সাইবার হামলা বুলগেরিয়ায়: আর্থিক ডেটা বেহাত

লাখ লাখ বুলগেরিয়ান নাগরিকের ব্যক্তিগত আর্থিক ডেটা হাতিয়ে নিয়েছে হ্যাকাররা। রাশিয়ান একটি ইমেইল থেকে এগুলো ছড়ানো হয়।

প্রযুক্তি ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 16 July 2019, 10:24 AM
Updated : 16 July 2019, 10:24 AM

মঙ্গলবার বুলগেরিয়ান সরকারের পক্ষ থেকে বলা হয়, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কাছ থেকে নতুন এফ-১৬ যুদ্ধ বিমান কেনার সিদ্ধান্ত নেওয়ার পরপরই এই হামলা চালানো হলো।

দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী ম্লাডেন ম্যারিনভের বরাত দিয়ে বার্তাসংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়, সোমবার অর্থমন্ত্রণালয়ের সার্ভার থেকে গোপন তথ্য স্থানীয় সংবাদমাধ্যমে পাঠানোর আগে দেশটির জাতীয় রাজস্ব কর্তৃপক্ষের ব্যবস্থায় প্রবেশ করেছে হ্যাকাররা।

“হয়তো এটিই বুলগেরিয়ায় এমন ধরনের প্রথম ঘটনা যা সফল হয়েছে এবং প্রচুর ব্যক্তিগত তথ্য হাতিয়ে নেওয়া হয়েছে,” বলেন ম্যারিনভ।

ম্যারিনভ আরও বলেন, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কাছ থেকে ১২৫ কোটি ৬০ লাখ মার্কিন ডলারে নতুন আটটি লকহিড মার্টিন এফ-১৬ যুদ্ধ বিমান কিনতে যাচ্ছে বুলগেরিয়া। তাদের এই উদ্যোগই এই সাইবার হামলার কারণ হতে পারে বলে ধারণা করছেন তিনি। সমাজতন্ত্রের বলয় থেকে দেশটির বেরিয়ে আসার পর এটিই বুলগেরিয়ান সেনাবাহিনীর জন্য সবচেয়ে বড় সমরাস্ত্র ক্রয়ের ঘটনা।

“রাজনৈতিক বিশ্লেষণও করা যেতে পারে, ইমেইলটি রাশিয়ান সাইট থেকে এসেছে এবং এফ-১৬ বিমান কেনার গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্তও কালকেই নেওয়া হয়েছে।”

বুলগেরিয়ান প্রত্রিকা ২৪ চাসা’র প্রতিবেদনে বলা হয়, হ্যাকারের একটি ইমেইলে ১১ লাখের বেশি নাগরিকের আয়, সামাজিক নিরাপত্তা এবং স্বাস্থ্যসেবার তথ্যসহ শনাক্তকারী নাম্বার রয়েছে।

ইমেইলটি রাশিয়ান মেইল সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান ইয়ানডেক্স থেকে এসেছে বলেও জানানো হয়েছে। এ বিষয়ে তাৎক্ষণিক কোনো মন্তব্য করেননি মস্কো কর্তৃপক্ষ।

বুলগেরিয়ান সংবাদমাধ্যমের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে হ্যাকারদের একটি ইমেইলে উইকিলিকস প্রতিষ্ঠাতা জুলিয়ান অ্যাসাঞ্জের মুক্তির দাবিও করা হয়েছে। “আপনার সরকার মানসিকভাবে বিপর্যস্ত। আপানাদের সাইবার নিরাপত্তার অবস্থা হাস্যকর।”

কম্পিউটার ব্যবস্থায় “সম্ভাব্য দূর্বলতা” বের করতে নিরাপত্তা দল কাজ করছে বলে বিবৃতিতে জানিয়েছে এনআরএ।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক