মার্কিন ক্রিপ্টো কোম্পানি হারমোনিতে ‘ক্রিপ্টো ডাকাতি’

মার্কিন ক্রিপ্টো কোম্পানি ‘হারমোনি’র প্রায় ১০ কোটি ডলার সমমুল্যের ডিজিটাল কয়েন চুরি করেছে হ্যাকাররা। ডিজিটাল মুদ্রার এই খাত অনেকদিন ধরেই হ্যাকারদের নজরে ছিল।

প্রযুক্তি ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 25 June 2022, 11:04 AM
Updated : 25 June 2022, 11:04 AM

হারমোনি এই ক্রিপ্টো ডাকাতির কথা জানিয়েছে শুক্রবার। বিষয়টি উঠে এসেছে রয়টার্সের প্রতিবেদনে। বিভিন্ন ঋণ প্রদানকারী আর্থিক সাইটের জন্য ব্লকচেইন তৈরির পাশাপাশি নন-ফাঞ্জিবল টোকেন এবং অন্যান্য সেবাও দিয়ে থাকে ক্যালিফোর্নিয়া-ভিত্তিক কোম্পানিটি।

কোম্পানিটি আরও জানিয়েছে, তাদের ‘হরাইজন ব্রিজ’ এই ডাকাতির কবলে পড়েছে। এ টুলের মাধ্যমে বিভিন্ন ব্লকচেইনে ক্রিপ্টো লেনদেনের কার্যক্রম পরিচালিত হতো। এ ছাড়া, বিটকয়েন এবং ইথেরিয়ামের মতো ডিজিটাল টোকেনও সফটওয়্যারটি ব্যবহার করে।

ডিজিটাল চুরিতে অনেকদিন ধরেই জর্জরিত ক্রিপ্টো খাতের বিভিন্ন কোম্পানি, যেখানে ব্লকচেইন ব্রিজগুলোতেই বেশি নজর থাকে হ্যাকারদের।

লন্ডন-ভিত্তিক ব্লকচেইন বিশ্লেষক প্রতিষ্ঠান এলিপটিক বলছে, ২০২২ সালে এসব ব্রিজ থেকে চুরি হয়েছে একশ কোটি ডলারেরও বেশি।

হারমোনি টুইট করেছে, অপরাধীকে চিহ্নিত করতে এবং চুরি হওয়া অর্থ পুনরুদ্ধারে তারা কর্তৃপক্ষ ও ফরেন্সিক বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে কাজ করছে। তবে, এই বিষয়ে বাড়তি কোনো তথ্য দেয়নি কোম্পানিটি।

হারমোনি অবশ্য এক বিবৃতিতে বলেছে, তাদের একটি বৈশ্বিক দল আছে যারা সমস্যাটি নিয়ে ২৪ ঘন্টা কাজ করে যাচ্ছে।

“অপরাধী শনাক্তে কাজ করার পাশাপাশি আমরা এখন সম্ভাব্য আক্রমণের মাত্রা কমানোর চেষ্টা করছি।” --বলেছেন হারমোনির একজন মুখপাত্র।

ওই মুখপাত্র আরও বলেন, একটি ক্রিপ্টো ওয়ালেট অ্যাড্রেসে লেনদেনের বরাতে এরইমধ্যে হ্যাকারদের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করেছে হারমোনি।

এলিপটিক বলছে, হারমোনির কাছ থেকে বেশ কয়েক ধরনের ক্রিপ্টোমুদ্রা চুরি করেছে হ্যাকাররা। এর মধ্যে রয়েছে ইথেরিয়াম, টেথার ও ইউএসডি কয়েন।

মার্চ মাসে রনিন ব্রিজ থেকে প্রায় ৬১ কোটি ৫০ লাখ সমমূল্যের ক্রিপ্টোমুদ্রা চুরি করেছিল হ্যাকাররা। এই ব্রিজ ব্যবহার করে ‘অ্যাক্সি ইনফিনিটি’ গেইমে ক্রিপ্টো লেনদেন করা যেত।

এসব ডিজটার চুরির পেছনে উত্তর কোরিয়ার হ্যাকারদের দুষছে যুক্তরাষ্ট্র।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক