বিদ্যুৎকেন্দ্রে হামলা, যুক্তরাষ্ট্রের নর্থ ক্যারোলাইনায় কারফিউ

সাবস্টেশনে নাশকতার কারণে মুর কাউন্টির ৪০ হাজার বাড়ি ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান তীব্র শীতে টানা দুইদিন ধরে বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন হয়ে আছে।

রয়টার্স
Published : 5 Dec 2022, 03:15 PM
Updated : 5 Dec 2022, 03:15 PM

যুক্তরাষ্ট্রে নর্থ ক্যারোলাইনার একটি কাউন্টির বাসিন্দাদের বরফ জমা শীতের মধ্যে রোববার টানা দ্বিতীয় রাত বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন অবস্থায় কাটাতে হয়েছে।

সেখানে কে বা কারা বিদ্যুতের দুইটি সাবস্টেশন গুলি করে ক্ষতিগ্রস্ত করে। যাকে কর্তৃপক্ষ ‘ইচ্ছাকৃত হামলা’ বলছে। ওই কাউন্টিতে স্থানীয় সময় রোববার রাত থেকে সকাল পর্যন্ত কারফিউ জারি করা হয়েছে।

আগামী আরও কয়েক রাত বিদ্যুৎ না থাকতে পারে এমন আশঙ্কার মধ্যে পৌরসভা এবং কাউন্টির কর্মকর্তারা নাগরিকদের সর্বোত্তম সুরক্ষা দিতে এই কারফিউ জারির পদক্ষেপ নিয়েছেন বলে জানিয়েছেন।

কেন শনিবার রাতে ওই সাবস্টেশন দুটিতে গুলি হামলা হয়েছে তা এখনও নিশ্চিত হওয়া যায়নি বলে জানান মুর কাউন্টি শেরিফ রনি ফিল্ডস।

উত্তপ্ত পরিস্থিতি বিবেচনায় মুর কাউন্টিতে সোমবার স্কুল বন্ধ ঘোষণা করা হয়। স্কুল বন্ধ রাখার সময় আরও দীর্ঘায়িত হতে পারে।

স্থানীয়, রাজ্য ও ফেডারেল প্রশাসন এবং এফবিআই যৌথভাবে ঘটনাটি তদন্ত করছে। রোববার বিকাল থেকে কার্যকর করা হয়েছে জরুরি অবস্থাও।

যুক্তরাষ্ট্রের জ্বালানিমন্ত্রী জেনিফার গ্রানহোম টুইটারে এক পোস্টে বলেছেন, তিনি ডিউক এনার্জি করপোরেশনের (ওই সাবস্টেশন দুটোর মালিক) সঙ্গে যোগাযোগ করেছেন। জ্বালানি অধিদপ্তর অন্যান্য সংস্থার সঙ্গে যৌথভাবে কাজ করছে।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানায়, মুর কাউন্টির ৬৪ শতাংশ গ্রাহক রোববার রাতেও বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন অবস্থায় ছিলেন।

শনিবার স্থানীয় সময় সন্ধ্যা ৭টার দিকে মুরে কাউন্টির প্রায় ৪০ হাজার বসত বাড়ি ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে।

মুর কাউন্টি শেরিফ বলেন, ‘‘এটা ঘটনা চক্রে ঘটেনি। এটা পরিকল্পিত হামলা ছিল।”

ইউটিলিটি কর্মীরা সাবস্টেশনের ফটক ভাঙা এবং গুলি করে যন্ত্রংশের ক্ষতি করার প্রমাণ পেয়েছেন।

বিদ্যুৎ বিভ্রাট আগামী বৃহস্পতিবার পর্যন্ত দীর্ঘায়িত হতে পারে বলে জানিয়েছেন ডিউক এনার্জি কর্তৃপক্ষ।

এ ঘটনার সঙ্গে মাদক কারবারিদের সম্পর্ক থাকতে পারে বলে শোনা যাচ্ছিল। যা উড়িয়ে দিয়েছেন শেরিফ।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক