তথ্য ফাঁসকারীর সঙ্গে ৭০ লাখ ডলারে রফা করেছিল টুইটার

চাকরিচ্যুত সাবেক নিরাপত্তা প্রধানের অন্যতম অভিযোগ, টুইটারের অভ্যন্তরীণ সাইবার নিরাপত্তা ব্যবস্থা একেবারেই নাজুক।

প্রযুক্তি ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 9 Sept 2022, 12:35 PM
Updated : 9 Sept 2022, 12:35 PM

চাকরিচ্যুত সাবেক নিরাপত্তা প্রধানের সঙ্গে ৭০ লাখ ডলারের বিনিময়ে সমঝোতা করেছিল মাইক্রোব্লগিং প্ল্যাটফর্ম টুইটার।

কিন্তু ওই সমঝোতার কয়েক দিনের পরেই তথ্য ফাঁসকারী হিসেবে আনুষ্ঠানিকভাবে টুইটারের বিরুদ্ধে অভিযোগ দাখিল করেন পিটার ‘মাজ’ জাটকো।

বৃহস্পতিবারের এক প্রতিবেদনে ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল জানিয়েছে, জুন মাসেই পিটার জাটকোকে ক্ষতিপূরণ হিসেবে ৭০ লাখ ডলার দিতে সম্মত হয়েছিল টুইটার কর্তৃপক্ষ।

সমঝোতার অংশ হিসেবে টুইটারে নিজের ব্যক্তিগত অভিজ্ঞতা সম্পূর্ণ গোপন রাখার এবং প্ল্যাটফর্মটির প্রতি কোনো নেতিবাচক মন্তব্য করা থেকে বিরত থাকার কথা ছিল জাটকোর।

কিন্তু, জুলাই মাসেই যুক্তরাষ্ট্রের বাজার নিয়ন্ত্রকসংস্থা ‘সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনে (এসইসি) ৮৪ পাতার অভিযোগ তিনি জমা দেন।

টুইটারের বিরুদ্ধে নানা অনিয়মের অভিযোগ তুলেছেন জাটকো। জানুয়ারি মাসে চাকরিচ্যুত হওয়া সাবেক নিরাপত্তা প্রধানের অন্যতম অভিযোগ, টুইটারের অভ্যন্তরীণ সাইবার নিরাপত্তা ব্যবস্থা একেবারেই নাজুক। ভারতে মোদী প্রশাসনের চাপে টুইটার একজন সরকারি এজেন্টকেও বেতনভুক্ত পদে নিয়োগ দিয়েছিল বলে তার ভাষ্য।

এছাড়া সাধারণ ব্যবহারকারী এবং বাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থাগুলোকে প্ল্যাটফর্মের নিরাপত্তা ব্যবস্থা এবং স্প্যাম অ্যাকাউন্টের সংখ্যা নিয়ে টুইটার ‘ভুয়া তথ্য দিয়ে বিভ্রান্ত করেছে’ বলেও অভিযোগ তুলেছেন জাটকো।

যুক্তরাষ্ট্রের জনপ্রতিনিধিদের টুইটারের অনিয়ম ও মিথ্যাচার সম্পর্কে জানাতে ১৩ সেপ্টেম্বর মার্কিন সিনেটের এক বিশেষ কমিটির সঙ্গে দেখা করার কথা রয়েছে তার।

ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল জানিয়েছে, জুন মাসের সমঝোতার মূল বিষয় ছিল টুইটারের কাছে জাটকোর পাওনা অর্থ। চাকরিচ্যুত হওয়ার পর টুইটার কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে পাওনা বুঝে নিতে কয়েক মাস ধরে আলোচনা চলছে সাবেক নিরাপত্তা প্রধানের।

এ বিষয়ে টুইটারের প্রতিক্রিয়া জানার চেষ্টা করেছিল বার্তাসংস্থা রয়টার্স। কিন্তু তাৎক্ষণিক কোনো সাড়া দেয়নি কোম্পানি।

বিশ্বের শীর্ষ ধনী ইলন মাস্কের সঙ্গেও আইনি লড়াই চলছে টুইটারের। চার হাজার চারশ কোটি ডলারে কোম্পানির সব শেয়ার কিনে নেওয়ার প্রস্তাব দিয়ে চুক্তি করেছিলেন মাস্ক। প্ল্যাফর্মটি বট অ্যাকাউন্ট নিয়ে সঠিক তথ্য দিচ্ছে না অভিযোগ তুলে সেই চুক্তি থেকে বেরিয়ে আসতে চাইছেন টেসলা প্রধান।

সেই মামলায় সাক্ষ্য দেওয়ার জন্য জাটকোকে উকিল নোটিসও পাঠিয়েছেন মাস্কের আইনজীবীরা। সাক্ষী হিসেবে জাটকোকে উপস্থিতি হওয়ার অনুমতিও দিয়েছে ডেলাওয়্যারের আদালত।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক