‘অভিজ্ঞতার কারণেই জয়নব পেনাল্টি নিয়েছিল’

দ্বিতীয়ার্ধে ভালো খেললেও ভাগ্যকে পাশে না পাওয়ার হতাশা জানালেন বাংলাদেশ কোচ গোলাম রব্বানী ছোটন।

ক্রীড়া প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 11 Nov 2022, 01:47 PM
Updated : 11 Nov 2022, 01:47 PM

মাঠে তখনও প্রতিযোগিতার সর্বোচ্চ গোলদাতা সুরভি আকন্দ প্রীতি ছিলেন, কিন্তু পেনাল্টি নিলেন জয়নব বিবি রিতা। তার দুর্বল প্লেসিং শট সহজে আটকালেন নেপাল গোলরক্ষক। মেয়েদের সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ চ্যাম্পিয়নশিপের শিরোপা পুনরুদ্ধারের স্বপ্ন গুঁড়িয়ে গেল বাংলাদেশের। তবে কোচ গোলাম রব্বানী ছোটন দুষছেন না পেনাল্টি মিস করা রিতাকে। 

কমলাপুরের বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহী মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামে শুক্রবার দুই দলের ম্যাচটি ১-১ ড্র হয়। চার ম্যাচে তিন জয় ও এক ড্রয়ে ১০ পয়েন্ট নিয়ে অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন হলো নেপাল। 

নেপালের কাছে প্রথম লেগে ১-০ গোলে হেরেছিল বাংলাদেশ। দ্বিতীয় লেগে করল ড্র। তবে ৮৯তম মিনিটে পাওয়া পেনাল্টি সুযোগটি কাজে লাগাতে পারলে গোল পার্থক্যে এগিয়ে থাকা ছোটনের দলই ট্রফি জয়ের আনন্দে মাততে পারত। 

শিরোপার খুব কাছে এসে না পাওয়ায় হতাশ ছোটন। তবে মেয়েদের দোষ দেখেন না তিনি। বরং দ্বিতীয়ার্ধে ভালো খেলেও গোল না পাওয়ার আক্ষেপ বেশি তার। 

“ও (জয়নব বিবি রিতা) অভিজ্ঞ খেলোয়াড়, এর আগে বয়সভিত্তিক দলে খেলেছে, তাই ওকে পেনাল্টি মারতে দেওয়া হয়েছে। সুরভি মারলে যে গোল হতো তা তো নয়, রিতা নার্ভাস হয়নি, ও নিজে থেকেই স্পট কিক নিতে গেছে।” 

“প্রথম থেকে মেয়েরা খেলার মধ্যেই ছিল। নিজেদের ভুলে গোল খায়। দ্বিতীয়ার্ধে তারা ঘুরে দাঁড়ায়। গোলও করে। এরপর দল পেনাল্টি পেল, কিন্তু দুর্ভাগ্য যে পেনাল্টি মিস হলো। কিছুটা পরিপক্কতার কমতি আছে মেয়েদের। সামনের ম্যাচগুলোতে ছোটখাট ভুলগুলো যেন না হয়, তা দেখতে হবে। পাসগুলো ভালো হতে হবে। আমাদের ওইসব জায়গায় আরও উন্নতি করতে হবে।”

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক