শেষ মুহূর্তের গোলে ইউনাইটেডের নাটকীয় জয়

বিশ্বকাপ বিরতির আগে শেষটা দারুণ হলো এরিক টেন হাগের দলের।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 13 Nov 2022, 06:31 PM
Updated : 13 Nov 2022, 06:31 PM

দুই পাশে দুই গোলরক্ষক ম্যাচজুড়ে করলেন দারুণ সব সেভ। এর মাঝেই ফুলহ্যামের বিপক্ষে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডকে এগিয়ে নেন ক্রিস্তিয়ান এরিকসেন। তবু জেগেছিল তাদের পয়েন্ট হারানোর শঙ্কা। একেবারে শেষ মুহূর্তে গোল করে দলকে উচ্ছ্বাসে ভাসান আলেহান্দ্রো গারনাচো।

বিশ্বকাপ বিরতির আগে প্রিমিয়ার লিগের শেষ ম্যাচটি রোববার রাতে ২-১ গোলে জিতেছে এরিক টেন হাগের দল।

অসুস্থতার কারণে এই ম্যাচে ছিলেন না ইউনাইটেডের পর্তুগিজ তারকা ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো।

ফুলহ্যামের মাঠে আক্রমণ পাল্টা-আক্রমণে শুরু থেকে জমে ওঠে লড়াই। চতুর্থ মিনিটে স্বাগতিকদের কার্লোস ভিনিসিউসের শট ফিরিয়ে জাল অক্ষত রাখেন দাভিদ দে হেয়া।

নবম মিনিটে প্রথম উল্লেখযোগ্য সুযোগ পায় ইউনাইটেড। লুক শর দারুণ ক্রস ডি-বক্সে খুঁজে পায় মার্কাস র‍্যাশফোর্ডকে। এই ইংলিশ ফরোয়ার্ডের পাসে অঁতনি মার্সিয়ালের প্রচেষ্টা ঠেকান গোলরক্ষক বার্নড লেনো।

চার মিনিট পরই এগিয়ে যায় সফরকারীরা। ব্রুনো ফের্নান্দেসের পাস দূরের পোস্টে পেয়ে স্লাইডে ফাঁকা জালে বল পাঠান এরিকসেন।

ইউনাইটেডের জার্সিতে ডেনমার্কের এই মিডফিল্ডারের প্রথম গোল এটি।

২৬তম মিনিটে হ্যারি উইলসনের শট ফিরিয়ে ব্যবধান ধরে রাখেন দে হেয়া। দুই মিনিট পর আরেকটি সেভ করেন তিনি। ৩০তম মিনিটে মার্সিয়ালের শট ফেরান লেনো।

দ্বিতীয়ার্ধের তৃতীয় মিনিটে ডাবল সেভ করে ব্যবধান বাড়তে দেননি লেনো। এন্থনি এলেঙ্গার শট ঠেকানোর পর র‍্যাশফোর্ডের প্রচেষ্টা রুখে দেন তিনি।

খানিক পর এক মিনিটের মধ্যে দুটি দারুণ সেভ করেন দে হেয়া। ভিনিসিউসের শট ঠেকানোর পর কাছ থেকে টিম রিমের হেড আটকে দেন স্প্যানিশ গোলরক্ষক।

৫৯তম মিনিটে উইলসনকে তুলে ড্যানিয়েল জেমসকে নামান ফুলহ্যাম কোচ। খানিক পর বলে প্রথম স্পর্শেই দলকে সমতায় ফেরান তিনি। সতীর্থের পাস গোলমুখে পেয়ে লক্ষ্যভেদ করেন ইউনাইটেডের সাবেক ফরোয়ার্ড। বল দে হেয়ার পায়ে লেগে জালে জড়ায়।

৭২তম মিনিটে এগিয়েও যেতে পারত তারা। বক্সের ভেতর থেকে জোয়াও পালিনিয়ার ওভারহেড কিক দারুণ দক্ষতায় ফেরান দে হেয়া।

পরক্ষণেই মার্সিয়ালের জায়গায় গারনাচোকে নামান টেন হাগ। যোগ করা সময়ের তৃতীয় মিনিটে জয়সূচক গোলটি করেন ১৮ বছর বয়সী ফরোয়ার্ড।

বাঁ দিক থেকে এরিকসেনকে পাস দিয়ে বক্সে ঢুকে পড়েন তিনি। সতীর্থের ফিরতি পাস পেয়ে কোনাকুনি শটে গোলরক্ষককে পরাস্ত করেন বয়সভিত্তিক ফুটবলে জন্মভূমি স্পেন ও মায়ের জন্মভূমি আর্জেন্টিনার হয়ে খেলা এই ফুটবলার।

১৪ ম্যাচে আট জয় ও দুই ড্রয়ে ২৬ পয়েন্ট নিয়ে পঞ্চম স্থানে আছে ইউনাইটেড।

১৫ ম্যাচে ২৯ পয়েন্ট নিয়ে টটেনহ্যাম হটস্পার চারে, ৩০ পয়েন্ট নিয়ে নিউক্যাসল ইউনাইটেড তিনে আছে।

১৪ ম্যাচে ৩২ পয়েন্ট নিয়ে গতবারের চ্যাম্পিয়ন ম্যানচেস্টার সিটি দুইয়ে আছে। সমান ম্যাচে ৩৭ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আর্সেনাল।

১৫ ম্যাচে ১৯ পয়েন্ট নিয়ে নবম স্থানে আছে ফুলহ্যাম।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক