যুক্তরাষ্ট্রের গ্রিন কার্ড পাওয়ার চেষ্টায় গোটাবায়া রাজাপাকসে

বিক্ষোভের মুখে দেশ ছেড়ে পালানো সাবেক শ্রীলঙ্কান প্রেসিডেন্ট গোটাবায়া রাজাপাকসে তার স্ত্রী, সন্তানকে নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে স্থায়ী হওয়ার অপেক্ষায় আছেন।

নিউজ ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 18 August 2022, 11:48 AM
Updated : 18 August 2022, 11:48 AM

গণবিক্ষোভের মুখে দেশ ছেড়ে পালানো সাবেক শ্রীলঙ্কান প্রেসিডেন্ট গোটাবায়া রাজাপাকসে যুক্তরাষ্ট্রের গ্রিন কার্ড পাওয়ার চেষ্টা করছেন।

তিনি তার স্ত্রী, সন্তানকে নিয়ে সেখানেই স্থায়ী হওয়ার অপেক্ষায় আছেন। এমন কথাই জানিয়েছে শ্রীলঙ্কার ‘দ্য ডেইলি মিরর’ পত্রিকা।

উচ্চপর্যায়ের কয়েকটি সূত্রে জানা গেছে, যুক্তরাষ্ট্রে থাকা গোটাবায়ার আইনজীবীরা কাজ শুরু করেছেন। যুক্তরাষ্ট্রের গ্রিন কার্ডের জন্য গোটাবায়ার আবেদনের কার্যপ্রণালী তারা শুরু করেছেন গতমাসেই।

গোটাবায়ার স্ত্রী ইয়োমা রাজাপাকসে একজন মার্কিন নাগরিক। একারণে, গোটাবায়া গ্রিন কার্ডের জন্য আবেদন করার যোগ্য বলে বিবেচিত।

আবেদন প্রক্রিয়ায় শ্রীলঙ্কাতেও এখন গোয়াটাবায়ার আইনজীবীদেরকে কাজ করতে হবে। জমা দিতে হবে আরও কিছু নথিপত্র।

বর্তমানে থাইল্যান্ডের একটি হোটেলে অবস্থান করছেন গোটাবায়া। তার সঙ্গে আছেন তার স্ত্রীও। প্রথমে তাদের পরিকল্পনা ছিল আগামী নভেম্বর পর্যন্ত তারা থাইল্যান্ডে থাকবেন।

কিন্তু সেই পরিকল্পনা বাদ দিয়ে এখন তারা আগামী ২৫ অগাস্ট শ্রীলঙ্কায় ফেরার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। কারণ, থাইল্যান্ডে নিরাপত্তাজনিত কারণে তিনি স্বাধীনভাবে চলাফেরা করতে পারছেন না।

থাইল্যান্ডের রাজধানী ব্যাংককে পৌঁছানোর পর পুলিশ তাকে হোটেলের মধ্যেই থাকার পরামর্শ দিয়েছে। তাই গোটাবায়া দুদিন আগেই তার আইনজীবীদের সঙ্গে আলোচনা করে এমাসের শেষে দেশে ফেরার ওই সিদ্ধান্ত নেন বলে জানিয়েছে কয়েকটি সূত্র।

বিদেশি গণমাধ্যম জানিয়েছে, থাইল্যান্ডের হোটেলে গোটাবায়া অবস্থান গোপন রাখা হয়েছে। সেখানে সাদা পোশাকে টহল দিচ্ছে থাই নিরাপত্তা বাহিনীর বিশেষ শাখার সদস্যরা।

এ মাসে শ্রীলঙ্কায় ফিরলে গোটাবায়ার নিরাপত্তা ঝুঁকি আরও বাড়বে। তাই সাবেক প্রেসিডেন্ট হিসাবে তাকে রাষ্ট্রীয় ভবন এবং নিরাপত্তা দেওয়া নিয়ে আলোচনায় বসবে শ্রীলঙ্কার মন্ত্রিসভা।

গোটাবায়া রাজাপাকসে গত সপ্তাহে সিঙ্গাপুর থেকে একটি চার্টাড ফ্লাইটে থাইল্যান্ডে যান। এর আগে জুলাইয়ের মাঝামাঝি সময় থেকে সিঙ্গাপুরেই ছিলেন তিনি।

সরকারবিরোধী তুমুল বিক্ষোভের মুখে শ্রীলঙ্কা থেকে পালিয়ে প্রথমে মালদ্বীপে গিয়েছিলেন তৎকালীন প্রেসিডেন্ট গোটাবায়া রাজাপাকসে। পরে তিনি সেখান থেকে সিঙ্গাপুরে যান।

সিঙ্গাপুরে যাওয়ার পর ইমেইলে পদত্যাগপত্র শ্রীলংকায় পাঠিয়েছিলেন গোটাবায়া। সপ্তাহ কয়েক সিঙ্গাপুরে থাকার পর তার থাইল্যান্ডে পৌঁছার কথা জানান তিন প্রত্যক্ষদর্শী।

শ্রীলঙ্কা ছাড়ার পর গোটাবায়া রাজাপাকসেকে কখনওই জনসমক্ষে দেখা যায়নি, কোনও বিষয় নিয়ে তিনি কোনো মন্তব্যও করেননি। থাইল্যান্ডে নামা বা থাকা প্রসঙ্গে রয়টার্সও তাৎক্ষণিকভাবে তার সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারেনি।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক