্জিনিয়ায় বিপজ্জনক পরিস্থিতি তৈরি করতে পারে বলে সতর্ক করেছে যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল হারিকেন সেন্টার।   

“বিপজ্জনক জলোচ্ছ্বাস, হড়কা বান ও প্রবল ঝড়ের হুমকি চলমান আছে,” বলেছে তারা।

স্থানীয় সময় বুধবার ফ্লোরিডার উপসাগরীয় উপকূল দিয়ে ইয়ান স্থলে উঠে এসে সেখানকার সৈকত শহরগুলোতে তাণ্ডব চালিয়ে সেগুলোকে দুর্যোগপূর্ণ এলাকায় পরিণত করে। শুক্রবার বিকালে এটি ঘণ্টায় ১৪০ কিলোমিটার বাতাসের বেগ নিয়ে সাউথ ক্যারোলাইনার ঐতিহাসিক শহর চার্লসটনের উত্তরে জরজটাউনে আঘাত হানে।

মহাসাগর থেকে ধেয়ে আসা জলোচ্ছ্বাসে বহু রাস্তা ডুবে যায় ও গাছ উপড়ে পড়ে কোনো কোনো রাস্তা বন্ধ হয়ে যায়, পাশাপাশি প্রবল ঢেউয়ের তোড়ে বহু জেটি ক্ষতিগ্রস্ত হয়।  

পাওয়ারআউটেজ ডটইউএসের তথ্য অনুযায়ী, শনিবার ভোররাত আড়াইটা পর্যন্ত ফ্লোরিডা ও ক্যারোলাইনার প্রায় ১৭ লাখ বাড়ি ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বিদ্যুৎবিহীন ছিল। 

বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, হতাহতের মোট সংখ্যা ও ক্ষয়ক্ষতি সারাতে কেমন খরচ হবে তা এখনও পরিষ্কার হয়নি, কিন্তু ইয়ান আঘাত হানার তিন দিন পর ফ্লোরিডার ক্ষয়ক্ষতি পরিষ্কার হতে শুরু করেছে। 

শুক্রবার সকালে ফ্লোরিডার জরুরি ব্যবস্থাপনা বিভাগের পরিচালক কেভিন গাথরি জানান, অন্তত ২১ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে। তবে এদের মধ্যে কয়েকজনের মৃত্যু নিয়ে অনিশ্চয়তা রয়ে গেছে বলে তিনি জানিয়েছেন।

তিনি জানান, এখনও প্রায় ১০ হাজার মানুষের খোঁজ মেলেনি, তবে তাদের অনেকেই আশ্রয় কেন্দ্রে বা বিদ্যুৎবিহীন অবস্থায় রয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

ফ্লোরিডার গভর্নর রন ডেসান্টিস বলেছেন, “যে সব পুরনো বাড়িগুলো দুর্বল হয়ে পড়েছিল সেগুলো সাগরে ভেসে গেছে। এসব বাড়িতে যারা ছিলেন তাদের বেঁচে থাকা খুব কঠিন হবে বলে মনে করি আমি।”

১৯৯২ সালে আঘাত হানা হারিকেন অ্যান্ড্রুর পর ইয়ানেই ফ্লোরিডার সবচেয়ে বেশি ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে যুক্তরাষ্ট্রের একটি প্রপার্টি তথ্য ও বিশ্লেষক কোম্পানি জানিয়েছে।  

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ফ্লোরিডা ও নর্থ ক্যারোলাইনার জন্য দুর্যোগ ঘোষণার প্রস্তাব অনুমোদন করেছেন। এতে ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকাগুলোর পক্ষে কেন্দ্রীয় সহায়তা পাওয়া সহজ হবে।

আরও পড়ুন:

Also Read: ইয়ান ফ্লোরিডার ইতিহাসে সবচেয়ে প্রাণঘাতী হতে পারে: বাইডেন

Also Read: ধ্বংসাত্মক শক্তি নিয়ে ফ্লোরিডায় হারিকেন ইয়ান

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক