‘রিভেঞ্জ পর্ন’ ঠেকানোয় এবার নাম লেখাল টিকটক, বাম্বল

অনুমতি ছাড়া এই ধরনের অন্তরঙ্গ ছবি ও ভিডিও শেয়ার নিয়ে অভিযোগ জানিয়েছেন ১২ হাজারের বেশি মানুষ। এখন পর্যন্ত, ৪০ হাজারের বেশি ফাইল চিহ্নিত করেছেন তারা।

প্রযুক্তি ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 3 Dec 2022, 11:57 AM
Updated : 3 Dec 2022, 11:57 AM

মেটার পর এবার ‘রিভেঞ্জ পর্ন প্রতিরোধে’র জন্য তৈরি উদ্যোগে যোগ দিয়েছে ভিডিও শেয়ারিং প্ল্যাটফর্ম টিকটক ও ডেটিং অ্যাপ বাম্বল।

রিভেঞ্জ পর্ন বলতে সম্পর্ক ভেঙে যাওয়ার পর সম্মতি ছাড়া ও প্রতিশোধমূলকভাবে সাবেক সঙ্গীর অন্তরঙ্গ ছবি, অডিও বা ভিডিও শেয়ার করাকে বোঝায়।

কোম্পানি দুটো একজোট হয়েছে দাতব্য সাইট ‘স্টপএনসিআইআই ডটওআরজি (স্টপ নন-কনসেনশুয়াল ইনটিমেট ইমেজ অ্যাবিউজ)’র সঙ্গে। মেটার সঙ্গে একটি টুল তৈরিতেও কাজ করছে আন্তর্জাতিক সংগঠনটি।

রিভেঞ্জ পর্ন বলতে সম্পর্ক ভেঙে যাওয়ার পর সম্মতি ছাড়া ও প্রতিশোধমূলকভাবে সাবেক সঙ্গীর অন্তরঙ্গ ছবি, অডিও বা ভিডিও শেয়ার করাকে বোঝায়।

প্রযুক্তিবিষয়ক সাইট এনগ্যাজেটের প্রতিবেদন অনুযায়ী, সাইটে চিহ্নিত বিভিন্ন ‘হ্যাশ’ (বিশেষ ডিজিটাল ফিঙ্গারপ্রিন্ট)-এর মধ্যে থাকা যে কোনো ছবি শনাক্তের পাশপাশি সেগুলো মুছে ফেলবে টিকটক, বাম্বল, ফেইসবুক ও ইনস্টাগ্রাম।

এই ওয়েবসাইটের মাধ্যমে বিভিন্ন প্রশ্নবিদ্ধ ছবি ও ভিডিও’র ‘হ্যাশ’ তৈরি করতে পারবেন ব্যবহারকারী। এই প্রক্রিয়া সঞ্চালিত হবে তার ডিভাইসে। ব্যবহারকারীর গোপনতা রক্ষায়, সাইটে মূল ফাইলটি আপলোড না হয়ে শুধু কয়েকটি বর্ণমালা ও সংখ্যা দেখা যাবে।

সাইটে জমা পড়া বিভিন্ন হ্যাশ শেয়ার হবে উদ্যোগের বিভিন্ন অংশীদারের সঙ্গে। কোনো ছবি বা ভিডিও টিকটক, বাম্বল, ফেইসবুক বা ইনস্টাগ্রামের অনুরূপ হ্যাশের সঙ্গে মিলে গেলে ও প্ল্যাটফর্মের ‘পার্টনার পলিসি’র প্রয়োজনীয়তা পূরণ করলে, ওই ফাইল চলে যাবে প্ল্যাটফর্মটির মডারেশন দলের কাছে।

ওই ছবি প্ল্যাটফর্মের নীতিমালা লঙ্ঘন করলে সেটি মুছে ফেলবেন মডারেটররা। পাশাপাশি, ছবিটি শেয়ারের সুবিধা বন্ধ করে দেবে উদ্যোগের অন্যান্য অংশীদার প্ল্যাটফর্মও।

এই টুল চালু হয়েছে এক বছর আগে। আর অনুমতি ছাড়া এই ধরনের অন্তরঙ্গ ছবি ও ভিডিও শেয়ার নিয়ে অভিযোগ জানিয়েছেন ১২ হাজারের বেশি মানুষ। এখন পর্যন্ত, ৪০ হাজারের বেশি হ্যাশ তৈরি করেছেন তারা।

সাইটটি উন্নত করার উদ্দেশ্যে ‘রিভেঞ্জ পর্ন হেল্পলাইন’ নিয়ে কাজ করা ব্রিটিশ অলাভজনক সংস্থা ‘এসডব্লিউজিএফএল’-এর সঙ্গে জোট বেধেছে মেটা। এতে সংগঠনটি তুলনামূলক বেশি সংখ্যক প্ল্যাটফর্মের সম্পৃক্ততা প্রত্যাশা করছে বলে উঠে এসেছে মার্কিন প্রকাশনা ব্লুমবার্গের প্রতিবেদনে।

২০১৭ সালে অস্ট্রেলিয়ায় শুরু হওয়া মেটার (তৎকালীন ফেইসবুক) এক পাইলট প্রকল্পের ওপর ভিত্তি করে তৈরি হয়েছে এই উদ্যোগ। ব্যবহারকারীর নিজস্ব মেসেঞ্জার চ্যাটে রিভেঞ্জ পর্ন থাকা ছবি আপলোড করতে বলতো এটি।

আরও পড়ুন

Also Read: রিভেঞ্জ পর্ন ঠেকাতে নগ্ন ছবি পাঠাতে বলবে ফেইসবুক

ছবিগুলো ‘হ্যাশিংয়ের’ পর সেগুলো মুছে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল মেটা। তবে, এই পন্থা অবলম্বণে কার্যতই গোপনতা নিয়ে শঙ্কা বেড়ে গিয়েছিল।

রিভেঞ্জ পর্ন বন্ধে নিয়ন্ত্রকদের তদন্ত বেড়ে যাওয়ার পরপরই উদ্যোগটিতে যোগ দিয়েছে টিকটক ও বাম্বল। এ ক্ষেত্রে, অনলাইন সুরক্ষা আইনের ভিত্তিতে ব্যবহারকারীর তৈরি কনটেন্ট উপস্থাপন করা বিভিন্ন প্ল্যাটফর্মকে অনুমতি ছাড়া অন্তরঙ্গ ছবি দ্রুত সরাতে বাধ্য করার পরিকল্পনা করছে যুক্তরাজ্য।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক