খরচে রাশ: কর্মী ছাঁটাই, বদলি গুগল-মেটায়

বিজ্ঞাপন থেকে কামাই করা কোম্পানিগুলো আর্থিক মন্দার শঙ্কায় কীভাবে প্রস্তুতি নিচ্ছে– মেটা আর গুগলের সাম্প্রতিক পদক্ষেপগুলো তারই ধারণা দিচ্ছে।

প্রযুক্তি ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 22 Sept 2022, 02:05 PM
Updated : 22 Sept 2022, 02:05 PM

ব্যবসা বাড়ছে এখনও, তবে কমে এসেছে সেই বৃদ্ধির হার। আর এতেই সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নিতে শুরু করেছে বিশ্বের শীর্ষ প্রভাবশালী ও ধনী প্রযুক্তি কোম্পানিগুলো।

খরচ কমানোর লক্ষ্যে কর্মী ছাঁটাই শুরু করেছে ফেইসবুকের মূল কোম্পানি মেটা এবং অ্যালফাবেট ইনকর্পোরেটেডের মালিকানাধীন গুগল।

বাজার বিশ্লেষকরা বলছেন আর্থিক মন্দা মোকাবেলার প্রস্তুতি হিসেবে কোম্পানির সার্বিক খরচ কমানোর চেষ্টা করছে এরা।

সংশ্লিষ্ট সূত্রের বরাত দিয়ে বুধবার ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল জানিয়েছে, আগামী কয়েক মাসের মধ্যে কোম্পানির খরচ ১০ শতাংশ কমানোর চেষ্টা করছে মেটা। কোম্পানির শীর্ষ কর্মকর্তারা এখনও বড় পরিসরে কর্মী ছাঁটাইয়ের ঘোষণা না দিলেও অভ্যন্তরীণ বিভাগগুলো ঢেলে সাজাচ্ছেন এবং পুরনো কর্মীদের কোম্পানির ভিন্ন পদে চাকরির আবেদন করতে বলেছেন।

প্রযুক্তিবিষয়ক সাইট সিনেট জানিয়েছে, এ বছরের ৩০ জুন পর্যন্ত ৮৩ হাজার ৫৫৩জন কর্মী ছিল ফেইসবুকে।

অন্যদিকে, গুগলও নির্দিষ্ট কিছু কর্মীকে অন্য বিভাগের পদের জন্য আবেদন করতে বলেছে বলে জানিয়েছে সাইটটি।

যে কোম্পানিগুলো বিজ্ঞাপন থেকে কামাই করে, আর্থিক মন্দার শঙ্কায় সেগুলো কীভাবে প্রস্তুতি নিচ্ছে– মেটা আর গুগলের সাম্প্রতিক পদক্ষেপগুলো থেকে তার ইঙ্গিত মিলছে বলে মন্তব্য করেছে সাইটটি।

এতে ঠিক কতোজন কর্মীর পেশাজীবনে প্রভাব পরেছে সে তথ্য মেলেনি। তবে, খরচ কমানোর সম্ভাব্য উপায় ভেবে দেখা হচ্ছে বলে আগেই জানিয়েছিল কোম্পানিগুলো।

জুলাই মাসেই ‘ক্রমান্বয়ে নতুন নিয়োগের হার কমানোর’ পরিকল্পনার জানিয়েছিলেন মেটা প্রধান মার্ক জাকারবার্গ। গত বছরের তৃতীয় প্রান্তিক থেকেই খরচ কমানোর চেষ্টা করছে কোম্পানিটি। অন্যদিকে, ভার্চুয়াল ও অগমেন্টেড রিয়ালিটি খাতে হাত খুলে বিনিয়োগ করছে এই সোশাল মিডিয়া জায়ান্ট।

গুগল প্রধান সুন্দার পিচাই নিজ প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তাদের নতুন কর্মী নিয়োগের গতি কমানোর কথা বলেছিলেন জুলাই মাসেই। ৩০ জুন পর্যন্ত কোম্পানিটির এক লাখ ৭৪ হাজার ১৪ জন কর্মী ছিল বলে জানিয়েছে সিনেট।

আরও খবর রটেছে, নিজস্ব স্টার্টআপ ইনকিউবেটর ‘এরিয়া ১২০’র একশ কর্মীকে নতুন চাকরি খোঁজার জন্য ৯০ দিন সময় দিয়েছে গুগল। তবে, যাদের প্রকল্প ইতোমধ্যেই বাতিল হয়েছে, গুগল তাদের আরও বেশি সময় দিচ্ছে বলে উঠে এসেছে সিনেটের প্রতিবেদনে।

কর্মীছাঁটাই প্রসঙ্গে গুগল ও অ্যালফাবেটের সঙ্গে যোগাযোগ করে তাৎক্ষণিক কোনো উত্তর পায়নি সিনেট। তবে ওয়াল স্ট্রিট জার্নালের এক প্রতিবেদককে এক গুগল মুখপাত্র বলেছেন, যেসব কর্মীকে নির্দিষ্ট সময়ে মধ্যে নতুন চাকরি খুঁজতে বলা হয়েছে তাদের মধ্যে ৯৫ শতাংশ কোম্পানির ভেতরেই নতুন কাজ খুঁজে পেয়েছেন।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক