ফাতিকে নিয়ে তাড়াহুড়া করতে নারাজ কুমান

চোট কাটিয়ে দীর্ঘ দিন পর মাঠে ফেরা আনসু ফাতিকে নিয়ে কোনোরকম ঝুঁকি নিতে চান না রোনাল্ড কুমান। তরুণ এই ফরোয়ার্ডকে এখনই শুরুর একাদশে খেলাতে নারাজ বার্সেলোনা কোচ।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 28 Sept 2021, 05:00 PM
Updated : 28 Sept 2021, 05:08 PM

লা লিগায় গত রোববার লেভান্তের বিপক্ষে বার্সেলোনার ৩-০ গোলে জয়ের ম্যাচ দিয়ে ১০ মাস পর মাঠে ফেরেন ফাতি। ৮১তম মিনিটে বদলি হিসেবে নামা ১৮ বছর বয়সী এই ফুটবলারের বাকি সময়ের খেলা দেখে মনেই হয়নি, এতদিন তিনি মাঠের বাইরে ছিলেন। যোগ করা সময়ে ডি-বক্সের বাইরে থেকে ডান পায়ের জোরালো শটে সমর্থকদের উচ্ছ্বাসে ভাসান লা লিগায় বার্সেলোনায় সর্বকনিষ্ঠ এই গোলদাতা।

ফিরেই ফাতির অমন উজ্জ্বল পারফরম্যান্সে দুঃসময়ে থাকা বার্সেলোনা যেন ফিরে পেয়েছে স্বস্তি। চ্যাম্পিয়ন্স লিগে প্রথম ম্যাচে ঘরের মাঠে বায়ার্ন মিউনিখের বিপক্ষে বিধ্বস্ত হওয়া কাতালান দলটি বুধবার বেনফিকার মুখোমুখি হবে। বাংলাদেশ সময় রাত ১টায় হবে ম্যাচটি।

সামনের ম্যাচগুলোতে ফাতিকে আরও বেশি সময় খেলানোর কথা আসছে স্বাভাবিকভাবেই। তবে বেনফিকার বিপক্ষে ম্যাচের আগের দিন সংবাদ সম্মেলনে কুমান জানান, ফাতিকে নিয়ে তার সতর্ক পরিকল্পনা।

“সে গতকাল খুবই ক্লান্ত ছিল। লম্বা সময়ে মাঠের বাইরে থাকা এবং ফিরে স্টেডিয়ামে পরিবারের সামনে গোল করাটা মানসিকভাবে তার ওপর বড় প্রভাব ফেলেছিল।”

“আজ সে ভালোভাবে অনুশীলন করেছে। আমরা তাকে ম্যাচে আরও বেশি সময় খেলানোর চেষ্টা করব, তবে আমি বলতে পারছি না কত মিনিট তাকে দেওয়া হবে। এটা নির্ভর করবে তার (শারীরিক) অবস্থানের ওপর।”

অক্টোবরে হতে যাওয়া উয়েফা নেশন্স লিগের ফাইনালসে স্পেন দলে ফাতির ডাক পাওয়ার সম্ভাবনা প্রবল। কুমান মনে করেন, কেবল ১৫ মিনিট খেলা এই তরুণের এখনও অনেকটা পথ পাড়ি দিতে হবে। 

“আমি কেবল বলতে পারি, সে ১০ মাস মাঠের বাইরে ছিল। দলের সঙ্গে দুই সপ্তাহ অনুশীলন করেছে এবং ম্যাচে ১৫ মিনিট খেলেছে।”

“তাকে এখনও অনেক পথ পাড়ি দিতে হবে। যদিও রোববার তার জন্য দুর্দান্ত একটি দিন ছিল। সে ১৫ মিনিট খেলে আমাদের তৃতীয় গোলটি করে, এটি ছিল নিখুঁত।”

পর্তুগিজ লিগে এখন পর্যন্ত খেলা সাতটি ম্যাচই জিতেছে বেনফিকা। চ্যাম্পিয়ন্স লিগে দিনামো কিয়েভের বিপক্ষে গোলশূন্য ড্র করে তারা আছে ‘ই’ গ্রুপে দ্বিতীয় স্থানে। আর প্রথম ম্যাচ হারা বার্সেলোনার অবস্থান তলানিতে।

গ্রুপ সেরা হওয়ার ক্ষেত্রে বায়ার্ন মিউনিখকে ধরা হচ্ছে ফেভারিট। দ্বিতীয় হতে বার্সেলোনার জন্য সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ বেনফিকা। এই ক্লাবে এক মৌসুম কোচ হিসেবে কাটিয়ে আসা কুমানের মতে, পথটি মোটেও সহজ নয়। তবে তার দল ভালো করবে বলে আশাবাদী ডাচ কোচ।

“বেনফিকা শক্তিশালী ক্লাব। অভিজ্ঞতা থেকে বলতে পারি তারা কতটা সামর্থ্য রাখে। রোমাঞ্চকর ম্যাচ হবে এবং আমাদের ভালো ফল প্রয়োজন।”

ম্যাচটির জন্য বার্সেলোনা দলে ফিরেছেন ফ্রেংকি ডি ইয়ং। নিষেধাজ্ঞার কারণে লেভান্তের বিপক্ষে খেলতে পারেননি এই ডাচ মিডফিল্ডার। চোট কাটিয়ে ফিরেছেন মিডফিল্ডার পেদ্রি ও ডিফেন্ডার সের্হি রবের্তো। এখনও চোট থেকে সেরে ওঠেননি জর্দি আলবা।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক