নতুন অ্যান্টি-ট্রাস্ট মামলায় ফেইসবুক

বাজারে “প্রতিযোগিতা দমানো এবং গ্রাহককে ঝুঁকির মুখে ফেলছে কিনা” তা নিয়ে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে নতুন তদন্তের মুখে পড়েছে ফেইসবুক।

প্রযুক্তি ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 8 Sept 2019, 08:59 AM
Updated : 8 Sept 2019, 08:59 AM

দেশটির বিভিন্নঅঙ্গরাজ্যের জনপ্রতিনিধিদের পক্ষে এই অ্যান্টি-ট্রাস্ট মামলার ঘোষণা দিয়েছেন নিউ ইয়র্কঅঙ্গরাজ্যের অ্যাটর্নি জেনারেল লেটিশিয়া জেমস-- খবব বিবিসি’র।

“বিশ্বের সবচেয়েবড় সামাজিক মাধ্যমের প্ল্যাটফর্মকেও আইন মানতে হবে এবং গ্রাহককে সম্মান দিতে হবে,”বলেন মিজ জেমস।

অন্যদিকে ফেইসবুকেরদাবি, অনলাইন সেবা ব্যবহারের ক্ষেত্রে গ্রাহকের কাছে “বহু প্ল্যাটফর্মের মধ্যে বাছাইয়েরসুযোগ” রয়েছে।

ফেইসবুকের অঙ্গরাজ্যএবং স্থানীয় নীতিমালা বিভাগের ভাইস প্রেসিডেন্ট উইল ক্যাসলবেরি বলেন, “আমরা বুঝতে পারছিআমরা যদি উদ্ভাবনের পথ ছেড়ে দেই, গ্রাহকও সহজেই আমাদের প্ল্যাটফর্ম ছেড়ে যেতে পারেন।”

ডিসট্রিক্টঅফ কলম্বিয়ার পাশাপাশি এবারের তদন্তে অংশ নিচ্ছে কলোরাডো, ফ্লোরিডা, আইওয়া, নেবরাস্কা,নর্থ ক্যারোলাইনা, ওহাইও এবং টেনেসি।

“আমরা আমাদেরতদন্তের সব পথই ব্যবহার করবো, এর থেকে বের করা হবে ফেইসবুকের পদক্ষেপের কারণে গ্রাহকেরডেটা ঝুঁকির মধ্যে পড়ছে কিনা, গ্রাহকের পছন্দের মান কমছে কিনা বা বিজ্ঞাপনের মূল্যবাড়ছে কিনা,” বলেন জেমস।

ইতোমধ্যে মার্কিনফেডারেল ট্রেড কমিশনের ভিন্ন একটি অ্যান্টি-ট্রাস্ট তদন্তের মুখে রয়েছে সামাজিক মাধ্যমজায়ান্ট প্রতিষ্ঠানটি।

এর আগে ফেইসবুকেরপক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছে যে, এটা কোনো একক আধিপত্য নয় এবং গ্রাহক অনলাইনে বন্ধুদেরসঙ্গে কীভাবে যুক্ত হবেন তা তারা নিজেরাই বাছাই করতে পারেন।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক