ভারতে হামের প্রাদুর্ভাবে ১২ শিশুর মৃত্যু

২৬-২৭ অক্টোবরের দিকে প্রথম মৃত্যুর ঘটনা ঘটে। সে সময় ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে মারা যায় তিন শিশু।

নিউজ ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 24 Nov 2022, 03:13 PM
Updated : 24 Nov 2022, 03:13 PM

ভারতের মুম্বাই ও এর আশপাশের এলাকায় হামের প্রাদুর্ভাবে ১২ শিশু মারা গেছে বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

বিবিসি জানায়, ২৬-২৭ অক্টোবরের দিকে প্রথম মৃত্যুর ঘটনা ঘটে। সে সময় ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে মারা যায় তিন শিশু।

এবছর মুম্বাইয়ে গত বুধবার পর্যন্ত ২৩৩ জনের হাম শনাক্ত হয়েছে। গত বছর এ সময়ে ৯২ জনের হাম শনাক্ত হলেও এ বছর তা তিনগুণ বেড়েছে। তাছাড়া, গত বছর দুইজনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেলেও এবার মৃতের সংখ্যা বেশি।

কর্তৃপক্ষ বলছে, কোভিড মহামারীর মধ্যে হামের টিকাদান কার্যক্রম শ্লথ হয়ে পড়ার কারণে সংক্রমণ বেড়ে গেছে।

মঙ্গলবার হামে সর্বশেষ ৮ মাস বয়সী এক শিশুর মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। শিশুটি সময়মত পূর্ণ ডোজ টিকা পায়নি বলে এক প্রেস নোটে জানিয়েছে পৌর কর্তৃপক্ষ।

হাম খুবই ছোঁয়াচে। কোভিডের চেয়েও বেশি। এ রোগে মারাত্মক জটিলতা দেখা দিতে পারে। বিশেষ করে ৫ বছরের কম বয়সী শিশুদের ক্ষেত্রে। দুই ডোজের মাম, হাম কিংবা রুবেলার টিকা দিয়ে এই রোগ প্রতিরোধ করা যেতে পারে।

রুবেলা টিকাদান কর্মসূচি কম হওয়ার কারণে ইউরোপজুড়ে অনেক দেশেই হামের বেশ বড় ধরনের প্রাদুর্ভাব দেখা গেছে। টিকা না নেওয়া থাকলে বা সংক্রমিত হয়ে থাকলে প্রতি ১০ জনে ৯ জনেরই হাম হতে পারে। আর তা থেকে দেখাদিতে পারে নানা রকম জটিলতা।

টিকা এ সমস্ত প্রায় সব ঝুঁকি থেকে নিষ্কৃতি দিতে পারে। কিন্তু কোভিড মহামারী শুরুর পর থেকে শিশুদের হামের টিকাদান কর্মসূচি উদ্বেগজনকভাবে হ্রাস পেয়েছে।

২০২০ সালে ২ কোটি ৩০ লাখ শিশু হামের টিকা থেকে বঞ্চিত হয়েছে। মুম্বাই কর্তৃপক্ষ বলছে, মহামারীর কারণে তাদের প্রায় ২০ হাজার শিশু সময়মতো টিকা পায়নি।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক