২০২২ সালে ভিডিও বেশিই দেখিয়েছে ইনস্টাগ্রাম: মোসেরি

“আমি নিজেও বিভিন্ন জাল ও বট অ্যাকাউন্টকে আমার স্টোরিজ-এ লাইক দিতে দেখেছি। আমার কাছে এটি বাজে মন্তব্যের চেয়েও বিরক্তিকর।”

প্রযুক্তি ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 22 Jan 2023, 10:58 AM
Updated : 22 Jan 2023, 10:58 AM

এবার ইনস্টাগ্রাম প্রধান অ্যাডাম মোসেরিও স্বীকার করলেন, ২০২২ সালে প্ল্যাটফর্মটি ভিডিও ও রিলের দিকে ‘একটু বেশিই’ জোর দিয়েছে। এর ফলে, প্ল্যাটফর্মে প্রচলিত ছবির পোস্টগুলোও তুলনামূলক কম দেখা গেছে।

“আমি মনে করি, ২০২২ সালে ভিডিও’র দিকে অনেক বেশি মনযোগ দিয়েছি। এর ফলে, প্ল্যাটফর্মে ছবির তুলনায় ভিডিও সংশ্লিষ্ট পোস্টই বেশি দেখা গেছে।” --নিজের অ্যাকাউন্ট থেকে ব্যবহারকারীদের সঙ্গে সাপ্তাহিক প্রশ্নোত্তর পর্বের এক জবাবে বিষয়টি স্বীকার করেন মোসেরি।

মোসেরি আরও বলেন, এর পর থেকেই এদের মধ্যে ভারসাম্য আনার উদ্দেশ্যে পর্দার আড়াল থেকে কাজ করে যাচ্ছে ইনস্টাগ্রাম। আর এর অভ্যন্তরীণ ব্যবস্থা দেখাচ্ছে, এটি কাজ করছে।

“কেউ কতো ঘন ঘন কোনো ছবি বা ভিডিও পছন্দ করেন বা এতে মন্তব্য করেন, এর সংখ্যা এখন প্রায় সমান। এতে ভারসাম্য চলে আসাও একটি ভালো লক্ষণ।” --বলেন তিনি।

“সময়ের সঙ্গে সঙ্গে ইনস্টাগ্রামে বেশি ভিডিও চলে আসার কারণ হলো এটিই সামগ্রিক সম্পৃক্ততার মাধ্যম হিসেবে বিবেচিত হয়। তবে, আমাদের কাজের গুরুত্বপূর্ণ অংশ হিসেবে সবসময়ই থাকবে ছবি।”

ইনস্টাগ্রাম থেকে আলোকচিত্রীদের ‘বিশ্বাস হারিয়ে যাওয়া’ সম্পর্কিত এক প্রশ্নেরও জবাব দিয়েছেন মোসেরি। অনেকেই প্ল্যাটফর্মটিকে নিজেদের কাজ দেখানোর প্ল্যাটফর্ম হিসেবে বিবেচনা করলেও গত বছর ইনস্টাগ্রামে ‘টিকটকের মতো’ ফুলস্ক্রিন অভিজ্ঞতা চালুর পর থেকে একই মনোভাব পোষণ করেন প্ল্যাটফর্মের অনেকেই।

কিম কার্দাশিয়ানদের মতো জনপ্রিয় তারকাদের প্রতিবাদে নিরীক্ষাটি তেমন ফলপ্রসূ না হওয়ায় এই ঢেলে সাজানো অভিজ্ঞতা বর্জনে বাধ্য হয় ইনস্টাগ্রাম। তবে, তারা ভিডিও’র দিকে জোর দেওয়া অব্যাহত রেখেছে। জুলাই থেকে কোম্পানিটি প্ল্যাটফর্মের সকল ভিডিও রিল হিসেবে আনতে শুরু করে। আর এখন মোসেরি নিজেই স্বীকার করছেন, তারা নিজেদের ফিড ও ‘এক্সপ্লোর’ পেইজের র‍্যাংকিং অ্যালগরিদমে ভিডিও’র প্রতি বেশি অগ্রাধিকার দিয়েছে।

এই রোষাণলের কিছুটা ঘটিয়েছেন ইনস্টাগ্রাম প্রধান নিজেও। এর আগে তিনি দাবি করেন, প্ল্যাটফর্মটি আর ‘বর্গাকৃতির ছবি’ শেয়ারের অ্যাপ হিসেবে থাকছে না। এই ঘোষণা অনেক আলোকচিত্রীই ভালোভাবে নেননি।

প্রযুক্তিবিষয়ক সাইট ভার্জ বলছে, এখানে তিনি ছবির পাশাপাশি স্টোরিজ, রিলস ও সরাসরি বার্তার মতো ফিচারের জনপ্রিয়তা বেড়ে যাওয়ার বিষয়টি বোঝাতে চাইলেও, তা কোনো কাজে আসেনি।

প্রশ্নোত্তর পর্ব চলাকালীন তিনি ইনস্টাগ্রামে থাকা বিভিন্ন স্প্যামের বিষয়টিও উল্লেখ করেন, যার অস্তিত্ব এখনও মেলে।

“ইনস্টাগ্রামে নিশ্চিতভাবেই বিভিন্ন বট ও স্প্যাম রয়েছে। এগুলো কমিয়ে আনার সর্বাত্মক চেষ্টা চালাচ্ছি আমরা। আমি এখন বিভিন্ন মন্তব্য নিয়ে শঙ্কিত কারণ এটি এমন কিছু, যা সারা বছরই সক্রিয়ভাবে দেখার পাশাপাশি এই ব্যবস্থা উন্নতির প্রত্যাশা করছি আমরা।”

“আমি নিজেও বিভিন্ন জাল ও বট অ্যাকাউন্টকে আমার স্টোরিজ-এ লাইক দিতে দেখেছি। আমার কাছে এটি বাজে মন্তব্যের চেয়েও বিরক্তিকর।”

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক