সবার ওপরে ক্লাব, মেসি বিষয়ে বললেন লাপোর্তা

শত বাধার মাঝে লিওনেল মেসিকে ধরে রাখলে ভবিষ্যতে বড় সমস্যায় পড়তে পারতো বার্সেলোনা। তার বড় অঙ্কের বেতন দিতে গিয়ে ক্লাবটির নাজুক আর্থিক অবস্থা হতো আরও খারাপ। আগামীর কথা ভেবেই আর্জেন্টাইন তারকার বিষয়ে কঠিন সিদ্ধান্ত নিতে হয়েছে বলে জানালেন ক্লাবটির সভাপতি হুয়ান লাপোর্তো।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 6 August 2021, 02:10 PM
Updated : 6 August 2021, 02:16 PM

ইচ্ছে থাকা সত্ত্বেও লা লিগার ফিন্যান্সিয়াল ফেয়ার প্লের (এফএফপি) মারপ্যাচে মেসিকে ধরে রাখা সম্ভব নয় বলে বৃহস্পতিবার জানায় কাতালান দলটি।

পরদিন সংবাদ সম্মেলনে এসে নিজেদের অবস্থান পরিষ্কার করেন লাপোর্তা। জানান, নতুন চুক্তিতে রাজি ছিল উভয় পক্ষই। তবে বেতন বাবদ বার্সেলোনার খরচ হয়ে যাচ্ছিল আয়ের ১১০ শতাংশ, যা প্রত্যাশার চেয়ে অনেক বেশি হওয়ায় আর্থিকভাবে এটা খুবই ঝুঁকিপূর্ণ।

তিনি জানান, মেসিকে ছাড়াই বেতন খাতে মোট আয়ের ৯৫ শতাংশ ব্যয় হয়ে যাচ্ছে বার্সেলোনার। এটা সামাল দেওয়াও এখন তার সামনে চ্যালেঞ্জ।

এমন কঠিন অবস্থায় ঝুঁকিপূর্ণ কোনো সিদ্ধান্ত নিতে চায়নি ক্লাব। ক্লাবের ইতিহাসের সফলতম খেলোয়াড়কে ছেড়ে দেওয়া ছাড়া কোনো পথ খোলা ছিল না বলে জানান তিনি।

“এই ফেয়ার প্লের ভেতরে থাকতে, বার্সেলোনাকে ক্লাবের টিভি স্বত্ব ৫০ বছরের জন্য বন্ধক রাখার মতো একটি চুক্তিতে সম্মত হতে হতো। কারো জন্য আমি ক্লাবের স্বত্ব বন্ধক রাখতে রাজি নই। সবার ওপরে ক্লাব-এমনকি বিশ্বের সেরা খেলোয়াড়ের চেয়েও। আমরা সবসময় তার প্রতি কৃতজ্ঞ থাকব।”

ক্লাবের সঙ্গে সবশেষ ২০১৭ সালে চুক্তি নবায়ন করেছিলেন মেসি। স্প্যানিশ পত্রিকার এল মুন্দোর প্রতিবেদন অনুযায়ী, খেলাধুলায় এটি ছিল বিশ্বের সবচেয়ে আকর্ষনীয় চুক্তি। মেয়াদ শেষে গত ১ জুলাই ফ্রি এজেন্ট হয়ে যান রেকর্ড ছয়বারের বর্ষসেরা ফুটবলার।

করোনাভাইরাসের কারণে ২০২০-২১ মৌসুমের আর্থিক ক্ষতি আশঙ্কার চেয়ে দ্বিগুণ হবে বলে মনে করেন লাপোর্তা। এই অবস্থায় কোনো ঝুঁকি নিতে চাননি তিনি।

১৩ বছর বয়সে বার্সেলোনায় আসা মেসির মূল দলে অভিষেক হয় ২০০৪ সালে। হয়ে ওঠেন ফুটবলের মহাতারকাদের একজন। স্পেনের ক্লাবটির হয়ে সবচেয়ে বেশি ম্যাচ খেলা, গোল করা, শিরোপা জয়সহ আরও অনেক রেকর্ড গড়েছেন তিনি। এই ক্লাবের হয়েই আলো ছড়িয়ে ৩৪ বছর বয়সী আর্জেন্টাইন তারকা জিতেছেন ছয়টি ব্যালন ডি’অর।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক