জি২০ সম্মেলনের মঞ্চেও ‘ইন্ডিয়া’ নয়, ‘ভারত’

‘ইন্ডিয়া’ নাম পরিবর্তন চেষ্টার সমালোচনা করেছে দেশটির বিরোধীদলগুলো।

নিউজ ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 10 Feb 2024, 11:43 AM
Updated : 10 Feb 2024, 11:43 AM

ভারত না কি ইন্ডিয়া- বিতর্কের মধ্যে স্পষ্ট একটি বার্তা নিয়ে এল জি২০ সম্মেলনে প্রতিবেশী দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সামনে রাখা নামফলক, সেখানে লেখা ছিল ‘ভারত’।

এর আগে দেশটির প্রেসিডেন্ট দ্রৌপদী মুর্মু জি২০ নেতাদের রাষ্ট্রীয় নৈশভোজে আমন্ত্রণ জানিয়ে যে আমন্ত্রণপত্র পাঠিয়েছিলেন, সেখানেও এতদিন সরকারিভাবে ব্যবহার করে আসা ‘ইন্ডিয়া’র পরিবর্তে ‘ভারত’ লেখা হয়েছিল, যা নিয়ে ব্যাপক রাজনৈতিক বিতর্ক তৈরি হয়। 

জি২০ সম্মেলনে ভারতীয় কর্মকর্তাদের পরিচয়পত্রেও ‘ভারত-অফিসিয়াল’ লেখা হয়েছে। সম্মেলনে যোগ দেওয়া বিদেশি প্রতিনিধিদের জন্য প্রস্তুত করা জি২০ পুস্তিকায়ও ‘ইন্ডিয়া’র পরিবর্তে ‘ভারত’ ব্যবহার করা হয়েছে। এর শিরোনাম লেখা হয়েছে, ‘ভারত, গণতন্ত্রের জননী’। পুস্তিকাটিতে বলা হয়েছে, “এই দেশের দাপ্তরিক নাম ভারত। সংবিধানেও এর উল্লেখ আছে।”

জি২০ সম্মেলন ঘিরে মোদী সরকারের এসব পদক্ষেপে ধারণা করা হচ্ছে যে, চলতি মাসে পার্লামেন্টের বিশেষ অধিবেশন ডাকাই হয়েছে দাপ্তরিকভাবে ইন্ডিয়া নাম পরিবর্তন করে ভারত করার জন্য। 

‘ইন্ডিয়া’ নাম পরিবর্তন চেষ্টার সমালোচনা করেছে দেশটির বিরোধীদলগুলো। বিরোধী আইএনডিআইএ জোট অভিযোগ করেছে, ‘ইতিহাস বিকৃত করে ইন্ডিয়াকে বিভক্ত করার’ চেষ্টা করেছে মোদী সরকার। তারা সরকারের এসব পদক্ষেপ তাদের জোট গঠনের সঙ্গে সম্পর্কিত বলে অভিযোগ করেছেন। জবাবে মোদী সরকারের এক মন্ত্রী বলেছেন, ‘ভারত’ নামটি ব্যবহার করার সিদ্ধান্ত ঔপনিবেশিক মানসিকতার বিরুদ্ধে একটি বড় ধরনের বিবৃতি। এটিই আরও আগেই হওয়া উচিত ছিল

(প্রতিবেদনটি প্রথম ফেইসবুকে প্রকাশিত হয়েছিল ৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩ তারিখে: ফেইসবুক লিংক)