বিবিসি সাংবাদিক আটকের প্রতিবাদে যুক্তরাজ্যে চীনা রাষ্ট্রদূতকে তলব

গত রোববার সাংহাইয়ে বিক্ষোভ চলাকালে চীনা পুলিশ খবর সংগ্রহকারী বিবিসি’র সাংবাদিক লরেন্সকে গ্রেফতার করে।

নিউজ ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 29 Nov 2022, 06:53 PM
Updated : 29 Nov 2022, 06:53 PM

চীনের সাংহাইয়ে কঠোর কোভিড বিধিনিষেধের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ চলাকালে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি’র এক সাংবাদিক গ্রেপ্তার ও নির্যাতিত হওয়ার জেরে লন্ডনে চীনা রাষ্ট্রদূত ঝেং ঝেগুয়াংকে তলব করেছে যুক্তরাজ্যের পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয়।

মঙ্গলবার চীনা দূতকে তলব করে এই ঘটনার কড়া প্রতিবাদ জানানো হয়েছে। ঘটনাটিকে ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী জেমস ক্লিভারলি ‘গভীর উদ্বেগজনক’ বলে অভিহিত করেছেন। সাংবাদিকদের কোনও হুমকি ও ভয় ছাড়াই তাদের কাজ চালিয়ে যেতে পারা উচিত বলেও মন্তব্য করেছেন তিনি।

গত রোববার রাতে সাংহাইয়ে বিক্ষোভ চলাকালে চীনা পুলিশ খবর সংগ্রহকারী বিবিসি’র সাংবাদিক লরেন্সকে গ্রেফতার করে। বিবিসি জানিয়েছে, মুক্তি দেওয়ার আগে পুলিশ তাকে মারধর করেছে।

যুক্তরাজ্যের পররাষ্ট্রদপ্তরের এক কর্মকর্তা এ ঘটনাকে ‘পুরোপুরি অগ্রহণযোগ্য’ বলে মন্তব্য করেছেন। চীন সরকার বলছে, সাংবাদিক লরেন্স নিজ থেকে তার সংবাদপত্রের পরিচয়পত্র দেখাননি।

স্যোশাল মিডিয়ায় ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়া ফুটেজে দেখা গেছে, কয়েকজন পুলিশ কর্মকর্তা লরেন্সকে ধরে মাটিতে চেপে ধরছে। বিবিসি জানিয়েছে, পুলিশ কর্মকর্তারা তাকে মারধর করেছে, লাথিও দিয়েছে এবং হাতকড়া পরিয়ে ধরে নিয়ে গেছে।

একজন সাংবাদিকের সঙ্গে এমন আচরণকে ‘চরম উদ্বেগজনক’ বলে বর্ণনা করেছে বিবিসি।

ওদিকে, যুক্তরাজ্যের হাউজ অব কমন্সে এক জরুরি প্রশ্নের জবাবে পররাষ্ট্রবিষয়ক আন্ডার সেক্রেটারি ডেভিড রুটলি বলেছেন, এমন অগ্রহণযোগ্য এবং অন্যাভাবে গ্রেপ্তারের বিরুদ্ধে পরিষ্কার বার্তা দিতে চীনা রাষ্ট্রদূতকে ডেকে পাঠানো হচ্ছে এবং এর পূর্ণ ও পুঙ্খানুপুঙ্খ ব্যাখ্যা দেওয়ার দাবি জানানো হচ্ছে।

কোভিড-১৯ সংক্রমণের বিস্তার রোধে গত কয়েক মাস ধরে চীন সরকার দেশজুড়ে ‘শূন্য কোভিড নীতি’ বাস্তবায়ন করছে।

তবে কঠোর লকডাউনের মাধ্যমে চীন সরকার কোভিডে মৃত্যু কমিয়ে আনতে পারলেও সংক্রমণের বিস্তার থামিয়ে রাখতে পারেনি। বরং গত প্রায় ছয়দিন ধরে দেশটিতে সর্বোচ্চ দৈনিক সংক্রমণের নতুন রেকর্ড হচ্ছে।

দীর্ঘদিন ধরে কঠোর লকডাউন চলার কারণে জনমনে অসন্তোষ দেখা দিয়েছে। যার ফলে সম্প্রতি নানা এলাকায় লোকজনকে সড়কে নেমে লকডাউন বিরোধী বিক্ষোভ করতে দেখা যাচ্ছে।

গত রোববার বিক্ষোভের সময় কয়েকজন বিদেশি সাংবাদিককে পুলিশ আটক করে। তাদের মধ্যে বিবিসি ও রয়টার্স এর সাংবাদিকরা ছিলেন। পরে তাদের ছেড়ে দেওয়া হয়।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক