লাইভে প্রশ্নোত্তরের নতুন ফিচার ইউটিউবে

“দর্শকের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার সময় ‘লাইভ কিউ অ্যান্ড এ’র মাধ্যমে বেশি সহজে কমিউনিটি তৈরি করতে পারবেন আপনি।”

প্রযুক্তি ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 12 Nov 2022, 01:59 PM
Updated : 12 Nov 2022, 01:59 PM

লাইভস্ট্রিমের সময় কনটেন্ট নির্মাতার সঙ্গে দর্শকের যোগাযোগ সহজ করতে ‘লাইভ কিউ অ্যান্ড এ’ নামে এক নতুন ফিচার চালু করছে ইউটিউব।

নির্মাতা লাইভস্ট্রিমে প্রশ্নোত্তর পর্ব শুরু করলে চ্যাটবক্সে ‘পিন করা মেসেজ’ হিসেবে দেখা যাবে এই ‘প্রম্পট’। দর্শকরা এতে বিভিন্ন প্রশ্ন জমা দিলে, সেগুলো থেকে একটি বাছাই করে ‘পিন’ করে রাখতে পারেন নির্মাতা।

অতীতে, লাইভ চ্যাটিংয়ে জমা পড়া ‘প্রশ্নের বন্যার’ মধ্য দিয়ে যেতে হতো নির্মাতাকে। তবে, নতুন ফিচারটি প্রশ্নগুলোকে একটি গোছানো উপায়ে নিয়ে আসবে, যার মাধ্যমে তিনি সহজেই এটি পরিচালনা করতে পারবেন। এ ছাড়া, প্রশ্নোত্তর পর্ব শেষ হলে আবার তিনি প্রচলিত লাইভ চ্যাটিংয়ে ফিরতে পারবেন বলে প্রতিবেদনে ব্যাখ্যা করেছে প্রযুক্তি সাইট টেকক্রাঞ্চ।

“আপনার স্ট্রিম ও প্রিমিয়ার চলাকালীন সরাসরি ‘লাইভ কন্ট্রোল রুম (এলসিআর)’ থেকে প্রশ্নোত্তর পর্ব তৈরি ও পরিচালনার সুযোগ দেয় এটি।” --এক ব্লগ পোস্টে বলেছে ইউটিউব।

“দর্শকের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার সময় ‘লাইভ কিউ অ্যান্ড এ’র মাধ্যমে তুলনামূলক সহজে কমিউনিটি তৈরি করতে পারবেন আপনি।”

“এই অপশন মিলবে ‘লাইভ পোল’-এর পাশে, যা আপনার স্ট্রিম দেখা দর্শকের সঙ্গে যোগাযোগ স্থাপনের আরেকটি ভালো উপায়।”

ইউটিউব বলছে, এইসব প্রশ্ন ক্রমানুসারে সাজানো থাকবে, যেখানে প্রথম জমা পড়া প্রশ্ন চলে যাবে সবার ওপরে। তবে, এতে বেশি সংখ্যক প্রশ্নের অনুমতি নেই। দুইশ প্রশ্ন জমা পড়ার পর তালিকাটির সবচেয়ে পুরোনো প্রশ্ন আর দেখা যাবে না।

টেকক্রাঞ্চের প্রতিবেদন অনুযায়ী, এই ফিচারে জমা দেওয়া প্রশ্নগুলো যেভাবে পরিচালিত হবে সেটি যা লাইভ চ্যাটিং সঞ্চালনার সুযোগ দেয় নির্মাতাকে।

বিভিন্ন মডারেটর এই ফিচার পরিচালনা করতে না পারলেও, যাদের কাছে ‘ম্যানেজার’ বা ‘এডিটর’ চ্যানেলের অনুমতি আছে, তারা সহজেই প্রশ্নোত্তরের তালিকাটি পরিচালনা করতে পারেন।

এর মানে, তারা লাইভ চ্যাটিংয়ের প্রশ্ন তালিকা দেখতে, বাছাই করতে ও সরিয়ে ফেলতে পারবেন।

টুইচ ও টিকটকের মতো সামাজিক প্ল্যাটফর্মগুলোর সঙ্গে ইউটিউবের চলমান প্রতিযোগিতার মধ্যেই নতুন এই ফিচার এলো। এর মধ্যে লাইভস্ট্রিমের জন্য নিজস্ব ‘কিউ অ্যান্ড এ’ ফিচার আছে কেবল টিকটকে।

অন্যান্য প্ল্যাটফর্মের সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বীতায় মনযোগ দেওয়ায় লাইভস্ট্রিমে বেশ কয়েকটি নতুন ফিচার এনেছে ইউটিউব।

ইউটিউবের একটি নতুন ফিচারের নাম ‘সুপার থ্যাঙ্কস’, যেটির মাধ্যমে কোনো ভিডিও’র জন্য নির্মাতাকে আর্থিক সহায়তা প্রদানের মাধ্যমে ‘বাড়তি ভালোবাসা’ দেখাতে পারেন দর্শকরা। এতে দুই ডলার থেকে ৫০ ডলারের মধ্যে চারটি ‘প্রি-সেট’ করা অর্থের পরিমাণ থেকে অনুদানের সুযোগ আছে।

‘সুপার চ্যাট’ নামেও একটি মনিটাইজেশন ফিচার আছে কোম্পানিটির, যা লাইভস্ট্রিম থেকে নির্মাতার অর্থ উপার্জনের একটি উপায়। এ ছাড়া, ‘সুপার স্টিকার’ নামের ফিচারটি তৈরি হয়েছে সেইসব ভক্তের কথা মাথায় রেখে যারা নিজেদের পছন্দের নির্মাতাকে সমর্থন জানিয়ে তার সঙ্গে যুক্ত হতে চান।

বিভিন্ন বাছাই করা নির্মাতার লাইভে একজন অতিথি যোগ করা যাবে, গত সপ্তাহে এমন একটি নতুন ফিচার আনার ঘোষণা দিয়েছে ইউটিউব। ফিচারটি চালু হলে, নির্মাতা কেবল ফোনের মাধ্যমে ‘কো-স্ট্রিম’ করতে পারবেন। কারণ, ইউটিউবের ডেস্কটপ সংস্করণে থাকবে না এটি।

ফিচারটি একদল বাছাই করা নির্মাতার জন্য চালু হলেও, ভবিষ্যতে তুলনামূলক বেশি নির্মাতার কাছে এটি পৌঁছানোর পরিকল্পনা করছে ইউটিউব।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক